বৃহস্পতিবার | নভেম্বর ২১, ২০১৯ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

পণ্যবাজার

যুক্তরাষ্ট্রে দ্রুত বাড়ছে পাম অয়েলের বাজার

বণিক বার্তা ডেস্ক

পাম অয়েল ব্যবহারকারী দেশগুলোর শীর্ষ তালিকায় নবম স্থানে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। অভ্যন্তরীণ চাহিদা পূরণে পুরোটাই আমদানিনির্ভর দেশটি। দেশটির বাজারে অধিকাংশ পাম অয়েল আসে শীর্ষ দুই উৎপাদক দেশ মালয়েশিয়া ইন্দোনেশিয়া থেকে। ২০১৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রের পাম অয়েলের ব্যবহার ছিল ১৫ লাখ ৬৩ হাজার টন। এর বিপরীতে সময় দেশটির আমদানির পরিমাণ ছিল ১৫ লাখ ২৭ হাজার টন। অন্যদিকে ২০১৮ সালে দেশটিতে ভোজ্যতেলটির ব্যবহার ছিল ১৪ লাখ ৭৮ হাজার টন। বিপরীতে আমদানি ছিল ১৫ লাখ টন। পাম অয়েল আমদানি দ্রুত বৃদ্ধির ফলে শীর্ষ আমদানিকারকের তালিকায় ষষ্ঠ স্থানে জায়গা করে নিয়েছে দেশটি। উত্তরোত্তর পাম অয়েলের ব্যবহার বৃদ্ধির ফলে এখানে পণ্যটির বাজারও দ্রুত বাড়ছে। ব্যবসায়িক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান গ্রান্ড ভিউ রিসার্চের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রে পাম অয়েলের বাজার ছিল ৯৭ কোটি ৩৪ লাখ ৮০ হাজার কোটি ডলারের, যা বেড়ে গত বছর হয়েছে ১০৪ কোটি ৯৮ লাখ ৪০ হাজার ডলারের কাছাকাছি। প্রতিষ্ঠানটির প্রাক্কলন তথ্য অনুযায়ী, ২০২২ সালে দেশটিতে পাম অয়েলের বাজার হবে ১৪৮ কোটি ৪০ লাখ ৯০ হাজার ডলারের কাছাকাছি। অন্যদিকে অভ্যন্তরীণ চাহিদা পূরণের পর উল্লেখযোগ্য পরিমাণ পাম অয়েল রফতানি করে যুক্তরাষ্ট্র। রফতানিবিষয়ক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডটপ এক্সপোর্টারের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৮ সালে কোটি ২৮ লাখ ডলারের পাম অয়েল রফতানি করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এর মধ্যে দিয়ে রফতানিতে দেশটি ১৫তম স্থান দখল করে নিয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন