শুক্রবার | জুলাই ০৩, ২০২০ | ১৮ আষাঢ় ১৪২৭

ঈপ্সনীয়

বলিউড অভিনেত্রীদের জাঁকালো বিয়ের পোশাক

ফিচার ডেস্ক

রুপালি পর্দায় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের অহরহ বউ সাজতে হয়। গল্পের প্রয়োজনে তারা হরহামেশাই বউ সাজেন। তবে বাস্তবের বিয়ের সাজ আর সিনেমার বিয়ের সাজ কিন্তু এক নয়, সিনেমায় তারা হাজারবার বিয়ে করলেও বাস্তবে সবাই একবারই বধূ সাজতে চান! আর সেই একবার সাজের জন্য তারা কোনো কিছুর কমতি রাখতে চান না। কার্পণ্য করেন না বিয়ের পোশাক বাছাইয়ের ক্ষেত্রে। পারিবারিক ঐতিহ্য ছাপিয়ে নিজ দেশ ধারা বজায় রেখে বলিউড অভিনেত্রীরা সাধারণত বিয়ের পোশাক পছন্দ করেন অভিনেত্রীদের বিয়ের সাজ দেখে অনেক ভক্তই স্বপ্ন দেখেন তাদের মতো পোশাকে বধূ সাজার। শুধু রুপালি পর্দায় নয়, বাস্তবে অভিনেত্রীদের বিয়ের পোশাকও ছাপ ফেলে ভক্তদের বিয়ের পোশাকের ফ্যাশনে। চলুন, জেনে নেয়া যাক বলিউড অভিনেত্রীদের বিয়ের পোশাক...

 

আনুশকা শর্মা

২০১৭ সালে ক্রিকেট তারকা বিরাট কোহলির সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন আনুশকা শর্মা। দুজনই তারা সব্যসাচী মুখার্জির ডিজাইন করা বিয়ের পোশাক পরেছিলেন। বিয়ের দিন হালকা গোলাপি রঙের লেহেঙ্গা পরে তাক লাগিয়ে দেন আনুশকা। মুক্তা, পুঁতি, রুপা সোনার কাজ করা লেহেঙ্গার সঙ্গে তিনি হীরার অলংকার পরেছিলেন। বিয়ের পোশাকের জন্য তিনি প্রায় ৩০ লাখ রুপি ব্যয় করেছিলেন।

 

সোনম কাপুর

সোনম কাপুর এমন এক অভিনেত্রী, যিনি যেকোনো পোশাকেই দ্যুতি ছড়াতে পারেন। তবুও বিয়ের পোশাকের ক্ষেত্রে তিনি বিশেষ নজর দিয়েছিলেন। তিনি বিয়ের জন্য গোলাপি লাল রঙের লেহেঙ্গা বেছে নিয়েছিলেন। সোনালি রঙের এমব্র্রয়ডারি করা পদ্মপাতার নকশা লেহেঙ্গাটিকে অনন্য সুন্দর করে তুলেছে। মুক্তা স্বর্ণের গহনা এবং গোলাপি মেকআপ তাকে অপূর্ব করে তুলেছিল। এটা বলিউড অভিনেত্রীদের বিয়ের পোশাকগুলোর মধ্যে অন্যতম ছিল।

 


মাধুরী দীক্ষিত

মাধুরী দীক্ষিতকে বলিউডের সর্বযুগের সেরা অভিনেত্রী বলা হয়, তার হাসিকে তুলনা করা হয় মিলিয়ন ডলার স্মাইলের সঙ্গে। লাখো পুরুষ ভক্তের মন ভেঙে দিয়ে ১৯৯৯ সালে তিনি ডা. শ্রীরাম নেনেকে বিয়ে করেন। বিয়ের দিন তিনি লাল সাটিন দুপাট্টার সঙ্গে সোনালি সিল্কের লেহেঙ্গা পরেছিলেন। বিলাসবহুল লেহেঙ্গার সঙ্গে হীরা পুঁতির গহনা মাধুরীর সৌন্দর্য কয়েক গুণ বাড়িয়ে দিয়েছিল।

 

বিপাশা বসু

২০১৬ সালে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন বলিউড অভিনেত্রী বিপাশা বসু। বাঙালি মতে ট্র্যাডিশনাল বিয়ে করলেও বিপাশা শাড়ির বদলে সব্যসাচী মুখোপাধ্যায়ের ডিজাইন করা লাল লেহেঙ্গা বেছে নেন। ভারী এমব্র্রয়ডারি সোনালি বোটানিক্যাল প্যাটার্নের অনন্য সুন্দর লেহেঙ্গার পেছনে বিপাশা বসু লাখ রুপি খরচ করেছিলেন।

 

কারিনা কাপুর

২০১২ সালে সাইফ আলী

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন