বৃহস্পতিবার | নভেম্বর ২১, ২০১৯ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

টেলিকম ও প্রযুক্তি

ফাইভজি ব্যবহারকারীর অর্ধেকের বেশি ৪ দেশে

বণিক বার্তা ডেস্ক

 দেশে দেশে জনপ্রিয় হতে শুরু করেছে ফাইভজি নেটওয়ার্কের ধারণা এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র দক্ষিণ কোরিয়ায় সীমিত পরিসরে পঞ্চম প্রজন্মের নেটওয়ার্ক চালু হয়েছে চীনের ৫০টি বড় শহরে চালু করা হয়েছে ফাইভজি নেটওয়ার্ক চালুর দৌড়ে শামিল রয়েছে ইউরোপও ধারাবাহিকতায় পরবর্তী দশকে বিশ্বব্যাপী ফাইভজি বিপ্লব ঘটবে বলে মনে করছেন টেক জায়ান্টরা তবে ব্যবহারকারীর হিসাবে, ২০২৫ সাল নাগাদ যুক্তরাষ্ট্র, চীন, দক্ষিণ কোরিয়া জাপান চার দেশে বিশ্বের মোট ফাইভজি ব্যবহারকারীর অর্ধেকের বেশি অবস্থান করবে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে গবেষণা প্রতিষ্ঠান জিএসএমএ ইন্টেলিজেন্স খবর রয়টার্স

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০২৫ সাল নাগাদ চীনে ১৫৭ কোটি মানুষ ফাইভজি নেটওয়ার্কের আওতায় আসবে ৬০ কোটি ফাইভজি সংযোগ সক্রিয় থাকবে সংখ্যাটি দেশটিতে সম্মিলিত মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীর ১৮ শতাংশ

সময়ের মধ্যে ইউরোপ থেকে আমেরিকা, এশিয়া থেকে আফ্রিকায় ফাইভজির বিস্তার ঘটলেও ব্যবহারকারী বিবেচনায় এগিয়ে থাকবে চীনসহ চারটি দেশ গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পরবর্তী দশকের মাঝামাঝি সময়ে দক্ষিণ কোরিয়ার মোবাইল ব্যবহারকারীদের ৬৬ শতাংশ ফাইভজি ব্যবহার করবেন যুক্তরাষ্ট্র জাপানে হার দাঁড়াতে পারে যথাক্রমে ৫০ শতাংশ ৪৯ শতাংশে

এদিকে চীন সরকার এরই মধ্যে ছয়জি নেটওয়ার্ক নিয়ে আনুষ্ঠানিক গবেষণা শুরু করেছে বলে জানিয়েছে দেশটির গণমাধ্যম এজন্য চীন সরকার দেশটির গবেষণা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে একটি বৈঠক হয়েছে বৈঠকে পরবর্তী প্রজন্মের নেটওয়ার্ক নিয়ে গবেষণায় সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোকে সব ধরনের সহায়তা দেয়ার আশ্বাস দিয়েছে চীন সরকার যদিও বাণিজ্যযুদ্ধের কারণে চীনের আল্ট্রা-ফার্স্ট মোবাইল নেটওয়ার্কিং সেবা চালুর বিষয়টি এখনো অনিশ্চয়তার মধ্যে রয়েছে

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন