শুক্রবার | ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

খেলা

নানামুখী চ্যালেঞ্জ দেখছেন ভেট্টোরি

ক্রীড়া প্রতিবেদক

 কলকাতায় গোলাপি বলের দিবা-রাত্রির টেস্ট নিয়ে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা উইকেট কেমন হবে, বলের আচরণ কেমন হবেএসব নিয়ে বিশেষজ্ঞরাও মেতে আছেন আলোচনায় তবে এখন পর্যন্ত ইডেনের ২২ গজ থেকে সবচেয়ে বেশি সুখবর আসছে পেসারদের জন্য সবুজের আভায় গতি সুইংয়ের ঝড় দেখা যাবে বলেই মনে করা হচ্ছে যে কারণে দুই দলেই হয়তো দেখা যাবে পেসারদের আধিক্য তাই বলে অবশ্য বসে নেই বাংলাদেশের স্পিন কোচ ড্যানিয়েল ভেট্টোরি কলকাতা টেস্টে যেটুকু সুযোগ আছে, সেটুকুই বাজিমাতের জন্য তৈরি করছেন সেনানীদের এর মাঝে গতকাল মুখোমুখি হয়েছেন সংবাদ মাধ্যমেরও যেখানে দিনের আলোর চেয়ে কৃত্রিম আলোতেই বেশি চ্যালেঞ্জ দেখছেন তিনি বিশেষ করে গোধূলি লগ্নে লড়াই জমে উঠতে পারে বলে বিশ্বাস তার

কলকাতার ইডেন গার্ডেনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ভেট্টোরি বলেন, আমার মনে হয়, দিনের আলোয় গোলাপি বল অপেক্ষাকৃত স্বাভাবিকই থাকবে তবে চ্যালেঞ্জ হবে কৃত্রিম আলোয় অবশ্যই এখানে দ্রুত সূর্য ডুবে যায় আমার ধারণা, সেটা ৪টা ৩০ মিনিট হতে পারে তখন গোলাপি বল কেমন আচরণ করে, সেটা দেখার বিষয় হবে

মূলত গোলাপি বলের ক্রিকেটে গোধূলি লগ্নে ম্যাচ জমে উঠতে পারে বলে মনে করছেন সাবেক কিউই স্পিনার, গোলাপি বলে আমার অভিজ্ঞতা বলতে কেবল টেলিভিশনের দেখা তবে গোধূলিলগ্নে এটা একটু বেশি কার্যকর হতে পারে আমার মনে হয়, টেস্টের ওই সময়টায় দলগুলো টেকনিক্যালি বিভিন্ন কিছুর চেষ্টা করবে আমার ধারণা, শেষ দেড় সেশন খুবই উপভোগ্য হতে পারে

পেসাররা বেশি সুবিধা পেলেও স্পিনারদের উইকেটে সীমিত হলেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার সুযোগ আছে বলে মনে করছেন ভেট্টোরি তিনি বলেন, গোলাপি বলে স্পিনাররা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে সূর্যাস্ত এখানে দ্রুত হয়ে যায় সে সময় পেসারের সঙ্গে একজন স্পিনারের ভূমিকা হবে রান আটকে রাখা তবে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের স্পিন দক্ষতাকেও সময় মনে করিয়ে দিতে ভুললেন না ভেট্টোরি, আমরা দেখেছি, মায়াঙ্ক (আগারওয়াল) (আজিঙ্কা) রাহানে আমাদের স্পিনারদের চাপে রেখেছিল ইন্দোরের উইকেটে তাদের কিছু করার ছিল না এখানেও সম্ভবত তেমনই থাকবে সফরকারী স্পিনাররা এখানে দাপট দেখাতে পারে না, যতটা তারা নিজ দেশে পারে

নিজের বিভাগ নিয়ে খুব বেশি উচ্ছ্বসিত হতে না পারলেও পেসাররা যে রোমাঞ্চিত, সেটিও মনে করিয়ে দিলেন ভেট্টোরি—‘সব ফাস্ট বোলার খুবই রোমাঞ্চিত পাশাপাশি ইডেনে ভালো সম্ভাবনা দেখার কথা জানিয়ে ভেট্টোরি আরো বলেন, আমি মনে করি, এখানে সত্যিকার অর্থেই আশাবাদী হওয়ার মতো ব্যাপার আছে এখানে অনেক দর্শক থাকবে পুরো সময়টা গোলাপি বলে প্রথম টেস্ট খেলাটা দারুণ উপভোগ্য হবে

গোলাপি বলে টেস্ট ক্রিকেটকে নতুন শুরু বলে মনে করছেন ভারতীয় স্পিনার রবিচন্দ অশ্বিন তিনি বলেন, আমি আশা করি, এটা নতুন একটা শুরু হবে, যখন প্রচুর দর্শক স্টেডিয়ামে আসবেন এবং টেস্ট ক্রিকেট তার প্রাপ্যটা বুঝে পাবে সময়ের পরিবর্তনের কারণে মানুষজন কাজ শেষ করে খেলা উপভোগ করতে আসতে পারবে

সবাই যখন গোলাপি বলে পেসারদের সম্ভাবনা দেখছেন, তখন ভারতীয় পেসার মোহাম্মদ শামির পর্যবেক্ষণ একটু ভিন্ন, গোলাপি বল একেবারেই ভিন্ন সাদা লাল বল যেভাবে কাজ করে, এটি সেভাবে কাজ করে না তাই সম্ভাবনা একেবারেই কম যে, শেষ সেশনে গিয়ে আমরা সুইং কিংবা রিভার্স সুইং পাব তাই আমাদের অনেক পরিশ্রম করতে হবে

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন