শনিবার | ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

দেশের খবর

চট্টগ্রামে উন্নয়নের খতিয়ান দিলেন সিটি মেয়র

নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম ব্যুরো

 নির্বাচনী ইশতেহার মাথায় রেখে চট্টগ্রামে সবুজ এবং পরিচ্ছন্ন নগরীর সব সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিতে নতুন নতুন উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সিটি মেয়র নাছির উদ্দীন গতকাল নগরীর আন্দরকিল্লার কেবি আবদুস সাত্তার মিলনায়তনে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) উন্নয়ন কর্মকাণ্ড নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি কথা বলেন সময় তিনি নগরীতে বিভিন্ন উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরেন

নাছির উদ্দীন বলেন, নগরীর হাজার ৩৭৫টি খোলা ডাস্টবিনের মধ্যে ৮২৫টি অপসারণ করা হয়েছে নগরবাসীর সংখ্যা বেড়েছে, বর্জ্যও বেড়েছে জনদুর্ভোগ লাঘবে দিনের বদলে রাতে বর্জ্য অপসারণ করছি আমরা নয় লাখ বিন বিতরণ করেছি প্রায় দুই হাজার পরিচ্ছন্ন শ্রমিক নিয়োগ দেয়া হয়েছে

তিনি জানান, প্রায় হাজার ২৫৬ কোটি টাকা ব্যয়ে বারইপাড়া থেকে কর্ণফুলী নদী পর্যন্ত ফুট প্রস্থ দশমিক কিলোমিটার দীর্ঘ নতুন খাল খননের কাজ চলছে ভূমি মালিকদের তিন গুণ ক্ষতিপূরণ দেয়া হচ্ছে এস আলম গ্রুপের মাধ্যমে নগরীতে গণপরিবহন সংকট কাটাতে রঙের ১০০ এসি বাস চালু করা হচ্ছে আশা করি জানুয়ারিতে তিন রুটে এসব বাস চলাচল শুরু হবে স্টপেজের জায়গা চিহ্নিত করা হচ্ছে এছাড়া নগরীর প্রায় ৯৫২ কিলোমিটার সড়ক আলোকায়নের আওতায় আনা হয়েছে হাজার ৩০৪ কিলোমিটার সড়কে ৬৪ হাজার ৬৮৩টি এলইডি বাতি স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে

সিটি মেয়র জানান, তিনি দায়িত্ব নেয়ার পর চট্টগ্রাম নগরীতে পিচঢালা সড়ক ৫৬০ কিলোমিটার থেকে বেড়ে এখন ৮১৬ কিলোমিটারে, কংক্রিট সড়ক ২২২ থেকে ৩২৮ কিলোমিটারে, পাকা নালা ৬৮৩ দশমিক ৫৫ থেকে ৯৪৬ দশমিক কিলোমিটারে, ফুটপাত ১৪৬ দশমিক শূন্য থেকে ২৮৭ কিলোমিটারে, প্রতিরোধ দেয়াল ৮০ দশমিক ২০ থেকে ৯৯ কিলোমিটারে, ব্রিজ ১৮৮ থেকে ২১৯টিতে, গভীর নলকূপ ৩৭২ থেকে ৪২৩টিতে এবং কালভার্টের সংখ্যা ৯৩২ থেকে হাজার ৪৮টিতে উন্নীত হয়েছে এছাড়া ব্রিক সলিংয়ের পরিমাণ ৭৮ দশমিক ৫৩ কিলোমিটার থেকে ৫২ দশমিক ৯৩ কিলোমিটার কমিয়ে ২৫ দশমিক কিলোমিটারে নামিয়ে আনা হয়েছে

তিনি বলেন, যান চলাচলের নাজুক পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে বিমানবন্দর সড়ক চার লেনে উন্নীত করার প্রকল্প নিয়েছি এখানে বন্দরের জমি লিজ নিয়ে অনেক জ্বালানি স্থাপনা তৈলাধার গড়ে তোলা হয়েছে সিমেন্ট ক্রসিং পর্যন্ত দুপাশে ড্রেন তৈরি করা হচ্ছে জাইকার অর্থায়ন ডিজাইনে পোর্ট কানেকটিং এক্সেস রোডের কাজ হচ্ছে নিমতলা থেকে অলংকার পর্যন্ত দশমিক কিলোমিটার পোর্ট কানেকটিং সড়ক উন্নয়ন করা হচ্ছে এক্সেস রোডের কাজে এলইডি লাইটিং অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে আরাকান সড়কের কাজ ১২টি লটে চলমান আছে ডিসেম্বরের মধ্যে কাজ সম্পন্ন করার চেষ্টা চলছে

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে চসিকের কাউন্সিলর আবিদা আজাদ, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামশুদ্দোহা, প্রধান প্রকৌশলী লে. কর্নেল সোহেল আহমেদ, প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ একেএম রেজাউল করিম, প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন বড়ুয়া, মেয়রের একান্ত সচিব আবুল হাশেম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন