শুক্রবার | ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

দেশের খবর

চার জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪

বণিক বার্তা ডেস্ক

 চুয়াডাঙ্গা, ফরিদপুর, হবিগঞ্জ সাতক্ষীরায় সড়ক দুর্ঘটনায় চারজন নিহত হয়েছেন গতকাল এসব দুর্ঘটনা ঘটে প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর

চুয়াডাঙ্গা: জেলার দামুড়হুদা উপজেলার লক্ষ্মীপুর গ্রামে ট্রাকচাপায় জিয়া উদ্দীন (৩২) নামে এক বাইসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন গতকাল বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে দুর্ঘটনা ঘটে জিয়া উদ্দীন দামুড়হুদা উপজেলার বিষ্ণপুর নতুনপাড়া গ্রামের আবু বাক্কার ছেলে

দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি সুকুমার বিশ্বাস জানান, জিয়া উদ্দীন চুয়াডাঙ্গার ভালাইপুর বাজার থেকে বাইসাইকেলে বাড়ি ফেরার পথে লক্ষ্মীপুর বালুপাড়া এলাকায় পৌঁছালে পেছন থেকে আসা দ্রুতগামী ট্রাক তাকে চাপা দেয় এতে ঘটনাস্থলেই জিয়া মারা যান

ফরিদপুর: জেলার বোয়ালমারীতে সড়ক দুর্ঘটনায় আড়াই বছরের এক শিশু নিহত হয়েছে গতকাল সকালে উপজেলার শেখর ইউনিয়নের তেলজুড়ী গ্রামে দুর্ঘটনা ঘটে নিহত শিশুর নাম তিশা সে তেলজুড়ী গ্রামের তৈয়ব মোল্যার মেয়ে

বোয়ালমারী থানা পুলিশের উপপুলিশ পরিদর্শক মো. মাহামুদ জানান, দুর্ঘটনার পর বাস থ্রি-হুইলার চালক পলাতক রয়েছেন শিশুটির মরদেহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের মাধ্যমে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে এবং থ্রি-হুইলারটি জব্দ করা হয়েছে

হবিগঞ্জ : বাহুবলে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত সুভাষ নন্দী (৫৫) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে গতকাল সকালে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি সুভাষ উপজেলার মিরপুর ইউনিয়নের রাউদগাঁও গ্রামের বাসিন্দা

বাহুবল মডেল থানার (ওসি) কামরুজ্জামান জানান, গত সোমবার দুপুরে উপজেলার রাউদগাঁও গ্রাম থেকে ব্যাটারিচালিত টমটম দিয়ে সাত-আটজন যাত্রী নিয়ে মিরপুর আসছিলেন একই ইউনিয়নের ভূগলী গ্রামের জলিল মিয়ার ছেলে লাল মিয়া পথিমধ্যে মিরপুর এলাকার বেদেপল্লীর সামনে পৌঁছালে টমটমটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়

এতে সুভাষ নন্দীসহ অন্য যাত্রীরা আহত হন আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হয় পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সুভাষ নন্দীকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল সকালে মারা যান তিনি

সাতক্ষীরা: পিকআপের ধাক্কায় শফিকুল ইসলাম (৩২) নামে এক মোটরসাইকেল চালক নিহত হয়েছেন শফিকুল ইসলাম কালীগঞ্জ উপজেলার মশরকাটি গ্রামের মোসলেম গাজীর ছেলে ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো তিনজন

কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন জানান, চম্পাফুল এপিসি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে সমাপনী পরীক্ষা দিয়ে গত সোমবার বেলা ১টার পর শফিকুল ইসলাম মোটরসাইকেলে তার মেয়ে সাথীসহ চান্দুলিয়া গ্রামের ইসরাইল হোসেনের মেয়ে শারমিন খাতুন কামাল গাজীর মেয়ে নাজমা খাতুনকে নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন পথিমধ্যে সাইহাটি স্কুলের সামনে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি পিকআপ ভ্যান মোটরসাইকেলে আঘাত করে এতে তারা চারজন গুরুতর আহত হন আহতদের প্রথমে আশাশুনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয় পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় শফিকুল তার মেয়ে সাথীকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় সন্ধ্যায় শফিকুলের অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে খুলনার গাজী মেডিকেলে ভর্তি করা হয় সেখানে রাত সাড়ে ৩টার দিকে তিনি মারা যান

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন