মঙ্গলবার | আগস্ট ১১, ২০২০ | ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭

প্রথম পাতা

আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সভায় প্রধানমন্ত্রী

দুর্নীতিবাজরা আর যেন ক্ষমতায় আসতে না পারে

নিজস্ব প্রতিবেদক

অগ্নিসন্ত্রাসী দুর্নীতিবাজরা যেন আর কখনো ক্ষমতায় আসতে না পারে, সেদিকে সজাগ থাকার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল গণভবনে আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সভায় সূচনা বক্তব্যে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর আমরা সম্মান নিয়ে মাথা উঁচু করে বিশ্বে চলতে পারি। অর্জনটা ধরে রাখতে হবে। ঘুষখোর, সুদখোর, এতিমের অর্থ আত্মসাত্কারী, অর্থ পাচারকারী, গ্রেনেড-বোমা হামলাকারী অগ্নিসন্ত্রাসীরা যেন আর কোনোদিন রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসতে না পারে, দেশকে ধ্বংসের দিকে নিতে না পারে জাতির কাছে আমার সেটাই আহ্বান।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগারে রাজার হালে আছেন বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি। তিনি বলেন, খালেদা জিয়া জেলে তো ভালো আছেন। রাজার হালেই আছেন। জেলখানা থেকে এখন হাসপাতালে। তার জন্য আবার মেইড সার্ভেন্ট দেয়া হয়েছে। মানুষ এমনিতে কাজের বুয়া পায় না। আর খালেদা জিয়ার জন্য স্বেচ্ছায় একজন কারাবরণ করছে, তার সেবা করার জন্য। পৃথিবীর কোনো দেশে দৃষ্টান্ত দেখাতে পারবেন না যে, জেলে সাজাপ্রাপ্ত আসামির সেবার জন্য কোনো কাজের বুয়া যায়। সেটাও কিন্তু তিনি (খালেদা জিয়া) পাচ্ছেন।

খালেদা জিয়াকে সন্ত্রাসের গডমাদার আখ্যা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সন্ত্রাসের গডমাদার হচ্ছেন খালেদা জিয়া। তিনি বাংলাভাই সৃষ্টি থেকে শুরু করে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মানুষ মেরেছেন। হরতাল-অবরোধ দিয়ে খালেদা জিয়া মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করেছেন। সেই অবরোধ-হরতাল এখনো তোলেননি। তার হুকুমে কত মায়ের কোল খালি হয়েছে, কত বোন বিধবা হয়েছে! জীবন্ত মানুষকে পুড়িয়ে মারা এর চেয়ে বড় সন্ত্রাসী কাজ আর কী হতে পারে? তিনি তো জেলে আছেন, বেশ ভালো আছেন। তার জন্য আবার কারো কারো মায়াকান্নাও দেখি।

বঙ্গবন্ধু হত্যার সঙ্গে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান জড়িত থাকতে পারেন বলে অভিযোগ করেন শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, বাংলাদেশ যখনই সুষ্ঠুভাবে চলতে শুরু করেছে, তখনই এল ১৫ আগস্ট। আর ১৫ আগস্টের সঙ্গে যে জিয়াউর রহমান জড়িত ছিলেন সেটা খুনি রশিদ ফারুকের বক্তব্যেই প্রমাণিত।

গত জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে বিএনপির সমালোচনার জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০১৮ সালের নির্বাচন, যে নির্বাচন নিয়ে অনেক কথা বলতে চায় বিএনপি। এটা তারা ভুলে যায় যে

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন