রবিবার| জানুয়ারি ১৯, ২০২০| ৬মাঘ১৪২৬

খবর

খালেদা জিয়া এমন কোনো অসুস্থ নন: আইনমন্ত্রী

বণিক বার্তা প্রতিনিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়া

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, খালেদা জিয়া এমন কোনো অসুস্থ নন যে, তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসা দিতে হবে। তাই তাদের (বিএনপির আইনজীবী) আবেদন নাকচ করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। তিনি বলেন, এখন ওনারা (বিএনপি) লাফালাফি শুরু করেছেন যে এটা ঠিক হয়নি। ওনাদের কথা হচ্ছে যা কিছুই বলবেন, তালগাছটা আমার।

গতকাল বেলা ১১টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলা পরিষদের অদূরে মডেল মসজিদের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন উদ্বোধনের পর আইনমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

এর আগে ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধনের সময় খালেদা জিয়ার জামিনের বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে আনিসুল হক বলেন, তাদের (বিএনপি) বক্তব্য সম্পূর্ণ মনগড়া। বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আদালতের বিচারপতি সব কাগজপত্র দেখার পর খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন। এখানে বিতর্কের কোনো সুযোগ আছে বলে মনে হয় না। কিন্তু তারা (বিএনপি) এখন নিজেদের দলে নিজেদের নেতৃত্ব বজায় রাখার জন্য আজেবাজে বলছেন।

বাংলাদেশে ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির আশঙ্কা করছেন জামায়াতে ইসলামীর নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান। তার এই বক্তব্য প্রসঙ্গে আইনমন্ত্রী বলেন, তারা চাইছেন বাংলাদেশে একটা ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি হোক। কিন্তু বাংলাদেশের জনগণের বিএনপি-জামায়াতের দুঃশাসনের কথা মনে আছে। জনগণ সেই দুঃশাসনের দিকে ফিরে যেতে চায় না। আর দেশে কোনোমতেই সেই পরিস্থিতি নেই।

মডেল মসজিদ উদ্বোধনের পর প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইনমন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়া টাকা চুরি করে জেলে গেছেন। সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ সব পক্ষের আইনজীবীদের বক্তব্য যুক্তিতর্ক শুনে এবং বাংলাদেশের সবচেয়ে উন্নত মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসকদের প্রতিবেদন দেখে বলেছেন, তাকে জামিন দেয়ার কোনো যৌক্তিকতা নেই। তিনি এমন কোনো অসুস্থ নন যে তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসা দিতে হবে। সেজন্যই তাকে জামিন দেয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। তাই তাদের আবেদন নাকচ করেছেন আদালত।

আনিসুল হক বলেন, যে রায়, যে আদেশ, যে নির্দেশ ওনাদের পক্ষে যাবে, সেটা অন্যায় হলেও আর মানুষকে পিষে ফেলার হলেও ভালো। ওনারা খুশি। বিপক্ষে যখন কিছু বলা হয়, তখন তারা বলেন তাদের ওপর অত্যাচার করা হচ্ছে। তিনি বলেন, আর একজন আছেন, রিজভী, আমি বুঝি না। তিনি অফিস থেকে বের হন না। খালি টেলিভিশনে বিবৃতি দেন।

বিএনপির নেতাকর্মীদের উদ্দেশে আইনমন্ত্রী বলেন, যাদের আপনারা নেতা মানেন, তারা এতিমের টাকা মারেন, তারা মানুষ মারেন। তাদের বাদ দিয়ে রাজনীতি করেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন