মঙ্গলবার | ডিসেম্বর ১০, ২০১৯ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

শেয়ারবাজার

তিনটি সাবসিডিয়ারি কোম্পানি গঠন করবে এমআই সিমেন্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক

এমআই সিমেন্ট ফ্যাক্টরি লিমিটেডের মালিকানায় থাকা তিনটি মাদার ভেসেলকে কোম্পানিটির প্রত্যক্ষ ব্যবস্থাপনা থেকে আলাদা করে তিনটি স্বতন্ত্র সাবসিডিয়ারি কোম্পানির আওতায় আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোম্পানিটির পর্ষদ। এজন্য ওশান ভয়েজার শিপিং লাইনস লিমিটেড, ওশান ভিক্টরি শিপিং লাইনস লিমিটেড ও ওশান ভিশন শিপিং লাইনস লিমিটেড নামে তিনটি সাবসিডিয়ারি কোম্পানি গঠন করা হবে। মূল কোম্পানির ব্যয় সাশ্রয়ের পাশাপাশি শিপিং ব্যবসায় আরো অধিকতর মনোনিবেশ করার জন্য তিনটি মাদার ভেসেলকে তিনটি স্বতন্ত্র সাবসিডিয়ারির আওতায় আনার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে কোম্পানিটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

গতকাল স্টক এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে কোম্পানিটি জানিয়েছে, এমআই সিমেন্টের মালিকানা থেকে ওশান ভয়েজার শিপিং লাইনস লিমিটেডকে ৫৬ কোটি ৮৫ লাখ, ওশান ভিক্টরি শিপিং লাইনস লিমিটেডকে ৩৮ কোটি ৪৬ লাখ ও ওশান ভিশন শিপিং লাইনস লিমিটেডকে ৭০ কোটি ৬১ লাখ টাকায় সাবসিডিয়ারি কোম্পানির কাছে হস্তান্তর করা হবে। এর কারণ হিসেবে কোম্পানিটি বলছে, দেশের বাজারে সিমেন্ট উত্পাদন ও বিক্রি করাই হচ্ছে এমআই সিমেন্টের মূল ব্যবসা। অন্যদিকে শিপিং একটি বিশেষায়িত ব্যবসা, যেখানে বিশেষ ধরনের দক্ষতার প্রয়োজন রয়েছে। বর্তমানে শিপিং অপারেশনসের লাভ/ক্ষতি সিমেন্টের মূল ব্যবসার সঙ্গে একীভূতভাবে হিসাব করা হচ্ছে। স্বতন্ত্র কোম্পানি থাকলে আলাদা হিসাব বিবরণী থাকবে এবং এর মাধ্যমে আরো বেশি স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে। এর মাধ্যমে স্বতন্ত্রভাবে আলাদা নির্দেশকের মাধ্যমে কোম্পানির পরিচালন ও আর্থিক পারফরম্যান্স পরিমাপ করা সম্ভব হবে।

এদিকে চলতি ২০১৯-২০ হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে, আলোচ্য সময়ে এমআই সিমেন্টের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫৭ পয়সা, যা এর আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৪৭ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৪৮ টাকা ৮০ পয়সায়।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন