বুধবার| এপ্রিল ০১, ২০২০| ১৭চৈত্র১৪২৬

আন্তর্জাতিক ব্যবসা

ব্যয় কমানোর পরিকল্পনা সৌদির

বণিক বার্তা ডেস্ক

২০২০ সালের জন্য ১ দশমিক ২ ট্রিলিয়ন রিয়ালের বাজেট ঘোষণা করেছেন সৌদি বাদশা সালমান বিন আবদুল আজিজ। খবর দ্য ন্যাশনাল।

বিশ্বের বৃহত্তম অপরিশোধিত জ্বালানি তেল রফতানিকারক দেশটি একই সময়ে ৮৩ হাজার ৩০০ কোটি রিয়াল রাজস্ব আয়েরও ঘোষণা দিয়েছে। এর অর্থ হলো, ২০২০ সালে দেশটির বাজেট ঘাটতি দাঁড়াবে ১৮ হাজার ৭০০ কোটি রিয়াল, যা অর্থনীতিটির মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) প্রায় ৬ দশমিক ৪ শতাংশ। এদিকে চলতি বছর দেশটির বাজেট ঘাটতি দাঁড়াচ্ছে ১৩ হাজার ১০০ কোটি রিয়াল বা জিডিপির ৪ দশমিক ৭ শতাংশ। বৈদেশিক ও অভ্যন্তরীণ বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে বাজেট ঘাটতি পূরণ করা হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী মুহাম্মদ আল জাদান।

চলতি বছরের সর্বশেষ পূর্বাভাসে আগামী বছর দেশটির ব্যয় যতটা হতে পারে বলে বলা হয়েছিল ২০২০ সালের জন্য ঘোষিত ব্যয় লক্ষ্যমাত্রা তার তুলনায় খানিকটা কম। তবে আগামী বছরের বাজেট ঘাটতি বড় হওয়ার অর্থ হলো, দেশটি তেলবহির্ভূত অন্য খাতগুলোতে বিনিয়োগ বৃদ্ধি অব্যাহত রাখতে চায়। তেলের ওপর নির্ভরশীলতা কমানোর পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে গত দিনগুলোর মতো আগামীতেও দেশটি পর্যটন, বিনোদন, ম্যানুফ্যাকচারিং ও অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগ জারি রাখবে। 

বাজেট বক্তৃতায় দেশটির বাদশাহ বলেন, আল্লাহ চায় তো আমরা অর্থনৈতিক সংস্কার কার্যক্রম বাস্তবায়ন, রাজস্ব বাড়ানোর উৎস ও সহজলভ্য সম্পদের ব্যবহার সম্প্রসারণ, বেসরকারি খাত শক্তিশালীকরণ প্রক্রিয়া অব্যাহত রাখব। এছাড়া স্বচ্ছতা ও প্রবৃদ্ধি বাড়াতে সরকারি ব্যয় ও উন্নয়নের হার বৃদ্ধিরও ঘোষণা দেন তিনি।

অন্যদিকে সরকারি বিনিয়োগ তহবিলের মাধ্যমে সৌদি আরামকোর বিনিয়োগ-আয় দেশটির অন্যতম রাজস্ব খাত হিসেবে গণ্য হবে বলেও জানান বাদশাহ সালমান। আজ থেকে সৌদি আরামকো দেশটির শেয়ারবাজার তাদওয়ালে ব্যবসা শুরু করবে। প্রসঙ্গত, বিশ্বের সবচেয়ে মূল্যবান তেল কোম্পানিটি ইনিশিয়াল পাবলিক অফারিং (আইপিও) বা প্রাথমিক শেয়ারের মাধ্যমে সম্প্রতি ২৫ হাজার ৬০০ কোটি ডলার সংগ্রহ করেছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন