শনিবার | আগস্ট ০৮, ২০২০ | ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭

দেশের খবর

মেহেরপুর হানাদারমুক্ত হয় আজ

বণিক বার্তা প্রতিনিধি মেহেরপুর

 আজ মেহেরপুর মুক্ত দিবস ১৯৭১ সালের আজকের এই দিনে মুক্তিবাহিনীর আক্রমণে পরাস্ত হয়ে মেহেরপুর ছাড়ে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী তাদের সহযোগীরা তাই প্রত্যেক বছরের মতো এবারো দিবসটি উদযাপনে নেয়া হয়েছে নানা কর্মসূচি

১৯৭১ সালের মার্চ থেকে নভেম্বরের শেষ সপ্তাহ পর্যন্ত আমঝুপি, ওয়াপদা মোড়, পিরোজপুর, বুড়িপোতা, গোভীপুর, শালিকা, রাজাপুর, কাজিপুর, তেরাইল, জোড়পুকুরিয়া, বাগোয়ান-রতনপুর, ভাটপাড়া কুঠিসহ বিভিন্ন গ্রামে নৃশংস গণহত্যা চালায় পাকিস্তান হানাদার বাহিনী জেলায় অন্তত ১৫টি বধ্যভূমির সন্ধান পাওয়া গেছে তার মধ্যে মেহেরপুর কলেজের উত্তরে বিস্তৃত খোলা মাঠ, কালাচাঁদপুর ঘাট ভাটপাড়া কুঠি অন্যতম পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর নির্যাতনের অন্যতম স্থান মেহেরপুর টেকনিক্যাল স্কুল কলেজে আটক অনেকেই প্রাণ হারিয়েছেন

এদিকে দিনটি উদযাপনে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ মেহেরপুর জেলা কমান্ডসহ বিভিন্ন সংগঠন নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে যদিও মুক্তিযোদ্ধা সংসদের নির্বাচন না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন গাংনী উপজেলা মুক্তিযুদ্ধ সংসদের সাবেক কমান্ডার মুন্তাজ আলী তিনি বলেন, বর্তমানে জেলা উপজেলা পর্যায়ে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ভেঙে দেয়া হয়েছে এতে গণকবরগুলোর উন্নয়ন করা সম্ভব হচ্ছে না আমি কমান্ডার থাকা অবস্থায় উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স, দুটি গণকবর উন্নয়নসহ আরো অনেক কাজ করেছি আরো করতে চাই কিন্তু সংসদ না থাকায় তা করতে পারছি না

গাংনী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দিলারা রহমান বলেন, গাংনীতে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স নির্মাণ শেষে এটি উদ্বোধন করা হয়েছে এছাড়া সাহারবাটি কাজিপুর গণকবর সংরক্ষণের কাজ আংশিক করা হয়েছে বেশকিছু জায়গায় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করা হয়েছে আগামীতে যেসব গণকবর বা মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত এলাকা রয়েছে, সেগুলো সংরক্ষণ করা হবে 

মেহেরপুর জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সরকারিভাবে দায়িত্বে থাকা কেএম আতাউল হাকিম লাল মিয়া বলেন, দিবসটি উপলক্ষে আজ সকালে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোসহ শোভাযাত্রা আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন