রবিবার| জানুয়ারি ২৬, ২০২০| ১৩মাঘ১৪২৬

দেশের খবর

অবশেষে খুলছে সিলেট সরকারি কলেজের দুই হল

বণিক বার্তা প্রতিনিধি সিলেট

 সিলেট সরকারি কলেজের ছাত্রী হল নির্মাণ করা হয় ২০০৫ সালে তবে এতদিন অব্যবহূত পড়ে ছিল হলটি অবশেষে আগামী জানুয়ারি থেকে হলটি খুলে দেয়া হচ্ছে ছাত্রীদের জন্য একই সঙ্গে নয় বছর বন্ধ থাকার পর ছাত্র হলটিও খুলে দেয়া হচ্ছে এজন্য বর্তমানে চলছে সংস্কারকাজ কলেজসংশ্লিষ্ট সূত্রে তথ্য জানা গেছে

সূত্র জানায়, শতবর্ষী মুরারী চাঁদ (এমসি) কলেজেরই অংশ হিসেবে ১৯৬৪ সালে মুরারী চাঁদ (এমসি) ইন্টারমিডিয়েট কলেজের যাত্রা ১৯৮৮ সালে এটিকে এমসি কলেজ থেকে আলাদা করে সিলেট সরকারি কলেজ নামে আরেকটি স্বতন্ত্র শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করা হয় বর্তমানে এই কলেজে শিক্ষার্থী রয়েছে প্রায় সাড়ে ছয় হাজার এর অর্ধেকই ছাত্রী তবে হল না থাকায় ভোগান্তি পোহাতে হতো দূর-দূরান্ত থেকে আসা ছাত্রীদের অনেকে ভাড়া বাসা বা স্বজনের সঙ্গে থেকে কলেজে অধ্যয়ন করতেন

সমস্যা নিরসনে ২০০৫ সালে ১০০ আসনের চারতলাবিশিষ্ট একটি ছাত্রী হল নির্মাণ করা হয় তবে এর ১৪ বছরেও হলটি চালু হয়নি কলেজ কর্তৃপক্ষ জানায়, গ্যাস বিদ্যুৎ সংযোগ না থাকায় হলটি ব্যবহার করা যায়নি সম্প্রতি এই হলে গ্যাস বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয় এর পরই হলটি চালুর উদ্যোগ নেয়া হয় গত নভেম্বরে হলে থাকতে ইচ্ছুক ছাত্রীদের কাছ থেকে আবেদন সংগ্রহ করা হয়েছে চলতি ডিসেম্বরে হল চালুর কথা থাকলেও কলেজ অধ্যক্ষের অসুস্থতার কারণে তা পিছিয়ে দেয়া হয় আগামী জানুয়ারিতে হলটি ছাত্রীদের জন্য খুলে দেয়া হবে

অন্যদিকে ২০১০ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের সময় কলেজের একমাত্র ছাত্র হলে ভাংচুর অগ্নিসংযোগ করা হয় পরিস্থিতি সামাল দিয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষ অনির্দিষ্টকালের জন্য হলটি বন্ধ করে দেয় এর পর থেকে নয় বছর ধরে বন্ধ রয়েছে হলটি বিভিন্ন সময়ে উদ্যোগ নিলেও নানা বাধায় হলটি সংস্কার করা হয়নি দীর্ঘদিন পর এবার এই ছাত্র হলটি সংস্কার করা হচ্ছে সংস্কারের পর জানুয়ারিতেই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ছাত্র হলটি কলেজ কর্তৃপক্ষকে বুঝিয়ে দেয়ার কথা এরপর এটি খুলে দেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে জানিয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ

সিলেট সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাসিমা হক খান বর্তমানে অসুস্থতাজনিত ছুটিতে আছেন তার স্থলে দায়িত্ব পালন করছেন সহকারী অধ্যাপক আসিফা আক্তার মিতু

তিনি বলেন, ছাত্রী হল চালুর সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে জানুয়ারির শুরুতেই হলটিতে ছাত্রীদের তোলা হবে এছাড়া ছাত্র হলের সংস্কারকাজও শেষ পর্যায়ে জানুয়ারিতে সম্ভব না হলে ফেব্রুয়ারির দিকে ছাত্র হলটির চালুর সম্ভাবনা রয়েছে

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন