রবিবার | মার্চ ০৭, ২০২১ | ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭

টকিজ

রুনা লায়লার সুর ও কণ্ঠে ‘ফেরাতে পারিনি’ ইউটিউবে

ইউটিউবে প্রকাশ হওয়ার পর থেকেই ভক্তরা গানটির প্রশংসা করে নানা মন্তব্য করছেন

উপমহাদেশের প্রখ্যাত গায়িকা, যিনি গানে গানে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন বিশ্বমঞ্চে। দীর্ঘদিন পর গানে কণ্ঠ দিয়েছেন তিনি। সেটাও আবার প্রথমবারের মতো নিজের সুর করা কোনো গানে। বলছি কিংবদন্তিতুল্য শিল্পী রুনা লায়লার কথা। গত শনিবার তার সুর কণ্ঠেফেরাতে পারিনিগানের মিউজিক ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে ইউটিউবে। ধ্রুব মিউজিক স্টেশন থেকে প্রকাশ হওয়া গানটির মিউজিক ভিডিওতে মডেল কণ্ঠশিল্পী হিসেবে দেখা যাচ্ছে তাকে।

কবির বকুলের লেখা গানটির সংগীতায়োজন করেছেন রাজা কাশেফ। জীবনের বাস্তবতা, প্রাপ্তি আর অপ্রাপ্তির গল্পে প্রডাকশন হাউজ প্রেক্ষাগৃহের ব্যানারে গানটির ভিডিও নির্মাণ করেছেন শাহরিয়ার পলক। মিউজিক ভিডিওতে নিলয় আলমগীর সালহা খানম নাদিয়ার অনবদ্য অভিনয় ছড়িয়েছে মুগ্ধতা আর রুনা লায়লার উপস্থিতি দিয়েছে পূর্ণতা।

প্রখ্যাত কণ্ঠশিল্পীর ৬৭তম জন্মবার্ষিকী ছিল গতকাল ১৭ নভেম্বর। পরিবারের সদস্য প্রিয়জনদের সঙ্গে দিনটি উদযাপন করেন তিনি। তার জন্মদিন উপলক্ষে স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিককে আপন কে পর গতকালের পর্বটি প্রচার করেছে রুনা লায়লাকে নিয়ে।

ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের ইউটিউব চ্যানেলে গানটি প্রকাশ হওয়ার পর থেকেই ভক্তরা ভালোবাসা জানাতে শুরু করেছেন। গানটির প্রশংসা করে তারা বিভিন্ন মন্তব্য করছেন।

ভক্তদের একজন লিখেছেন, এটাই হচ্ছে জাত শিল্পী, সুরের কাজগুলো সবাই রকম পারে না। অনেক দিন পর। এক কথায় অসাধারণ।

আরেকজন লিখেছেন, রুনা লায়লা ম্যাম নিজে গানের সুর করেছেন। গানটা শুনে অবাক লাগল। কি সুন্দর কাজ করেছেন উনি! উনার গায়কি নিয়ে তো কোনো কথাই নেই। সংগীত জগতের অনন্য সম্পদ, আমাদের গর্ব। ধুম ধাড়াক্কা গান তো অনেক শোনা যায়, কিন্তু এমন সুর তো এখন আর শোনা যায় না। রুনা লায়লা ম্যামকে অনেক শুভেচ্ছা।

গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত ইউটিউবে গানটি ২০ হাজার বার ভিউ হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন