শনিবার | নভেম্বর ২৮, ২০২০ | ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

শেষ পাতা

ইঞ্জিনের পাশে অবৈধ সিট: বাসের সংরক্ষিত আসনে স্বাস্থ্যঝুঁকি নারীদের

ইব্রাহীম খলিল

শনিবার বেলা দেড়টা। মহাখালীর আমতলীতে যানজটে আটকে রয়েছে দেওয়ান পরিবহনের একটি বাস। হঠাৎ করে বাসের মধ্যেই অসুস্থ হয়ে পড়লেন বাসের সামনে ইঞ্জিনের পাশের সিটে বসা এক নারী। তার ডান পাশে কাপড়ের ব্যাগ, কোলে বছর ছয়েকের ছেলেশিশু। তিনি যে সিটে বসেছিলেন, সেখানে জানালার ওপর লেখা, নারী শিশু প্রতিবন্ধীদের জন্য সংরক্ষিত আসন-

বিআরটিসির বাসগুলো ছাড়া রাজধানীতে চলাচলকারী মোটামুটি আর সব পরিবহন কোম্পানির বাসেই ইঞ্জিনের পাশে নারী, শিশু প্রতিবন্ধীদের জন্য সংরক্ষিত আসন রাখতে দেখা যায়। এছাড়া ইঞ্জিনের ওপর আলাদা কাভার দিয়ে সেখানেও যাত্রী বসাতে দেখা যায় স্বাধীন, এয়ারপোর্ট-বঙ্গবন্ধু এভিনিউ, শিকড়, নম্বর বাসসহ বেশকিছু বাসকে। ইঞ্জিনের ওপর আলাদা লম্বা তক্তা বসিয়ে সেখানে ফোম দিয়ে তৈরি হয় এসব বিশেষ সিট। ইঞ্জিনের আশপাশের এসব সিটই অবৈধ বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিসি) মেডিসিন, গাইনি ক্যান্সার বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ইঞ্জিনের পাশের এসব সিটে বসে দীর্ঘদিন যাতায়াত করতে গিয়ে নানা ধরনের মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকিতে পড়ছেন যাত্রীরা।

ঢাকা মেডিকেল কলেজের মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক . মো. হাফিজ সরদার বলেন, ইঞ্জিনের গরমের কারণে নারী-পুরুষ সবারই শ্বাসকষ্ট হতে পারে। যাদের ত্বকের সমস্যা রয়েছে; বিশেষ করে অ্যালার্জি ব্রণ হওয়ার প্রবণতা রয়েছে, তাদের ত্বকে এর কারণে নানাভাবে ফোসকা পড়ে যেতে পারে। অনেকের হিট স্ট্রোকেরও উপক্রম হতে পারে। আবার অনেকের বমি, মাথাব্যথা এমনকি জ্বরও আসতে পারে। কারণ ইঞ্জিনের উচ্চমাত্রার তাপ দেহকে উত্তপ্ত করে তোলে। এরপর বাস থেকে নামলে শরীর ঠাণ্ডা হয়ে যায়। এভাবে শরীর একবার ঠাণ্ডা আবার গরম হয়ে পড়ায় সর্দিসহ জ্বর দেখা দেয়াটা স্বাভাবিক। এছাড়া অতিরিক্ত ঘামের কারণে শরীর থেকে প্রচুর পানি বেরিয়ে যায়। ফলে কখনো কখনো পানিশূন্যতাও দেখা দিতে পারে। তবে ভয়াবহ যে বিষয়টি হয় সেটা হলো, দীর্ঘদিন যদি এভাবে কোনো নারী ইঞ্জিনের পাশে বসে যাতায়াত করেন, তাহলে ওই তাপের কারণে একসময় তার গর্ভধারণের ক্ষেত্রে জটিলতা দেখা দিতে পারে।

অন্যদিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজের গাইনি বিভাগের অধ্যাপক . রাশিদা খানম বলছেন, ইঞ্জিনের পাশে বসে দীর্ঘদিন যাতায়াত করলে কেবল নারীদেরই সমস্যা হয় না, এক্ষেত্রে পুরুষদেরও অনেক জটিলতা দেখা দিতে পারে। তাদের ফার্টিলিটি কমে যায়।

বাসের ইঞ্জিনের পাশে বা

--> এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন