বৃহস্পতিবার | নভেম্বর ২১, ২০১৯ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

দেশের খবর

কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়

প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বে ৩৩ পরীক্ষার্থী

বণিক বার্তা প্রতিনিধি ময়মনসিংহ

ময়মনসিংহের ত্রিশালে অবস্থিত জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক শ্রেণীতে ভর্তিচ্ছুদের আবেদন প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে গত ৩১ অক্টোবর রাত ১২টায়। এ বছর বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঁচটি ইউনিটে ১ হাজার ৬০টি আসনের বিপরীতে অনলাইনে আবেদন জমা পড়েছে ৩৪ হাজার ৮২২টি। সে হিসাবে ১৭ নভেম্বর থেকে পাঁচ দিনব্যাপী অনুষ্ঠেয় এ ভর্তি পরীক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বে ৩৩ জন পরীক্ষার্থী।

গতকাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষাসংক্রান্ত উপকমিটির সভাপতি সহযোগী অধ্যাপক মো. সুজন আলী এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষায় পাঁচটি ইউনিটের আওতায় ২৩টি বিভাগে ১ হাজার ৬০টি আসনের বিপরীতে আবেদন জমা পড়েছে ৩৪ হাজার ৮২২টি। এর মধ্যে ইউনিটে ১৫০ আসনের বিপরীতে ৬ হাজার ৯৮৮, ‘বি ইউনিটে ১৬০ আসনের বিপরীতে ৮ হাজার ৮৫৯, ‘সি ইউনিটে ২০০ আসনের বিপরীতে ৫ হাজার ১৮৯, ‘ডি ইউনিটে ৪০০ আসনের বিপরীতে ১২ হাজার ১০ জন এবং ইউনিটে ১৪৫ আসনের বিপরীতে ১ হাজার ৭৭৬ জন ভর্তিচ্ছু আবেদন করেছে। সে অনুযায়ী, এবার ভর্তি পরীক্ষায় বি ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে সবচেয়ে বেশি শিক্ষার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ৪৭ জন, ‘বি ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ৫৫ জন, ‘সি ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ২৬ জন, ‘ডি ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ৩০ জন এবং ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ১২ জন ভর্তিচ্ছু লড়বে।

ভর্তি পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, এতদিন কেবল এমসিকিউ পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেয়া হলেও এ বছর ভর্তি পরীক্ষা হবে নতুন নিয়মে। এবারই প্রথম এমসিকিউর পাশাপাশি থাকবে লিখিত পরীক্ষাও। নতুন পদ্ধতিতে দেড় ঘণ্টায় ১০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এমসিকিউ অংশের ৭৫ নম্বর এবং লিখিত ২৫ নম্বরের উত্তর করতে হবে ভর্তিচ্ছুদের। এমসিকিউ অংশে ৭৫ নম্বরের মধ্যে যারা ন্যূনতম ৩০ নম্বর এবং কোটার ক্ষেত্রে ২৫ পাবে, কেবল তাদেরই লিখিত পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন করা হবে।

লিখিত অংশে ২৫ নম্বরের মধ্যে ন্যূনতম ১০ নম্বর এবং কোটার ক্ষেত্রে ৮ নম্বর পেতে হবে। এমসিকিউ ৭৫ নম্বরের পরীক্ষায় প্রতিটি প্রশ্নের নম্বর ১ তবে প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা যাবে।

ইউনিটের ক্ষেত্রে ৫০ নম্বর ব্যবহারিক পরীক্ষায় ন্যূনতম ২০ নম্বর ও কোটার ক্ষেত্রে ১৭ নম্বর পেতে হবে। এমসিকিউর পাশাপাশি লিখিত পরীক্ষা থাকায় প্রতিটি ইউনিটে ভর্তির আবেদন ফি বাড়ানো হয়েছে এবং আগের চেয়ে ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের যোগ্যতাও বাড়ানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, পাঁচটি ইউনিটের মধ্যে ১৭ নভেম্বর ইউনিট, ১৮ নভেম্বর বি ইউনিট, ১৯ নভেম্বর সি ইউনিট, ২০ নভেম্বর ডি ইউনিট এবং ২১ নভেম্বর ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিটি ইউনিটের ক্ষেত্রে আবেদন ফি ধরা হয়েছিল ৮১০ টাকা। ভর্তি পরীক্ষাসংক্রান্ত যাবতীয় তথ্যাদি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (www.jkkniu.edu.bd) পাওয়া যাবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন