বৃহস্পতিবার| এপ্রিল ০২, ২০২০| ১৮চৈত্র১৪২৬

শেষ পাতা

একাদশ সংসদের ষষ্ঠ অধিবেশন শুরু আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক

একাদশ জাতীয় সংসদের ষষ্ঠ ও ২০২০ সালের প্রথম অধিবেশন শুরু হচ্ছে আজ। জাতীয় সংসদ ভবনে বিকাল ৪টায় এ অধিবেশন শুরু হবে। এর আগে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সংবিধানের ৭২ অনুচ্ছেদের (১) দফায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে গত ২৪ ডিসেম্বর এ অধিবেশন আহ্বান করেন। বছরের প্রথম অধিবেশন হিসেবে সংবিধান অনুযায়ী অধিবেশন শুরুর দিনে আজ রাষ্ট্রপতির সংসদে ভাষণ দেয়ার কথা রয়েছে।

অধিবেশন শুরুর আগে বেলা ৩টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ কার্য উপদেষ্টা কমিটির সভায় এ অধিবেশনের মেয়াদ ও কার্যক্রম চূড়ান্ত হবে। প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা বৈঠকে অংশ নেবেন।

সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তারা জানান, চলমান সংসদের কোনো সদস্যের মৃত্যু হলে এর পরের সংসদের প্রথম বৈঠকে শোকপ্রস্তাব গ্রহণের পর রেওয়াজ অনুযায়ী বৈঠক মুলতবি হয়। গাইবান্ধার সংসদ সদস্য ইউনুস আলী সরকারের মৃত্যুতে অধিবেশনে শোকপ্রস্তাব গৃহীত হবে। রাষ্ট্রপতির ভাষণ সাংবিধানিক নিয়ম। তাই শোকপ্রস্তাব গ্রহণের পর অধিবেশন কিছু সময়ের জন্য মুলতবি হবে। সন্ধ্যা সোয়া ৬টায় সংসদে ভাষণ দেবেন রাষ্ট্রপতি।

এরই মধ্যে মন্ত্রিসভায় রাষ্ট্রপতির ভাষণ অনুমোদিত হয়েছে বলে বার্তা সংস্থা বাসস জানিয়েছে। বার্তা সংস্থাটি জানায়, এ ভাষণে সরকারের বিগত দিনের বিভিন্ন খাতে অর্জিত সাফল্যসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের কথা তুলে ধরা হবে। এছাড়া ভাষণে রাষ্ট্রপতি ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয় ও ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তোলা সম্পর্কেও দিকনির্দেশনা দেবেন।

রেওয়াজ অনুযায়ী রাষ্ট্রপতির ভাষণের পর সংসদ অধিবেশন মুলতবি করা হবে। এরপর অধিবেশন শুরু হলে প্রধান হুইপ রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাব আনবেন। পরে সংসদ সদস্যরা ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর দীর্ঘ সময় ধরে আলোচনা করবেন। ফলে জাতীয় সংসদের ষষ্ঠ অধিবেশন দীর্ঘস্থায়ী হওয়ার কথা রয়েছে। তবে মুজিব বর্ষ উপলক্ষে মার্চের মাঝামাঝি সময়ে সংসদের বিশেষ অধিবেশন আহ্বান করার কথা রয়েছে। সে হিসেবে মধ্য ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ষষ্ঠ অধিবেশন চলতে পারে।

সংসদ সচিবালয়ের তথ্য অনুযায়ী, শুরু হতে যাওয়া অধিবেশনের জন্য এখন পর্যন্ত সাতটি বিল জমা রয়েছে। এর মধ্যে নতুন বিল হলো বাংলাদেশ প্রকৌশল গবেষণা কাউন্সিল বিল, সড়ক পরিবহন করপোরেশন বিল, ‘স্বায়ত্তশাসিত, আধা-স্বায়ত্তশাসিত, সংবিধিবদ্ধ সরকারি কর্তৃপক্ষ, পাবলিক নন-ফিন্যান্সিয়াল করপোরেশনসহ স্বশাসিত সংস্থাসমূহের তহবিলের উদ্বৃত্ত অর্থ সরকারি কোষাগারে জমা প্রদান বিল ও বাংলাদেশ বাতিঘর বিল। অন্য তিনটি এরই মধ্যে সংসদে উত্থাপিত হয়েছে। সেগুলো হলো কাস্টমস বিল, বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিল ও বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশন (সংশোধন) বিল। এছাড়া সমসাময়িক বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়েও সংসদে আলোচনা হতে পারে।

এর আগে একাদশ জাতীয় সংসদের পঞ্চম অধিবেশন গত ৭ নভেম্বর শুরু হয়ে ১৪ নভেম্বর শেষ হয়। মোট পাঁচ কার্যদিবসের ওই অধিবেশনে তিনটি সরকারি বিল পাস হয়। এছাড়া পঞ্চম অধিবেশনে কার্যপ্রণালী বিধির ১৪৭ বিধিতে সাধারণ আলোচনায় জলবায়ু পরিবর্তনে জরুরি অবস্থা ঘোষণা শীর্ষক একটি প্রস্তাব সর্বসম্মতভাবে গ্রহণ করা হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন