শনিবার| ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২০| ১৫ফাল্গুন১৪২৬

খবর

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে সগৌরব উপস্থিতি থাকবে বাংলাদেশের: অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে বিশ্বদরবারে বাংলাদেশের সগৌরব উপস্থিতি থাকবে বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। গতকাল নগরীর শেরেবাংলা নগরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রেডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা ২০২০ বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রযুক্তির মহাসড়কের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন তিনি।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, বছরে সারা বিশ্বে পোশাক শিল্পের বাজার ৯০০ বিলিয়ন ডলার। আইসিটি খাতের বার্ষিক চাহিদা ৪ ট্রিলিয়ন ডলার। আমরা এ খাতে ১ বিলিয়ন ডলার থেকে ৩৪ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছে গেছি। পোশাক শিল্পের মতোই  আমরা আইসিটি খাতে সক্ষমতা অর্জন করতে পারব। চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে বাংলাদেশের সগৌরব উপস্থিতি থাকবে। এজন্য টেকনোলজির বহুমাত্রিক ব্যবহার করতে হবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব মো. নূর উর রহমান।

অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, প্রথম শিল্প বিপ্লব শুরু হয় ইংল্যান্ডে। প্রথম শিল্প বিপ্লবে আমরা ফেল করেছি, দ্বিতীয় শিল্প বিপ্লবেও আমরা অংশগ্রহণ করতে পারিনি। তৃতীয় শিল্প বিপ্লব চলমান, কিছু কিছু ক্ষেত্রে অংশগ্রহণ করছি। চতুর্থ শিল্প বিপ্লব নলেজ বেইজড সবকিছুই পরিবর্তন আসবে টেকনোলজির মাধ্যমে। চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে বাংলাদেশের সগৌরব উপস্থিতি থাকবে। টেকনোলজির বহুমাত্রিক ব্যবহার করতে হবে। আমরা শিক্ষা গ্রহণ করব এবং বাস্তবায়ন করব।

তিনি বলেন, ব্যাপক শিল্পায়নের মাধ্যমে সবাইকে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে। একদিকে শিল্পায়ন হবে, অন্যদিকে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে।  ডিজিটাল বাংলাদেশের ধারণা প্রধানমন্ত্রী ও সজীব ওয়াজেদ জয়ের কাছ থেকে এসেছে। এটা আর স্বপ্ন নয়, বাস্তবে ধরা দিয়েছে। এটা সারা দেশে অগ্রগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। ফাইভজি শিগগরিই বাস্তবে রূপান্তর হবে। আমাদের বিশাল কর্মক্ষম যুবসমাজের সুযোগ রয়েছে। তাই এ সেক্টরে লাভবান হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, সারা পৃথিবীতে ডিজিটাল শব্দটিকে বিপ্লবে রূপ দিয়েছে বাংলোদেশ। ডিজিটাল বাংলাদেশ ঘোষণার ১১ বছর পর আমরা একটা মূল্যায়ন করেছি। আমরা জিজিটাল খাতে অনেক এগিয়েছি। আমরা দেশে কম্পিউটার ও মোবাইল উৎপাদন করে চাহিদা পূরণ করছি। আমরা সব সূচকেই এগিয়ে যাচ্ছি। মানসূচক উন্নয়নে আমাদের অবস্থান দ্বিতীয়।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন