সোমবার | জুন ০১, ২০২০ | ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

আন্তর্জাতিক খবর

২১০০ সালে শীর্ষ ১০ জনবহুল দেশের পাঁচটিই হবে আফ্রিকার

বণিক বার্তা ডেস্ক

একবিংশ শতাব্দীর গত দুই দশকে বিশ্বের সবচেয়ে জনসংখ্যাবহুল দেশের বেশির ভাগই ছিল এশিয়ার। তবে ভবিষ্যতে এটা পরিবর্তন হতে যাচ্ছে। জাতিসংঘ পিউ রিসার্চ সেন্টারের উপাত্তে তারই ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। ২১০০ সালের পাঁচটি আফ্রিকান দেশ শীর্ষ ১০ জনসংখ্যাবহুল দেশের তালিকায় জায়গা করে নেবে বলে পূর্বাভাস দেয়া হচ্ছে। এশিয়ার দেশগুলোয় জনসংখ্যা বৃদ্ধি অব্যাহত থাকবে, তবে খুব শ্লথগতিতে। অন্যদিকে আফ্রিকার যে দেশগুলো উচ্চ জনসংখ্যা প্রবৃদ্ধির জেরে এশিয়ার অনেক দেশকে হটিয়ে শীর্ষ দশে জায়গা করে নেবে, সেগুলো হচ্ছে নাইজেরিয়া, ইথিওপিয়া, তাঞ্জানিয়া, মিসর গণপ্রজাতন্ত্রী কঙ্গো। চীন বাংলাদেশের মতো দেশগুলোর জনসংখ্যা ২১০০ সাল নাগাদ সংকুচিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে। উন্নততর জীবনমান শিক্ষার প্রসারে এশিয়ার দেশগুলোয় জনসংখ্যা কমবে। ১৯৫০ সাল নাগাদ জনসংখ্যায় বিশ্বের বৃহত্তম দেশের তালিকায় চারটি ইউরোপীয় দেশ ছিল। ২০২০ সালে তা একটিতে দাঁড়িয়েছে এবং ২১০০ সালে কোনো একটিও থাকবে না।

বিশ্বে শিশুজন্মহার কমতে শুরু করেছে। তবে প্রতিটি নারী গড়ে দশমিক ৫০টি সন্তান জন্ম দেয়ায় বিশ্বের জনসংখ্যা বেড়েই চলেছে। জাতিসংঘের জনসংখ্যা গবেষকরা বলছেন, বর্তমান হারে যদি বৈশ্বিক প্রজনন হার কমতে থাকে, তবে ২১০০ সালে নারীপ্রতি সন্তান প্রজনন দশমিক ৯০ জনে দাঁড়াবে। তখন বৈশ্বিক জনসংখ্যা কমতে শুরু করবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন