বুধবার | নভেম্বর ২০, ২০১৯ | ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

খবর

‘ভুয়া স্ক্রিনশট’ প্রচারে জাবি প্রেসক্লাবের প্রতিবাদ

বণিক বার্তা প্রতিনিধি, জাবি

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদ জানিয়েছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাব। জাবি প্রেসক্লাবের তিন সদস্যের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তৈরিকৃত স্ক্রিনশট ছড়িয়ে অপপ্রচার করা হচ্ছে দাবি করে সংগঠন থেকে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। 

শনিবার বেলা ১২টায় জাবি প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. মূসা ও সাধারণ সম্পাদক রাইয়ান বিন আমিন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ প্রতিবাদ জানানো হয়।

প্রতিবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শুক্রবার রাতে একব্যক্তি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের তিন সাংবাদিকের ছবি ও নাম ফটোশপ সফটওয়ারের মাধ্যমে যুক্ত করে কয়েকটি হোয়াট্সঅ্যাপ চ্যাটের অনুরূপ স্ক্রিনশট তৈরি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করেছে। যা বিচার বিশ্লেষণ ছাড়াই বেশ কয়েকজন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করেন। ওই সব উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তৈরিকৃত স্ক্রিনশট সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ। ওই সব স্ক্রিনশটের সাথে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের কোনো সদস্যের কোনোরূপ সংশ্লিষ্টতা নেই।

প্রতিবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে এ ধরনের মিথ্যা, বানোয়াট ও ষড়যন্ত্রমূলক অপপ্রচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়। একইসাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে এ ধরনের অপপ্রচার পরিচালনা থেকে বিরত থাকার অনুরোধ করা হয়।

প্রতিবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ‘শিবির’ সংশ্লিষ্টতা উল্লেখ করে গণমাধ্যমে প্রকাশিত এক সংবাদের প্রতিবাদ জানানো হয়। এতে বলা হয়, ‘ওই সংবাদে অভিযোগের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কোনো সাংবাদিকের সাথে যোগাযোগ করা হয়নি এবং তা সাংবাদিকতার নীতি পরিপন্থী । এছাড়া ওই গণমাধ্যম তাদের অনাকাঙ্ক্ষিত ভুলের কারণে দুঃখ প্রকাশ করেছে বলেও জানানো হয়।

জাবি প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. মূসা বলেন, ‘জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে নিরপেক্ষ সাংবাদিকতায় বিশ্বাসী। বিশ্ববিদ্যালয়ে চলমান আন্দোলনকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাব কখনোই প্রভাবিত করার চেষ্টা করেনি। কিন্তু একটি কুচক্রি মহল জাবি প্রেসক্লাবের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতেই এ অপচেষ্টা চালাচ্ছে। সংশ্লিষ্ট সকলকে এ বিষয়ে সতর্ক থাকার অনুরোধ করছি।’

এ বিষয়ে জাবি প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রাইয়ান বিন আমিন বলেন, ‘জাবি প্রেসক্লাব মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি হিসেবে কাজ করে আসছে। এই সংগঠনকে প্রশ্নবিদ্ধ করে জাবি প্রশাসনের দুর্নীতি বৈধ করার ষড়যন্ত্র এটি।’ 

এ ধরনের কলঙ্ক দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতাকে প্রশ্নবিদ্ধ ‘করার অপচেষ্টা চলছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন