বুধবার | নভেম্বর ২০, ২০১৯ | ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

খবর

শ্রমিক লীগের সভাপতি ফজলুল হক মন্টু, সম্পাদক আজম খসরু

বণিক বার্তা অনলাইন

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন জাতীয় শ্রমিক লীগের নতুন সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন ফজলুল হক মন্টু এবং সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন আজম খশরু। এছাড়াও সংগঠনটির কার্যকরী সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন মোল্লা আবুল কালাম আজাদ। 

আজ শনিবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সংগঠনটির সম্মেলনের উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর বেলা ৩টায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে দ্বিতীয় অধিবেশনে শ্রমিক লীগের নতুন এ নেতৃত্বের নাম ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

নতুন সভাপতি ফজলুল হক মন্টু সদ্য সাবেক কমিটির কার্যকরী সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন। আর সাধারণ সম্পাদক আজম খসরু ছিলেন প্রচার সম্পাদকের দায়িত্বে, আবুল কালাম আজাদ ছিলেন সহ সভাপতি।

সংগঠনটির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, প্রতি দুই বছর অন্তর সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচনের কথা থাকলেও টানা সাত বছর পার করছেন বর্তমান নেতৃত্ব। ২০১২ সালের ১৯ জুলাই শ্রমিক লীগের সর্বশেষ সম্মেলন হয়। ওই সম্মেলনে নারায়ণগঞ্জের শ্রমিক নেতা শুকুর মাহমুদ সভাপতি এবং জনতা ব্যাংক ট্রেড ইউনিয়নের নেতা সিরাজুল ইসলাম সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

১৯৬৯ সালের ১২ অক্টোবরে প্রতিষ্ঠিত জাতীয় শ্রমিক লীগ আগে আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন বলে বিবেচিত হতো। তবে নির্বাচন কমিশনের গণপ্রতিনিধিত্ব অধ্যাদেশ-২০০৮-এর বিধিমালা অনুযায়ী দলীয় গঠনতন্ত্র সংশোধন করায় শ্রমিক লীগ ও ছাত্রলীগ আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের মর্যাদা হারায়। অবশ্য সংগঠন দুটি ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের মর্যাদা পাচ্ছে এখনো।

দেশের বৃহৎ শ্রমিক সংগঠন শ্রমিক লীগের ৭৮টি জেলা ইউনিট ছাড়াও রয়েছে অনেক শাখা সংগঠন। রেলওয়ে শ্রমিক লীগ, বিদ্যুৎ শ্রমিক লীগ, বিএডিসি, ওয়াসা সিবিএ, বিসিআইসি, ঘাট শ্রমিক লীগ, চা-শ্রমিক লীগ, রিকশা-ভ্যান, মোটর-শ্রমিক, বাস পরিবহন, ট্রাক-লরি, ভূমিসহ বেশকিছু শ্রমিক সংগঠন জাতীয় শ্রমিক লীগের নিয়ন্ত্রণে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন