রবিবার | ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

পণ্যবাজার

চীনের এলএনজি আমদানি কমেছে

বণিক বার্তা ডেস্ক

চলতি বছরের অক্টোবরে চীন মোট ৪০ লাখ ৪০ হাজার টন তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আমদানি করেছে, যা আগের মাসের তুলনায় ২০ দশমিক শতাংশ আগের বছরের একই মাসের তুলনায় ১১ দশমিক শতাংশ কম। দেশটির জেনারেল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অব কাস্টমস তথ্য জানিয়েছে। খবর এসঅ্যান্ডপি গ্লোবাল প্ল্যাটস।

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাণিজ্য বিরোধের কারণে দেশটির অর্থনৈতিক গতি মন্থর হয়ে পড়েছে। এছাড়া পেট্রো চায়নার নিয়ন্ত্রণে থাকা রুডং এলএনজি টার্মিনাল দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ রয়েছে। ফলে সময়ে বায়ুদূষণ রোধে দেশটির কয়লা থেকে প্রাকৃতিক গ্যাসে রূপান্তর নীতি কিছুটা শিথিল হয়ে পড়েছে। এর ওপর আবার অক্টোবরের প্রথম দিকে দেশটির ৭০তম জাতীয় দিবস উপলক্ষে এক সপ্তাহের সরকারি ছুটিতে শিল্প-কারখানার কার্যক্রম স্থগিত থাকায় জ্বালানি পণ্যটির রফতানি কমার পেছনে অন্যতম ভূমিকা রেখেছে।

এদিকে আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বাড়ার ফলে অক্টোবরে এলএনজি আমদানি বাবদ দেশটির ব্যয় বেড়েছে। সময়ে জ্বালানিটির আমদানি বাবদ চীনকে টনপ্রতি খরচ করতে হয়েছে ৪৬৪ মার্কিন ডলার, যা আগের মাসের তুলনায় দশমিক শতাংশ বেশি। তবে আগের বছরের একই মাসের তুলনায় ১৩ দশমিক শতাংশ কম।

এদিকে দেশটির শুল্ক বিভাগ জানিয়েছে, অক্টোবরে জ্বালানি পণ্যটির আমদানিতে মন্দা ভাব বজায় থাকলেও বছরের প্রথম ১০ মাসে (জানুয়ারি-অক্টোবর) সম্মিলিত আমদানি বেড়েছে। সময়ে দেশটি সব মিলিয়ে কোটি ৭৪ লাখ ৩০ হাজার টন এলএনজি আমদানি করেছে, যা আগের বছরের একই মাসের তুলনায় ১৪ দশমিক শতাংশ বেশি।

এবারো চীনের বাজারে এলএনজি সরবরাহে শীর্ষে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া। যদিও দেশটি থেকে জ্বালানিটি আমদানি কমিয়েছে বেইজিং। অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়া থেকে চীনের ব্যবসায়ীরা মোট ২১ লাখ টন এলএনজি আমদানি করেছে, যা আগের মাসের তুলনায় দশমিক শতাংশ আগের বছরের একই মাসের তুলনায় দশমিক শতাংশ কম। এদিকে জানুয়ারি-অক্টোবর সময়ে অস্ট্রেলিয়া থেকে চীনের এলএনজি আমদানি বেড়ে কোটি ২৮ লাখ টনে উন্নীত হয়েছে, যা আগের বছরের তুলনায় ২৪ দশমিক শতাংশ বেশি।

সময়ে চীনের বাজারে এলএনজি সরবরাহে মালয়েশিয়াকে টপকে দ্বিতীয় শীর্ষ দেশ হয়েছে রাশিয়া। অক্টোবরে রাশিয়া থেকে দেশটি মোট লাখ ২৪ হাজার ৬০৫ টন এলএনজি আমদানি করেছে, যা আগের বছরের একই মাসের তুলনায় ৫৬৩ দশমিক শতাংশ বেশি। তবে আগের মাসের তুলনায় তা দশমিক শতাংশ কম। একই সময়ে মালয়েশিয়া থেকে দেশটির এলএনজি আমদানি দাঁড়িয়েছে লাখ ২০ হাজার ৪৯১ টন, যা আগের মাসের তুলনায় ৫৩ দশমিক শতাংশ আগের বছরের অক্টোবরের তুলনায় ৩৫ দশমিক শতাংশ কম।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন