শুক্রবার | ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

খেলা

৮৯ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ স্কোর!

বিজে ওয়াটলিং সেঞ্চুরিটাকে রূপ দিলেন ডাবলে, দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরিতে তাকে সঙ্গ দিলেন মিচেল স্যান্টনার। মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে এ দুজনের অনবদ্য ব্যাটিংয়ে ভর দিয়ে ৯ উইকেটে ৬১৫ রান তুলে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে নিউজিল্যান্ড। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৮৯ বছরের মধ্যে এটাই কিউইদের সর্বোচ্চ টেস্ট স্কোর। বিশাল এ রানের পাহাড়ে চাপা পড়ে হারের মুখে ইংলিশরা। প্রথম ইনিংসে ৩৫৩ রান করা অতিথি দলটি ৫৫/৩ সংগ্রহ নিয়ে চতুর্থ দিন মাঠ ছাড়ে। টেস্ট বাঁচাতে আজ ৭ উইকেট হাতে নিয়ে পুরো দিন ব্যাটিং করতে হবে জো রুটের দলকে।

গতকাল সপ্তম উইকেটে ২৬১ রান যোগ করে ম্যাচ থেকে ইংল্যান্ডকে ছিটকে দেন ওয়াটলিং ও স্যান্টনার। এ পথে ওয়াটলিং করেন ক্যারিয়ারের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি, আর স্যান্টনার পান ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি। ওয়াটলিং ৪৭৩ বলে করেন ২০৭ রান, স্যান্টনার ২৬৯ বলের মোকাবেলায় করেন ১২৬ রান। এ দুজনের রান উৎসব শেষে চা বিরতির পরপর ইনিংস ঘোষণা করে নিউজিল্যান্ড। তখন ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংসের চেয়ে ২৬২ রানে এগিয়ে ছিল স্বাগতিকরা।

ওয়াটলিংয়ের টেস্টে কর্তৃত্বে ভাগ বসাচ্ছেন স্যান্টনার। দুরন্ত এক সেঞ্চুরির পর বল হাতেও উজ্জ্বল তিনি। ইংল্যান্ডের পতন হওয়া তিনটি উইকেটই তুলে নেন তিনি। ৮ দশমিক ৪ ওভারে মাত্র ৬ রান দিয়ে তিন উইকেট নেন স্যান্টনার। তার ঘূর্ণিতে বিভ্রান্ত হয়ে ফেরার আগে ররি বার্নস ৩১, ডম সিবলি ১২ ওনৈশপ্রহরী জ্যাক লিচ শূন্য রান করেন। জো ডেনলি ৭ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। বিবিসি, ক্রিকইনফো

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ইংল্যান্ড: ৩৫৩ ও ৫৫/৩ (ডেনলি ৭*; স্যান্টনার ৩/৬)। নিউজিল্যান্ড: প্রথম ইনিংস ৬১৫/৯ ডিক্লেয়ার (ওয়াটলিং ২০৫, স্যান্টনার ১২৬, গ্র্যান্ডহোম ৬৫, উইলিয়ামসন ৫১; কারান স্যাম ৩/১১৯)।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন