সোমবার | আগস্ট ১০, ২০২০ | ২৬ শ্রাবণ ১৪২৭

খবর

রাজশাহী-কলকাতার মধ্যে ট্রেন চালুর পরিকল্পনা

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজশাহী ও কলকাতার মধ্যে পুনরায় রেল যোগাযোগ চালুর পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার। এ ব্যাপারে ভারতের সঙ্গে আলোচনাও হয়েছে বলে জানিয়েছেন রেলপথমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম।

আজ বুধবার রেল ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এই পরিকল্পনার কথা জানান রেলমন্ত্রী।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বাংলাদেশ রেলওয়ের যাত্রা ও বিকাশ ভারতীয় উপমহাদেশের রেলওয়ের ইতিহাসের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। বর্তমান বাংলাদেশ রেলওয়ের যে নেটওয়ার্ক রয়েছে তা মূলত অবিভক্ত ব্রিটিশ ভারত রেলওয়ের খণ্ডিত অংশ। সে সময়ের নেটওয়ার্ক অনুযায়ী বাংলাদেশ ভারতের মধ্যে আটটি ইন্টারচেঞ্জ রুট ছিল। কিন্তু ক্রমেই সেগুলো বন্ধ হয়ে গেছে। ২০০৮ সাল থেকে ঢাকা-কলকাতা ও ঢাকা-খুলনা রুটে ‘মৈত্রী এক্সপ্রেস’ ও ‘বন্ধন এক্সপ্রেস’ ট্রেন দুটি চলাচল করছে।

বিভক্ত বাংলায় ভারতের মালদহ বা মুর্শিদাবাদ হয়েই রেলপথে কলকাতার সঙ্গে যোগাযোগের অন্যতম কেন্দ্র হয়ে উঠেছিলো রাজশাহী। ১৯৪৭ সালের বিভক্তির পর সেই যোগাযোগ ব্যবস্থাটি বন্ধ হয়ে যায়। কিন্তু চিকিৎসাসেবা ও ভ্রমণসহ বিভিন্ন কারণে এ অঞ্চলের মানুষকে এখনো ভারতে যেতে হচ্ছে। বিশেষ করে, বহুসংখ্যক অসুস্থ মানুষ চিকিৎসার জন্য প্রতিদিনই যাচ্ছেন প্রতিবেশী দেশ ভারতের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে।

আর এসব বিষয় মাথায় রেখে ফের রাজশাহী-কোলকাতা রুটে ট্রেনসার্ভিস চালুর দাবি উঠেছে। 

এর আগে গেল বছর ৩০ অক্টোবর রেলভবনে রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাসের সঙ্গে এ বিষয়ে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকও করেছেন। বৈঠক শেষে জানানো হয়, রাজশাহী-কলকাতা রুটে ট্রেন সার্ভিস চালু হলে এটি উত্তরবঙ্গের সঙ্গে চিকিৎসা, ভ্রমণ ও বাণিজ্যের ক্ষেত্রে নতুন সম্ভাবনার দুয়ার খুলবে। দেশের শস্যভাণ্ডারখ্যাত উত্তরবঙ্গের অনেক ফসল রাজশাহী হয়ে রেলপথে ভারতের বাজারে ঢুকতে পারবে। আমদানি-রফতানির জন্য উন্মোচিত হবে নতুন ক্ষেত্র।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন