রবিবার| জানুয়ারি ১৯, ২০২০| ৬মাঘ১৪২৬

টেলিকম ও প্রযুক্তি

যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার আগে নিজের কম্পিউটার ছিল না পিচাইয়ের

বণিক বার্তা ডেস্ক

সুন্দর পিচাই এখন সিলিকন ভ্যালির সবচেয়ে ক্ষমতাবান ব্যক্তিদের একজন। গত মঙ্গলবার গুগলের দুই প্রতিষ্ঠাতা ল্যারি পেজ ও সের্গেই ব্রিন আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিয়ে সুন্দর পিচাইকে প্যারেন্ট প্রতিষ্ঠান অ্যালফাবেটের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হিসেবে ঘোষণা করেন।

ফলে শুধু অ্যালফাবেটেরই সিইও নয়, গুগল পরিবারের আরো নয়টি কোম্পাানি পরিচালনার দায়িত্ব পড়ল পিচাইয়ের ওপর। এসব কোম্পানিরও সিইও তিনি। কোম্পানিগুলো হলো গুগল, গুগল ফাইবার, নেস্ট, ক্যালিকো, ভেরিলি, গুগল ভেঞ্চার্স (জিভি), দ্য মুন শট ফ্যাক্টরি, ক্যাপিটাল জি এবং বোস্টন ডায়নামিকস।

গুগল ফাইবার: অ্যালফাবেটের এ কোম্পানি যুক্তরাষ্ট্রে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা দেয়।

নেস্ট: এটি মূলত একটি স্মার্ট হোম কোম্পানি। ২০১৪ সালে কোম্পানিটি অধিগ্রহণ করে গুগল। ২০১৮ সাল পর্যন্ত এটি স্বাধীনভাবেই কার্যক্রম পরিচালনা করেছে। পরে গুগলের সঙ্গে একীভূত ও গুগল নেস্ট নামকরণ করা হয়।

ক্যালিকো: গুগলের এ গবেষণা ও উন্নয়ন প্রতিষ্ঠানটির (আরঅ্যান্ডডি) জন্ম ২০১৩ সালে। এটি মূলত প্রাণপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান, যেখানে মানুষের বুড়িয়ে যাওয়া ঠেকাতে গবেষণা হয়।

ভেরিলি লাইফ সায়েন্স: এটি আরেকটি প্রাণপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান। শুরুতে গুগল এক্সের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান ছিল। পরে অ্যালফাবেটের সাবসিডিয়ারি করা হয়।

গুগল ভেঞ্চার্স বা জিভি: ২০০৯ সালে প্রতিষ্ঠার সময় নাম ছিল গুগল ভেঞ্চার। পরে সংক্ষিপ্ত হয়ে শুধু জিভি নামে পরিচিত হয়। এটি মূলত ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ইনভেস্টমেন্ট প্রতিষ্ঠান।

এক্স ডেভেলপমেন্ট: আগের গুগল এক্স এখন এক্স ডেভেলপমেন্ট। ২০১০ সালে এটি প্রতিষ্ঠা করে গুগল।

ক্যাপিটাল জি: প্রতিষ্ঠাকাল ২০১৩ সাল। অ্যালফাবেটের সাবসিডিয়ারি এ প্রতিষ্ঠান একটি প্রাইভেট ইকুইটি ফার্ম। প্রযুক্তি স্টার্টআপে বিনিয়োগ করাই এর কাজ।

বোস্টন ডায়নামিকস: গুগলের একটি উচ্চাভিলাষী প্রকল্প এটি। রোবট ডিজাইনের জন্য বোস্টন ডায়নামিকস এরই মধ্যে বিখ্যাত হয়ে গেছে। এটি স্বাধীনভাবে ১৯৯২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। ২০১৩ সালে এ কোম্পানি অধিগ্রহণ করে গুগল এক্স। পরে বোস্টন ডায়নামিকস ও গুগল এক্স দুটোই অ্যালফাবেটের সাবসিডিয়ারিতে পরিণত হয়।

গুগলের মতো প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের হর্তাকর্তা হওয়ায় সুন্দর পিচাইয়ের (৪৭) ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও মানুষের মধ্যে আগ্রহের শেষ নেই। সম্প্রতি সিএনএনের বস ফাইলস অনুষ্ঠানে পিচাই জানান তার ভারতীয় শিকড়।

সুন্দর পিচাইয়ের জন্ম ভারতের চেন্নাইয়ে একটি মধ্যবিত্ত পরিবারে। চেন্নাইয়ের মাদুরাইয়ে তাদের বাড়িতে তখন ব্যক্তিগত কম্পিউটার ছিল না। পাঁচ বছরের চেষ্টায় তার পরিবার পেয়েছিল একটি ল্যান্ডফোন। আশপাশের লোকেরা বাড়িতে ভিড় করত দূরের আত্মীয়ের সঙ্গে কথা বলতে। বাড়িতে যেদিন ফ্রিজ আসে, পাড়ায় রীতিমতো হইচই পড়ে গিয়েছিলবস ফাইলসে স্মৃতিচারণ করে বলেন পিচাই।

খগড়পুর আইআইটি থেকে মেটালার্জি নিয়ে পাস করার পর বৃত্তি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যানফোর্ডে ভর্তি হওয়ার আগে পিচাই কখনো ব্যক্তিগত কম্পিউটার পাননি। প্রকৌশল বিষয়ে স্ট্যানফোর্ডে স্নাতকোত্তর করার পর তিনি পেনসিলভানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে এমবিএ করেন।

খড়গপুর আইআইটিতে মেটালার্জি নিয়ে ভর্তি হয়ে প্রথম বছরেই আলাপ হয় অঞ্জলি হরিয়ানির সঙ্গে। পরে বিয়ে। তাদের এক ছেলে, এক মেয়ে: কাব্য ও কিরণ।

২০০৪ সালে গুগলে যোগ দেয়ার আগে সুন্দর পিচাই অ্যাপ্লায়েড ম্যাটারিয়ালস অ্যান্ড ম্যাককিনসেতে কাজ করতেন। গুগলে তিনি নানা বিষয় নিয়ে কাজ করতেন। ক্রোম ব্রাউজারের উন্নয়ন ও তত্ত্বাবধান, গুগলের প্রডাক্ট চিফ এবং অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম বিভাগের প্রধান ছিলেন তিনি। ২০১৫ সালের অক্টোবরে তৈরি হয় গুগল পরিবারের মালিক সংস্থা অ্যালফাবেট। তখন গুগলের সিইওর দায়িত্ব পান পিচাই।

 

সূত্র: সিএনএন, গ্যাজেটস নাউ, আনন্দবাজার পত্রিকা

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন