শনিবার | ডিসেম্বর ০৭, ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

শেয়ারবাজার

ইউনাইটেড পাওয়ারের ১২তম এজিএম অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিদ্যুৎ খাতের তালিকাভুক্ত কোম্পানি ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের (ইউপিজিডিসিএল) আর্থিক পারফরম্যান্স ভালো হওয়া সত্ত্বেও পুঁজিবাজারে এর শেয়ারের যথাযথ মূল্যায়ন হয়নি এমনকি ইউপিজিডিসিএলের তুলনায় পারফরম্যান্সে পিছিয়ে থাকা কোম্পানির শেয়ারদরও এর তুলনায় অনেক বেশি গতকাল ইউপিজিডিসিএলের ১২তম বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) কোম্পানিটির পর্ষদ সদস্য শেয়ারহোল্ডাররা এসব কথা বলেন

রাজধানীর গলফ গার্ডেনে অনুষ্ঠিত এজিএমে ইউপিজিডিসিএলের চেয়ারম্যান জেনারেল (অব.) মো. আব্দুল মুবিন, ব্যবস্থাপনা পরিচালক মঈনুদ্দীন হাসান রশীদ, শেয়ারহোল্ডার পরিচালক হাসান মাহমুদ রাজা, আবুল কালাম আজাদ, ফরিদুর রহমান খান, আখতার মাহমুদ রানা, মালিক তালহা ইসমাইল বারী, নাসিরউদ্দীন আখতার রশীদ, ওয়াসেকুল আজাদ, ফাহাদ খান নিজামউদ্দীন হাসান রশীদ, মনোনীত পরিচালক ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবুল হোসেন, স্বতন্ত্র পরিচালক লে. জে. (অব.) সিনা ইবনে জামালি, অধ্যাপক মোহাম্মদ মুসা . এম ফজল কবীর খান, প্রধান অর্থ কর্মকর্তা (সিএফও) মো. এবাদত হোসেন ভূঁইয়া, কোম্পানি সচিব বদরুল হক খানসহ সাধারণ শেয়ারহোল্ডাররা উপস্থিত ছিলেন

সভায় ইউপিজিডিসিএলের চেয়ারম্যান জেনারেল (অব.) মো. আব্দুল মুবিন বলেন, সদ্য সমাপ্ত হিসাব বছরে আমরা এর আগের বছরের তুলনায় বিভিন্ন আর্থিক নির্দেশকে ভালো করেছি আমাদের রাজস্ব বেড়েছে, মুনাফা বেড়েছে, পাশাপাশি ব্যয় নিয়ন্ত্রণ করেছি কিন্তু আমাদের এসব আর্থিক পারফরম্যান্সের কোনো প্রতিফলন কোম্পানি শেয়ারদরে দেখা যাচ্ছে না এক্ষেত্রে পুঁজিবাজার ইউপিজিডিসিএলের যথাযথ মূল্যায়ন করতে পারেনি বলেই আমি মনে করি

ইউপিজিডিসিএলের উদ্যোক্তা পরিচালক হাসান মাহমুদ রাজা বলেন, একসময় যখন আমাদের আয় কম ছিল, তখন কিন্তু কোম্পানির শেয়ারদর বর্তমানের তুলনায় বেশি ছিল অথচ এখন আমাদের আয় বাড়া সত্ত্বেও শেয়ারদর কমে গেছে এটি আমাদের জন্য অস্বস্তিকর শেয়ারদরে যথাযথ মূল্যায়ন না হলে মার্জারের ক্ষেত্রে সমস্যায় পড়তে হয় ইউপিজিডিসিএলের দায়দেনা নেই বললেই চলে ভবিষ্যতেও আমাদের প্রচেষ্টা থাকবে যাতে ঋণ ছাড়াই কোম্পানির প্রবৃদ্ধি বাড়ানো যায়


এজিএমে শেয়ারহোল্ডাররা তাদের বক্তব্যে কোম্পানির বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন তারা কোম্পানি ধারাবাহিক প্রবৃদ্ধির প্রশংসা করে ভবিষ্যতেও যাতে এটি অব্যাহত থাকে সেদিকে খেয়াল রাখার অনুরোধ জানান সময় শেয়ারহোল্ডাররা পুঁজিবাজারে যাতে ইউপিজিডিসিএলের মতো কোম্পানি আরো বেশি করে তালিকাভুক্ত হয়, সেজন্য নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনকে (বিএসইসি) উদ্যোগ নেয়ার আহ্বান জানান

এজিএমে ৩০ জুন সমাপ্ত ২০১৯ হিসাব বছরের পরিচালকমণ্ডলীর প্রতিবেদন, নিরীক্ষিত আর্থিক বিবরণী, নিরীক্ষকদের প্রতিবেদন, পরিচালনা পর্ষদ কতর্তৃক ৩০ জুন সমাপ্ত ২০১৯ হিসাব বছরের জন্য সুপারিশকৃত লভ্যাংশ, পরিচালক পুনর্নির্বাচন, লাখ টাকা সম্মানীর বিনিময়ে কাশেম অ্যান্ড কোম্পানি চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টসকে নিরীক্ষক হিসেবে নিয়োগ এবং করপোরেট গভর্ন্যান্স কোড পরিপালন সনদ প্রদানের জন্য কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্টস প্রতিষ্ঠান পোদ্দার অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েসটসকে ৫০ হাজার টাকা সম্মানীর বিনিময়ে নিয়োগের বিষয়টি শেয়ারহোল্ডাররা অনুমোদন করেছেন

উল্লেখ্য, ৩০ জুন সমাপ্ত ২০১৯ হিসাব বছরে কোম্পানিটির সম্মিলিত আয় হয়েছে হাজার ১২৫ কোটি টাকা এককভাবে আয় হয়েছে ৬৪৭ কোটি টাকা, যা আগের হিসাব বছরে ছিল ৬১৪ কোটি টাকা আলোচ্য হিসাব বছরে সম্মিলিতভাবে কোম্পানিটির কর-পরবর্তী মুনাফা হয়েছে ৭৮৫ কোটি টাকা এককভাবে মুনাফা হয়েছে ৪৮০ কোটি টাকা, যা আগের হিসাব বছরে ছিল ৪৫৯ কোটি টাকা

গত হিসাব বছরে কোম্পানিটির সম্মিলিত শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৬ টাকা পয়সা একক ইপিএস হয়েছে ১০ টাকা পয়সা, যা আগের হিসাব বছরে ছিল টাকা ৫৯ পয়সা ৩০ জুন সম্মিলিতভাবে শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৬২ টাকা ৮০ পয়সা, এককভাবে যা ৩৬ টাকা ৫৩ পয়সা সর্বশেষ সমাপ্ত হিসাব বছরে শেয়ারহোল্ডারদের মোট ১৪০ শতাংশ লভ্যাংশ দিয়েছে ইউপিজিডিসিএলের পরিচালনা পর্ষদ এর মধ্যে ১৩০ শতাংশ নগদ ১০ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ

ডিএসইতে গতকাল ইউপিজিডিসিএলের শেয়ারের সর্বশেষ দর ছিল ২৬৯ টাকা ৯০ পয়সা গত এক বছরে শেয়ারটির সর্বনিম্ন সর্বোচ্চ দর ছিল যথাক্রমে ২৫২ টাকা ৫০ পয়সা ৪২২ টাকা ৫০ পয়সা

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন