শুক্রবার | ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

প্রথম পাতা

সারা দেশে বিক্ষোভ

ছাত্রলীগের ১০ নেতাকর্মী রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক

বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে দেশের বিভিন্ন স্থানে গতকাল বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হয়েছে। কোথাও সড়ক অবরোধও করেন বিক্ষোভকারীরা। বুয়েটের শিক্ষার্থীরা আট দফা দাবিও পেশ করেছেন। ঘটনায় গ্রেফতার ছাত্রলীগের ১০ নেতাকর্মীর পাঁচদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। গতকাল ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাদবীর ইয়াছির আহসান চৌধুরী আদেশ দেন।

আন্দোলনের দ্বিতীয় দিনে গতকাল বুয়েটের শিক্ষার্থীরা ভিসির কার্যালয়, একাডেমিক ভবন, প্রশাসনিক ভবন বুয়েটের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেন এবং অনির্দিষ্টকালের জন্য বুয়েটে ভর্তি একাডেমিক কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করেন। সময় তারা আট দফা দাবিও পেশ করেন। দাবিগুলোর মধ্যে আছে অভিযুক্ত ছাত্রদের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে আজীবন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার। শেরেবাংলা হলের প্রভোস্টকে প্রত্যাহারের পাশাপাশি আবরারের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ প্রদান মামলার খরচ বুয়েটকে বহনের দাবি জানানো হয়েছে। হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে, মামলা দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্বল্প সময়ের মধ্যে নিষ্পত্তি করারও দাবি তোলা হয়েছে।

আবরারকে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদে গায়েবানা জানাজা কফিন মিছিল হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে। গতকাল ডাকসুর রাজু ভাস্কর্য থেকে গায়েবানা জানাজায় নেতৃত্ব দেন ডাকসুর সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক আকতার হোসেন। এরপর প্রতীকী কফিন মিছিল নিয়ে শিক্ষার্থীদের বিশাল একটি মিছিল বুয়েট ক্যাম্পাসের দিকে রওনা হয়। ভিসি চত্বর পলাশী মোড় হয়ে বুয়েট ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে মিছিলটি। সেখানে কিছুক্ষণ অবস্থান গ্রহণের পর বকশীবাজার হয়ে টিএসসিতে ফিরে আসে মিছিলটি।

গায়েবানা জানাজার পর সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে ডাকসুর ভিসি নুরুল হক নূর বলেন, ভারতের সঙ্গে দেশবিরোধী চুক্তির বিরোধিতা করায় আবরারকে হত্যা করা হয়েছে। আবরারের রক্তস্নাত দেশবিরোধী চুক্তি পুনর্বিবেচনা করতে হবে।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়: আবরার হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারে বিভিন্ন প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মী সাধারণ শিক্ষার্থীরা জড়ো হন। সেখান থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের জয় বাংলা গেট দিয়ে বের হয়ে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে এসে থামে। পরে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেইরি গেট জয় বাংলা গেটের সামনে বিক্ষোভ করেন। অবরোধের কারণে রাস্তার উভয় পাশে যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর সহযোগী অধ্যাপক ফিরোজ-উল-হাসান শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বললে তারা অবরোধ উঠিয়ে নেন।


দেশের অন্যান্য স্থানে গতকাল হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে সংঘটিত প্রতিবাদ বিক্ষোভ সমাবেশ নিয়ে বণিক বার্তা প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের ষোলশহরে গতকাল আবরার হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, চট্টগ্রাম। বিকাল ৪টায় ষোলশহর রেলস্টেশনে আয়োজিত মানববন্ধনে নগরীর বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, আবরার হত্যার বিচার না দেখে শিক্ষার্থীরা ঘরে ফিরবে না। খুনিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাধারণ শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। দায়িত্বে অবহেলার কারণে বুয়েটের প্রভোস্ট ভিসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন চবি শিক্ষার্থী আমির হোসেন জুয়েল, নিজাম উদ্দিন, জাহেদুল ইসলাম, রাইসুল ইসলাম, নাছির উদ্দিন, কামরুল হাসান, ইমতিয়াজ ইমতু, রিয়াজ উদ্দিন, কামরুন নাহার, লুবনা নূর প্রমুখ।

বরিশাল: আবরার ফাহাদের হত্যার বিচারের দাবিতে গতকাল নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। ছাত্র ফেডারেশন জেলা কমিটি ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের আয়োজনে নগরীর অশ্বিনী কুমার টাউন হলের সামনের সড়কে পৃথক দুটি সমাবেশ শেষে বিক্ষোভ মিছিল বের করে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করা হয়।

এর মধ্যে ছাত্র ফেডারেশন আয়োজিত সমাবেশে সংগঠনের জেলা কমিটির আহ্বায়ক নবীন আহমেদের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন জেলা গণসংহতি আন্দোলনের আহ্বায়ক দেওয়ান আব্দুর রশিদ নিলু, ছাত্র ফেডারেশনের সদস্য মো. জাবের, হাসিব আহমেদ, সাইদুল ইসলাম সাকিব, শারমীন আক্তার, শাকিবুল ইসলাম শাফিন, নীলিমা জাহান প্রমুখ।

অন্যদিকে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন আয়োজিত মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনটির জেলা কমিটির সভাপতি মো. রিয়াদ।

একই দাবিতে বিএম কলেজে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। রনি খন্দকারের সভাপতিত্বে মানববন্ধন চলাকালে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন রাহুল দাস, ফয়সাল আহমেদ, রেজাউল করীম, আবু বক্কর সিদ্দিক, জাহাঙ্গীর আলম জামাল, নজরুল ইসলাম, তামিম প্রমুখ। সভায় আবরার ফাহাদের সব হত্যাকারীকে গ্রেফতার তাদের বিচার না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলমান রাখার ঘোষণা দেয়া হয়।

বগুড়া: বগুড়া ছাত্র ইউনিয়ন গতকাল আবরার ফাহাদের হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। বেলা ১১টায় জেলা শহরের সাতমাথায় কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। জেলা সংসদের সভাপতি নাদিম মাহমুদের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনের পরিচালনায় এতে বক্তব্য রাখেন কমিউনিস্ট পার্টি বগুড়া জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ফরিদ, ফজলুর রহমান, হাসান আলী শেখ, শাহনিওয়াজ কবির খান পাপ্পু, ছাত্র ইউনিয়ন নেতা শহিদুল ইসলাম, শিশির ইসলাম, ছাব্বির হোসেন, সাগর পারভেজ, সোহেল আহম্মেদ, মেহেদী হাসান। উপস্থিত ছিলেন সন্তোষ কুমার পাল, মতিয়ার রহমান, মামুনুর রহমান দোলা, লিয়াকত আলী কাক্কু প্রমুখ।

কুমিল্লা: বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে হত্যার প্রতিবাদে কুমিল্লায় বিক্ষোভ মিছিল করেছেন শিক্ষার্থীরা। গতকাল সকাল ১০টায় কুমিল্লা নগরীর টাউন হল থেকে শুরু হওয়া মিছিলে অংশ নেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কয়েকশ শিক্ষার্থী। মিছিলটি নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে পূবালী চত্বরে এসে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মাজহারুল ইসলাম হানিফ, আবদুর রহিম, ভিক্টোরিয়া কলেজের মহিউদ্দিন আকাশ, সৈকতসহ  অনেকে।

খুলনা: আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে গতকাল দুপুর ১২টায় খুলনার শিববাড়ী মোড়ের আগুয়ান-৭১-এর আহ্বানে মানববন্ধন বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হয়েছে। বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা কর্মসূচিতে অংশ নেন। আগুয়ান-৭১-এর কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. আব্দুল্লাহ চৌধুরীর সভাপতিত্বে আয়োজিত কর্মসূচিতে কথা বলেন খুলনা জেলা সভাপতি আবিদ শান্ত, জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক সালেহ আহমেদ, নাগরিক নেতা অ্যাডভোকেট কুদরত খুদা, বিএল কলেজের ছাত্র প্রতিনিধি গোলাম সারোয়ার সাগর, অ্যান্টি রেপ স্কোয়াডের নিশাত তাসনিম প্রমুখ।

গাজীপুর: গাজীপুরের ঢাকা প্রকৌশল প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (ডুয়েট) শিক্ষার্থীরা গতকাল আবরার ফাহাদ হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেন। গাজীপুর শহরের শিববাড়ি-শিমুলতলী সড়কে ডুয়েটের প্রধান ফটকের সামনে সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত কর্মসূচি পালিত হয়। ব্যানার, প্ল্যাকার্ড নিয়ে শতাধিক শিক্ষার্থী এতে অংশ নেন। মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফয়সাল, সুজন সরকার, আশরাফুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর আলম, আলমগীর হোসেন, রিদওয়ান, শাহেদ, লিটন প্রমুখ।

যশোর: আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে গতকাল যশোর প্রেস ক্লাবের সামনে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন হয়। বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদ যশোর জেলা শাখার উদ্যোগে দুপুর ১২টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সাধারণ ছাত্র পরিষদ যশোর শাখার আহ্বায়ক আফরোজ সুলতানা মৌ, যুগ্ম আহ্বায়ক আশিক ইকবাল, আরিফ খান, নুসরাত নাজনীন, অলিক মোহাম্মদ প্রমুখ।

মানিকগঞ্জ: বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ মানিকগঞ্জ জেলা শাখার আয়োজনে গতকাল আবরার ফাহাদের হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মানিকগঞ্জ প্রেস ক্লাব চত্বরে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আহ্বায়ক রাইসুল ইসলাম নয়ন। সময় আরো উপস্থিত ছিলেন মওলানা ভাসানী বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আহ্বায়ক আবির আহমেদ, মানিকগঞ্জ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক রাসেল মাহমুদ, মামুন, সবুজ, মাহফুজা আক্তারসহ মানিকগঞ্জের ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের সদস্যরা।

রাজবাড়ী: আবরার হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের বিচারের দাবিতে রাজবাড়ীতে গতকাল মানববন্ধন, বিক্ষোভ কর্মসূচি পথসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকালে রাজবাড়ী প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করে ছাত্র ইউনিয়ন। মানববন্ধন শেষে সেখান থেকে রেলগেট শহীদ স্মৃতি চত্বর পর্যন্ত একটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। এরপর সেখানে আয়োজিত পথসভায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন রাজবাড়ী জেলা শাখার সভাপতি আব্দুল হালিম বাবু, সাধারণ সম্পাদক কাওসার আহম্মেদ রিপন, সাংগঠনিক সম্পাদক রাতুল হাসান জনি প্রমুখ।

ময়মনসিংহ: আবরার হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে ফাঁসি নিশ্চিতের দাবিতে মুখে কালো কাপড় বেঁধে ময়মনসিংহে বিক্ষোভ সমাবেশ মানববন্ধন করেছে প্রগতিশীল ছাত্র জোট। গতকাল বেলা ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত নগরীর শহীদ ফিরোজ-জাহাঙ্গীর চত্বরে মানববন্ধন বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি অ্যাডভোকেট এমদাদুল হক মিল্লাত, সুজন মহানগরের সাধারণ সম্পাদক আলি ইউসুফ, ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি আসজাদুল বোরহান তাহাসিন, সাধারণ সম্পাদক বাহার উদ্দিন শুভ, যুব ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক জহিরুল আমিন রনি, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের দপ্তর সম্পাদক ফজলুল হক রনি, রিফা সানজিদা প্রমুখ।

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রগতিশীল ছাত্র জোট গতকাল আবরার হত্যায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন বিক্ষোভ মিছিল করেছে। দুপুরে নগরীর চাষাঢ়ায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আয়োজিত মানববন্ধনে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের জেলা কমিটির সভাপতি সুলতানা আক্তারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন জেলা কমিটির সভাপতি সুমাইয়া আক্তার সেতু, শুভ বণিক, বেলাল হোসেন প্রমুখ। মানববন্ধন শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়।

ছাত্রলীগের ১০ নেতাকর্মী পাঁচদিনের রিমান্ডে: আবরার হত্যাকাণ্ডে গ্রেফতার ১০ আসামিকে গতকাল আদালতে হাজির করে ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা চকবাজার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. কবীর হোসেন হাওলাদার। শুনানি শেষে আদালত পাঁচদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ডে যাওয়া আসামিরা হলেন বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মেহেদী হাসান রাসেল (২২), যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং একই বিভাগ বর্ষের ছাত্র মুহতামিম ফুয়াদ (২২), কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র এবং সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান রবিন (২৩), তথ্য গবেষণা সম্পাদক এবং মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র মো. অনিক সরকার (২৩), অর্কিটেকচার মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র এবং ক্রীড়া সম্পাদক মো. মেফতাহুল ইসলাম জিওন (২৩), বায়োমেডিকেল তৃতীয় বর্ষের ছাত্র উপসমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক ইফতি মোশাররেফ সকাল (২৩), মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মুনতাসির আল জেমি (২১), ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ছাত্রলীগ সদস্য মো. মুজাহিদুর রহমান (২২), মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং তৃতীয় বর্ষের ছাত্র সংগঠনটির কর্মী খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভির (২১) এবং মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং তৃতীয় বর্ষের ছাত্র এবং গ্রন্থ প্রকাশনাবিষয়ক সম্পাদক ইশতিয়াক আহম্মেদ মুন্না (২১) আসামিরা সবাই বুয়েট ছাত্রলীগ থেকে বর্তমানে বহিষ্কৃত। এদের মধ্যে ইশতিয়াক ছাড়া বাকি সবাই মামলার এজাহারভুক্ত আসামি।

রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, আবরার ফাহাদকে হত্যার উদ্দেশ্যে ডেকে নিয়ে আসামিরা ক্রিকেট স্টাম্প লাঠিসোটা দিয়ে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় প্রচণ্ড আঘাত করে। যার ফলে ঘটনাস্থলেই আবরার মারা যান। আসামিরা আবরারের মৃত্যু নিশ্চিত করে ওই ভবনের দ্বিতীয় তলার সিঁড়িতে ফেলে যায়। পরে কতিপয় ছাত্র আবরারকে সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এটি একটি চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলা। প্রকাশ্যে নির্মম হত্যাকাণ্ড ঘটেছে। আসামিদের রিমান্ডে নিয়ে নিবিড়ভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা গেলে মামলার মূল রহস্য উদ্ঘাটন, পলাতক আসামিদের গ্রেফতার অজ্ঞাতনামা আসামির নাম-ঠিকানা জানা সম্ভব হবে।

আবেদনের ওপর উভয় পক্ষের যুক্তিতর্ক শুনে আদালত জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

আরো তিনজন গ্রেফতার: আবরার হত্যায় জড়িত থাকার অভিযোগে আরো তিনজনকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। তারা হলেন শামসুল আরেফিন রাফাত (২১), মনিরুজ্জামান মনির (২১) আকাশ হোসেন (২১) এদের মধ্যে মনিরুজ্জামান মনির আকাশ হোসেন আবরার হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি। শামসুল আরেফিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে সন্দেহভাজন হিসেবে। নিয়ে আবরার হত্যাকাণ্ডে মোট ১৩ জনকে গ্রেফতার করা হলো।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গণমাধ্যম শাখা থেকে জানানো হয়েছে, গতকাল সন্ধ্যা ৬টায় রাজধানীর ডেমরা এলাকা থেকে মনিরকে গাজীপুরের বাইপাইল থেকে আকাশকে গ্রেফতার করে ডিবি। বেলা সাড়ে ৩টায় রাফাতকে গ্রেফতার করা হয় রাজধানীর জিগাতলা এলাকা থেকে।

মনিরুজ্জামান মনির বুয়েটের ওয়াটার রিসোর্সেস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। আকাশ একই ব্যাচের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শামসুল আরেফিন মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন