বৃহস্পতিবার | নভেম্বর ১৪, ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

আন্তর্জাতিক খবর

গার্ডিয়ানের প্রতিবেদন

বিশ্বের এক-তৃতীয়াংশ কার্বন নিঃসরণে দায়ী ২০ কোম্পানি

বণিক বার্তা ডেস্ক

 বিশ্বের মোট কার্বন নিঃসরণের এক-তৃতীয়াংশের জন্য দায়ী ২০টি জীবাশ্ম জ্বালানি কোম্পানি গার্ডিয়ানের একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে তথ্য উঠে এসেছে

বিশ্বখ্যাত গবেষকরা বলছেন, রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত কোম্পানির দোসর বহুজাতিক কোম্পানিগুলো জলবায়ু বিপর্যয় নিয়ে আসছে, যা মানবজাতির ভবিষ্যেক হুমিকের মুখে ফেলছে তাদের কাজগুলো যে পরিবেশের ওপর ধ্বংসাত্মক প্রভাব রাখছে, সে বিষয়গুলো অবহিত হয়েও কাজ অব্যাহত রাখছে

যুক্তরাষ্ট্রের ক্লাইমেট অ্যাকাউন্টেবিলিটি ইনস্টিটিউটের গবেষক রিচার্ড হিডে তার বিশ্লেষণে বলেন, বৈশ্বিক করপোরেশনগুলো ভূগর্ভস্থ জ্বালানি সংগ্রহ করছে এবং ১৯৬৫ সালের পর থেকে কার্বন নিঃসরণে শীর্ষ ভূমিকা রাখছে জীবাশ্ম জ্বালানির প্রভাব সম্পর্কে কোম্পানিগুলো রাজনীতিবিদ উভয় পক্ষই বেশ ভালোভাবে অবগত

গবেষণায় দেখা গেছে, বিশ্বব্যাপী জ্বালানিসংশ্লিষ্ট মোট কার্বন ডাই-অক্সাইড মিথেন নিঃসরণের পেছনে ৩৫ শতাংশ অবদান শীর্ষ ২০টি কোম্পানির ১৯৬৫ সালের পর থেকে তারা ৪৮০ বিলিয়ন টন সমপরিমানের কার্বন ডাই-অক্সাইড নিঃসরণ করেছে

শীর্ষ ওই কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে শেভরন, এক্সন, বিপি শেল এবং রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত কোম্পানি সৌদি আরামকো গ্যাজপ্রমের মতো প্রতিষ্ঠান

বিনিয়োগকারী মালিকানাধীন আটটি করপোরেশনের মধ্যে কার্বন নিঃসরণে শীর্ষে রয়েছে শেভরন, যার পেছনেই রয়েছে এক্সন, বিপি শেল ১৯৬৫ সালের পর থেকে বিশ্বের মোট কার্বন নিঃসরণের ১০ শতাংশেরও বেশি অবদান চারটি করপোরেশনের

শীর্ষ ২০টি কোম্পানির ১২টি হচ্ছে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন এবং একই সময়ে বৈশ্বিক কার্বন নিঃসরণে তাদের দায় ২০ শতাংশ রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত কোম্পানিগুলোর মধ্যে শীর্ষ দূষণকারী হচ্ছে সৌদি আরামকো, বিশ্বের মোট কার্বন নিঃসরণে যার অবদান দশমিক ৩৮ শতাংশ

বিশ্বের শীর্ষ জলবায়ু বিজ্ঞানী মাইকেল মান বলেন, জীবাশ্ম জ্বালানি কোম্পানিগুলো কীভাবে কার্বন নিঃসরণে ভূমিকা রাখছে, তা গবেষণায় উঠে এসেছে ধরনের তত্পরতার রাশ টেনে ধরতে আগামী ডিসেম্বরে চিলিতে আয়োজিত জলবায়ু সম্মেলনে রাজনীতিবিদদের কঠিন পদক্ষেপ গ্রহণে ঐকমত্যে পৌঁছতে হবে

বিশ্বের শীর্ষ পরিবেশ দূষকদের তালিকা করার ক্ষেত্রে কোম্পানিগুলোর বার্ষিক তেল, প্রাকৃতিক গ্যাস, কয়লা উত্তোলনের হিসাব করা হয়েছে এবং সবগুলো স্তরে তারা কী পরিমাণ কার্বন মিথেন নিঃসরণ করে তার হিসাব করা হয়েছে

বিশ্বের শীর্ষ ২০ জলবায়ু অপরাধীদের ৯০ শতাংশ নিঃসরণ হচ্ছে পেট্রল, জেট ফুয়েল, প্রাকৃতিক গ্যাস তাপ কয়লার মতো তাদের নিজস্ব পণ্য থেকে বাকি এক-দশমাংশ নিঃসরণ হচ্ছে জীবাশ্ম জ্বালানি উত্তোলন, পরিশোধন ফিনিশড ফুয়েল সরবরাহের সময়

দূষণকারী কোম্পানির তালিকায় শীর্ষ ২০ কোম্পানির সঙ্গেই যোগাযোগ করেছে গার্ডিয়ান সাতটি কোম্পানি জবাব পাঠিয়েছে কয়েকটি কোম্পানি যুক্তি দেখায় যে কীভাবে তেল, গ্যাস বা কয়লা উত্তোলন হবে এবং ব্যবহার হবে সে কারণে তারা সরাসরি দায়ী নয় ১৯৫০-এর দশকে জীবাশ্ম জ্বালানির পরিবেশগত প্রভাব নিয়ে অবগত থাকা কিংবা তারা সম্মিলিতভাবে জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে সঠিক পদক্ষেপ গ্রহণে বিলম্ব করেছে

তবে বেশির ভাগ কোম্পানি জলবায়ু বিজ্ঞানে স্পষ্ট সমর্থন ব্যক্ত করেছে এবং কেউ কেউ বলছে প্যারিস চুক্তিতে গৃহীত লক্ষ্যমাত্রায় সমর্থনের কথা ২০১৫ সালে স্বাক্ষরিত প্যারিস চুক্তি অনুযায়ী স্বাক্ষরকারী দেশগুলো কার্বন নিঃসরণ কমানো এবং বৈশ্বিক তাপমাত্রা শিল্পবিপ্লব-পূর্ববর্তী যুগের তুলনায় দশমিক ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি বৃদ্ধি ঠেকানোর চেষ্টা করবে

 

সূত্র: গার্ডিয়ান

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন