মঙ্গলবার | ডিসেম্বর ১০, ২০১৯ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

দেশের খবর

বুলবুলের ক্ষয়ক্ষতি মিরসরাইয়েও

বণিক বার্তা অনলাইন

মিরসরাইয়ে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে কোন প্রাণঘাতি না ঘটলেও ফসল ও সবজি ক্ষেতের ক্ষতি হয়েছে। জমিতে পানি জমে যাওয়ায় কাটা ফসল ডুবে গেছে। নুইয়ে পড়েছে ক্ষেতের ফসল, এছাড়া খেসারি ক্ষেতে পানি জমে গেছে। 

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছর মিরসরাইয়ে ২০ হাজার ৫০০ হেক্টর আমন ধান চাষ হয়েছে। এদের মধ্যে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ৭০০ হেক্টর ধান। ১১শত হেক্টর সবজি চাষ হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ৫০ হেক্টর। এছাড়া ৪০০ হেক্টর খেসারির মধ্যে ১০০ হেক্টর খেসারিতে পানি জমে গেছে। 

এদিকে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গিয়ে দেখা যায়, জমিতে কেটে রাখা পাকা ধানে পানি জমে গেছে। অনেক জমির ধান নুইয়ে পড়েছে। সরেজমিনে উপজেলা হিঙ্গুলী ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, বেশ কিছু জমির আধাপাকা ধান নুইয়ে পড়েছে। জমিতে পানি জমে আছে। 

ক্ষতিগ্রস্থ দিপক কুমার দে জানান, তিনি ১৫ শতক জমিতে আমন ধান চাষ করেছেন। কিছু ধান পেকে গেছে। তিনি কয়েকদিন আগে পাকা ধান কেটে জমিতে রেখেছেন। কিন্তু ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে সৃষ্টি হওয়া বৃষ্টিতে জমিতে পানি জমে গেছে। ফলে জমিতে থাকা পাকা ধান জমিতে পচে যাচ্ছে। 

উপজেলা উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা নুরুল আলম জানান, ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে মিরসরাইয়ে তেমন ক্ষতি হয়নি। তবে যে সকল ফসলি জমি ও সবজি ক্ষেত ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বৃষ্টি বন্ধ হয়ে পানি নেমে গেলে ক্ষতি পুষিয়ে যাবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন বলেন, সরকারের আন্তরিকতায় প্রবল ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবেলা করা সম্ভব হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে মিরসরাইয়ে কোন ক্ষতি হয়নি। তবে বৃষ্টির কারণে ফসলি জমি ও সবজি ক্ষেতের সামান্য ক্ষতি হতে পারে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন