শুক্রবার| জানুয়ারি ২৪, ২০২০| ১১মাঘ১৪২৬

খেলা

পাকিস্তানকে গুঁড়িয়ে সিরিজ অস্ট্রেলিয়ার

একটু কি আফসোস হবে না ডেভিড ওয়ার্নারের? চাইলে তো ব্রায়ান লারার রেকর্ডটা ভাঙার সুযোগ নিতেই পারতেন পাঁচদিনের ম্যাচে একদিন আগেই হেরে বসেছে পাকিস্তান আর সেদিন ওয়ার্নারকে ৩৩৫ রানে থাকা অবস্থায় ইনিংস ঘোষণা করে থামিয়ে দিয়েছিলেন টিম পেইন ওয়ার্নার যেভাবে এগোচ্ছিলেন হয়তো লারার রেকর্ডটা সেদিন ভেঙেই যেত অবশ্য দলীয় সাফল্যে ব্যক্তিগত মাইলফলক অধরা থাকার দুঃখটা নিশ্চয়ই ভুলে যাবেন অসি ওপেনার যেখানে দুই ইনিংসে পাকিস্তানের ১১ জন করে ব্যাটসম্যান ওয়ার্নারের রানকেই ছাড়িয়ে যেতে ব্যর্থ হয়েছেন প্রথম ইনিংসে ৩০২ রানে অলআউট হওয়া পাকিস্তানের দ্বিতীয় ইনিংস থেমেছে ২৩৯ রানে হারের ব্যবধান ইনিংস ৪৮ রান এর আগে ব্রিসবেন গ্যাবায়ও ইনিংস ব্যবধানে হেরেছিল পাকিস্তান ফলে দুই ম্যাচ সিরিজের দুটিতেই বিধ্বস্ত হয়েছে আজহার আলীর দল

অ্যাডিলেডে দিবারাত্রির টেস্টে তৃতীয় দিনই হারের রাস্তাটা তৈরি করে ফেলেছিল পাকিস্তান ফলো-অনে পড়ে ব্যাটিংয়ে নেমে উইকেট হারিয়ে ফেলে ৩৯ রানে চতুর্থ দিন তাই কেবল আনুষ্ঠানিকতায় পরিণত হয়েছিল, যেখানে বল হাতে অস্ট্রেলিয়ার নায়ক স্পিনার নাথান লায়ন যদিও দিনের শুরুটা একেবারে খারাপ করেননি দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান শান মাসুদ আসাদ শফিক দুজন মিলে দলকে নিয়ে যান ১২৩ রানে এরপর অর্ধশতক করা মাসুদকে ফিরিয়ে অস্ট্রেলিয়াকে দিনের প্রথম সাফল্য এনে দেন লায়ন ৬৮ রান আসে মাসুদের ব্যাট থেকে ফিফটি তুলে নিয়ে ফিরে যান আসাদও ৫৭ করা ব্যাটসম্যানকেও ফেরান লায়ন এরপর ইফতিখার আহমেদ মোহাম্মদ রিজওয়ান মিলে কিছুক্ষণ প্রতিরোধ চালিয়ে যান কিন্তু হেরে যাওয়া লড়াইয়ে দলকে ২০১ রানে রেখেই সাজঘরে ফেরেন ইফতিখার ২৭ রান করা ইফতিখারকেও সাজঘরের পথ দেখান লায়ন অবশ্য এখানেই থামেননি লায়ন প্রথম ইনিংসে পাকিস্তানের হয়ে অসাধারণ সেঞ্চুরি আদায় করা ইয়াসির শাহকেও ফিরিয়ে দেন তিনি যাত্রায় ১৩ রানেই থামতে হয়েছে পাক স্পিনারকে দ্রুত শাহিন শাহ আফ্রিদিকেও ফিরিয়ে নিজের উইকেট পূর্ণ করেন লায়ন এক প্রান্ত আগলে ৪৫ রান করা মোহাম্মদ রিজওয়ানকে ফেরান জস হ্যাজেলউড অবশেষে পাকিস্তান থামে ২৩৯ রানে তখনো অস্ট্রেলিয়ার এক ইনিংস রান ছুঁতে বাকি ৪৮ রান ম্যাচ সিরিজ সেরার দুটি পুরস্কারই উঠেছে ট্রিপল সেঞ্চুরিয়ান ওয়ার্নারের হাতে

সিরিজ জিতে উচ্ছ্বসিত অসি অধিনায়ক পেইন প্রশংসায় ভাসিয়েছেন ওয়ার্নারকে তার কথায়, ডেভিড (ওয়ার্নার) মার্নুস (লাবুশেন) অবিশ্বাস্য ক্রিকেট খেলেছে আমরা সবাই ওয়ার্নারের বিশেষ এক ইনিংসের সাক্ষী হলাম অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়াকে অভিনন্দন জানিয়ে পাক অধিনায়ক আজহার বলেন, আমি অস্ট্রেলিয়াকে অভিনন্দন জানাতে চাই বিশেষ করে ওয়ার্নারকে আমরা ভালো একটি দলের কাছে হেরেছি আমরা এখান থেকে ইতিবাচক কিছু গ্রহণ করতে পারব ক্রিকইনফো এএফপি

অস্ট্রেলিয়া: ৫৮৯/, ডিক্লেয়ার (ওয়ার্নার ৩৩৫*, লাবুশেন ১৬২, ওয়েড ৩৮*; শাহিন শাহ /৮৮) পাকিস্তান: ৩০২/১০ ২৩৯/১০ (শান ৬৮, আসাদ ৫৭, রিজওয়ান ৪৫; লায়ন /৬৯, হ্যাজলউড /৬৩) ফল: অস্ট্রেলিয়া ইনিংস ৪৮ রানে জয়ী সিরিজ ফল: দুই ম্যাচের সিরিজে অস্ট্রেলিয়া - ব্যবধানে জয়ী ম্যাচ সিরিজ সেরা: ডেভিড ওয়ার্নার

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন