শুক্রবার | ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

খেলা

টি২০ সিরিজ শুরু আগামীকাল

না থেকেও আছেন সাকিব

ক্রীড়া প্রতিবেদক

তিন ম্যাচ টি২০ ও টেস্ট সিরিজে অংশ নেয়ার জন্য ভারত সফরে আছে বাংলাদেশ দল। আইসিসির নিষেধাজ্ঞার কারণে এই প্রথমবারের মতো পূর্ণাঙ্গ ভারত সফরে নেই বাংলাদেশ টি২০ ও টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। দলের সঙ্গে না থেকেও যেন আছেন সাকিব। বিশ্বের অন্যতম সেরা এ অলরাউন্ডারকে নিয়ে আলোচনা সর্বত্রই। প্রায় প্রতিটা সংবাদ সম্মেলনেই সাকিবের না থাকার বিষয়টা উঠে আসছে। সাকিবকে নিয়ে প্রশ্নবাণে জর্জরিত হতে হচ্ছে বাংলাদেশ কোচ ও প্লেয়ারদের। শুধু বাংলাদেশ শিবিরেই নয়, ভারতীয় এক্সপার্টদের মতামতেও একটা বড় অংশজুড়ে থাকছেন সাকিব। এমনই অবস্থায় আগামীকাল ভারতের সঙ্গে টি২০ ম্যাচ দিয়ে সিরিজ শুরু করছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ।

সাকিবের অভাব তীব্রভাবে অনুভব করবেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। তার কথায়, ‘যে কেউ সাকিবকে মিস করবে। সে অসাধারণ একজন অলরাউন্ডার। সে (সাকিব) বিশেষ কিছু করবে, এ বিশ্বাস নিয়ে দলের সবাই তার দিকে তাকিয়ে থাকে। স্বাভাবিকভাবেই তার না থাকাটা দলের জন্য খুব বড় ক্ষতি।

সাকিবের নিষেধাজ্ঞাকে দুর্ভাগ্যজনক বলে উল্লেখ করেছেন ভারতের ব্যাটিং কোচ বিক্রম রাঠোর। গতকাল গণমাধ্যমে এ-সংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, ‘সাকিবের ঘটনাটি খুবই দুর্ভাগ্যজনক। ক্রিকেটে এমন ঘটনা যেন আর দেখতে না হয়। সাকিবের না থাকার প্রভাব সম্পর্কে তার ভাষ্য, ‘সেরা ক্রিকেটারদের না থাকাটা অবশ্যই ম্যাচে একটা পার্থক্য গড়ে দেয়। তবে টি২০ এমন একটা ফরম্যাট, যেখানে কারো অভাব খুব একটা অনুভব করা যায় না। আর বাংলাদেশ অনেকদিন ধরেই টি২০ খেলছে। আমি মনে করি বেশ কয়েকজন ভালো ক্রিকেটার রয়েছে দলটিতে। আমি নিশ্চিত বাংলাদেশ তাদের সেরাটা দিয়েই খেলবে।

বড় ধরনের ঘাটতি নিয়েই ভারত সফর করছে বাংলাদেশ। শুধু সাকিবই নয়, এ সফরে নেই দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। ইনজুরির কারণে সফর থেকে ছিটকে গেছেন বিশ্বকাপে প্রতিশ্রুতির স্বাক্ষর রাখা মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। তার পরও বাংলাদেশকে যথেষ্ট সমীহই করছে ভারত। তাদের কোচ রাঠোর বলেছেন, ‘বাংলাদেশের বিপক্ষে আমাদের সেরাটা দিয়েই খেলতে হবে। এখনকার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অনেক বেশি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ। আর এ সিরিজকে আমরা বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবেই দেখছি।

এদিকে স্বাগতিক ভারতকে হারানোর সুযোগ আছে বাংলাদেশের বলে জানিয়েছেন ভারতের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান ভিভিএস  লক্ষ্মণ। ভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেল স্টার স্পোর্টসেরগেম প্ল্যান অনুষ্ঠানে সাবেক এ গ্রেট ব্যাটসম্যান বলেছেন, ভারতের মাটিতে ভারতকে হারানোর জন্য এটাই বাংলাদেশের সেরা সুযোগ। কেননা বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ে বেশ গভীরতা রয়েছে। তবে ভালো করার জন্য বোলিং বিভাগে মুস্তাফিজুর রহমানকে ভালোভাবে দায়িত্ব নিতে হবে বলেও জানান লক্ষ্মণ। সিরিজের ফল নিয়ে তার পর্যবেক্ষণ, আমি মনে করি ভারতের জন্য এটা কঠিন সিরিজ হতে যাচ্ছে। তবে ব্যাটিংয়ে এগিয়ে থাকার জন্য সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিততে পারে ভারত।

সাকিবের না থাকাকে বড় ধাক্কা হিসেবে উল্লেখ করলেও নিজেদের সেরাটা দিয়ে সিরিজ প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ করে তোলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ওপেনার লিটন কুমার দাস। তিনি বলেছেন, ‘সাকিবের না থাকাটা আমাদের দলের জন্য খুব বড় একটা ক্ষতি। কারণ তিনি বাংলাদেশের সর্বকালের সেরা অলরাউন্ডার। তবে আমাদের এখন সিরিজের দিকে মনোযোগী হতে হবে। মনে রাখতে হবে সাকিব কিন্তু টানা খেলেননি। গত বছর এশিয়া কাপে তাকে ছাড়াই আমরা ফাইনাল খেলেছি। ২০১৮ সালে প্রায় ছয় মাস তিনি মাঠের বাইরে ছিলেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন