শনিবার| ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২০| ১৫ফাল্গুন১৪২৬

খবর

সেন্টমার্টিনে ট্রলারডুবিতে নিহত ১৫, জীবিত উদ্ধার ৭৩

বণিক বার্তা অনলাইন

সমুদ্রপথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে বঙ্গোপসাগরে ১২০ জনের মতো রোহিঙ্গা বহনকারী একটি ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটেছে। এতে ১৫ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পাশাপাশি অন্তত ৭৩ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, আরো কয়েকজন যাত্রী নিখোঁজ রয়েছেন।

গতকাল সোমবার দিবাগত গভীর রাতে সেন্টমার্টিনের অদূরে ছেঁড়াদ্বীপ থেকে ১০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিখোঁজদের উদ্ধারে আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে অভিযান চালাচ্ছে কোস্টগার্ড ও নৌবাহিনী।

কোস্টগার্ড জানিয়েছে, জীবিত উদ্ধারকৃত ৭৩ জনের মধ্যে পুরুষ ২৪ জন, নারী ৪৬ জন এবং শিশু রয়েছে তিনজন। আর নিহত ১৫ জনের মধ্যে নারী ১২ জন ও শিশু তিনজন। তবে তাদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

ডুবে যাওয়া ট্রলারটি শনাক্ত করা সম্ভব হয়েছে। এর ভেতরে কোন জীবিত বা মৃতদেহ পাওয়া যায়নি। তবে উদ্ধার কাজ অব্যহত রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে কোস্টগার্ড।

সেন্টমার্টিন কোস্টগার্ডের স্টেশন কমান্ডার লে. কমান্ডার নাঈম উল হক বলেন, টেকনাফ থেকে সমুদ্রপথে ট্রলারযোগে অবৈধভাবে মালয়েশিয়ায় যাচ্ছিলেন তারা। তাদের ট্রলারে ১২০ জনের মতো রোহিঙ্গা ছিলেন। এর মধ্যে ১৫ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। কেউ কেউ সাঁতরে কূলে উঠে পালিয়ে গেছেন। অনেকেই নিখোঁজ রয়েছেন। উদ্ধারকাজ চলছে।

উদ্ধারকৃত রোহিঙ্গারা জানিয়েছেন, সোমবার রাতে সমুদ্রপথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়ার উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন তারা। সেন্টমার্টিনের ছেঁড়াদ্বীপের দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে ইঞ্জিন বিকল হয়ে ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটে।


১২০ রোহিঙ্গা নিয়ে সেন্টমার্টিনে ট্রলারডুবি, ১৫ মৃতদেহ উদ্ধার

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন