সোমবার | মে ২৫, ২০২০ | ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

খবর

শ্রম আইনের মামলায় আত্মসমর্পণের পর ড. ইউনূসের জামিন

শ্রম আইন লঙ্ঘনের আরেক মামলায় আত্মসমর্পণ করে জামিন পেয়েছেন গ্রামীণ কমিউনিকেশনসের চেয়ারম্যান ড. মুহাম্মদ ইউনূস।

আজ রোববার ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতের বিচারক রহিবুল ইসলামের কাছে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন নোবেলজয়ী এ অর্থনীতিবিদ। শুনানি শেষে আদালত পাঁচ হাজার টাকা মুচলেকায় তার জামিন মঞ্জুর করেন।

গত ৫ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠানটির শ্রম পরিদর্শক (শ্রম) তরিকুল ইসলাম শ্রম আদালতে এ মামলা করেন। আদালত ১৩ জানুয়ারি চারজনকে ৬ ফেব্রুয়ারি হাজির হতে সমন জারি করে। আদালতে তলব করা অন্য তিন আসামি হলেন গ্রামীণ কমিউনিকেশনসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজনীন সুলতানা ও পরিচালক আব্দুল হাই খান ও উপমহাব্যবস্থাপক গৌরি শংকর।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, মামলার বাদী তরিকুল ইসলাম গত বছরের ১০ অক্টোবর গ্রামীণ কমিউনিকেশনস কার্যালয়ে সরেজমিন পরিদর্শনে যান। পরিদর্শনে গিয়ে তিনি সেখানে শ্রম আইনের ১০টি বিধি লঙ্ঘনের বিষয় দেখতে পান। এর আগেও গত বছরের ৩০ এপ্রিল কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের এক পরিদর্শক প্রতিষ্ঠানটি পরিদর্শন করে বেশকিছু ত্রুটি দেখতে পেয়ে তা সংশোধনের নির্দেশনা দেন। এরপর ওই বছরের ৭ মে ডাকযোগে এ বিষয়ে বিবাদী পক্ষ জবাব দিলেও তা সন্তোষজনক হয়নি। পরে গত ২৮ অক্টোবর তরিকুল ইসলাম আবারো তা অবহিত করেন। নির্দেশনা বাস্তবায়ন না করে বিবাদীরা ফের সময়ের জন্য আবেদন করেন। কিন্তু আবেদনের সময় অনুযায়ী তারা জবাব দাখিল করেননি। এর পরই মামলার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এর আগে ট্রেড ইউনিয়নের সঙ্গে যুক্ত থাকা দায়ে চাকরির মেয়াদ না বাড়ানোয় শ্রম আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে একই প্রতিষ্ঠানের সাত কর্মীর করা দুটি মামলায় গত বছরের ৩ নভেম্বর আত্মসমর্পণ করে জামিন নেন ইউনূস।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন