শুক্রবার | ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

খবর

ছাদ বাগানের গাছ কেটে ভাইরাল সেই নারী আটক

নবনির্মিত একটি বাসার ছাদে এক ফ্লাটের বাসিন্দার লাগানো গাছ কাটছেন অন্য ফ্লাটের এক নারী। এমন ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। সাভারের এই ঘটনায় মামলা দায়ের করেন পরিবেশবাদীরা। সেই নারীকে আটক করেছে সাভার মডেল থানা পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, আজ বুধবার (২৩ অক্টোবর) দুপুরে ওই নারীকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। খালেদা আক্তার লাকি (৪৫) নামে ওই নারী শত্রুতাবশত নাকি অন্য কোন কারণে নির্মমভাবে গাছগুলো কেটেছেন তা জানতেই তাকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ওই নারীকে আটকের সময় উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিকরাও। এসময় ওই নারী বলেন, ‘আমাকে এই গাছ নিয়ে বিভিন্ন সময় হুমকি ধামকি দেয়া হয়েছে।’

পরে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন তিনি অনুতপ্ত কি না, জবাবে তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ অনুতপ্ত, প্রয়োজনে আমি তাদের কাছে গিয়ে মাফ চেয়ে আসবো। আমিতো ক্ষোভের বশে এটা করেছি। রাগ থেকে এটা করে ফেলেছি।’

এর আগে মঙ্গলবার রাতে গাছ কেটে ফেলার ভিডিও ফেসবুকে পোস্ট করেন সুমাইয়া হাবিব নামে ভুক্তভোগী নারী। ভিডিওতে দেখা যায়, ওই নারী দা হাতে সুমাইয়ার মায়ের তৈরি করা ছাদবাগানের সব গাছ কেটে ফেলছেন। তিনি বারবার তাকে থামতে বললেও, থামছিলেন না লাকি। এমনকি একপর্যায়ে সুমাইয়াকে দা দিয়ে আঘাত করতেও উদ্যত হন লাকি।

সুমাইয়া তার পোস্টে লিখেছেন, ‘কখনো কি শুনছেন মানুষ গাছ অপছন্দ করে? গাছ পরিবেশ নষ্ট করে? এই নারীর গাছ পছন্দ না। তার বক্তব্য আমাদের গাছ ছাদের পরিবেশ নষ্ট করে ফেলছে। তাই এই নারী আমাদের সব গাছ কেটে ফেলছে। কি অপরাধ ছিল গাছের? কি অপরাধ ছিল? কেউ বলতে পারবেন? আমার মা গাছ অনেক পছন্দ করে, তাই ছাদের এক কোণায় আমরা কিছু গাছ লাগিয়েছিলাম। আর, এই নারী আমাদের সঙ্গে শত্রুতা করে আমাদের লাগানো গাছগুলো কেটে ফেললো।’ 

সুমাইয়ার ভিডিও পোস্টের পর লাকির ছেলে লিখন ফেসবুক লাইভে এসে নিজেদের নির্দোষ দাবি করেন। তিনি বলেন, ‘এক মাস আগে এই গাছগুলো নিয়ে একধরনের বিবাদ তৈরি। কেউ একজন গাছে পাতা ছিড়েছে বা ডাল ভেঙেছে এজন্য প্রত্যেক ফ্লাটে গিয়ে ওনারা অভিযোগ করে এসেছেন। এসব নিয়ে ফ্ল্যাট মালিকদের একটি মিটিং হয়। সেখান থেকে সিদ্ধান্ত হয় তাদের গাছগুলো সরিয়ে ফেলতে হবে। কিন্তু তারা সেগুলো সরাননি। এগুলো তাদের ব্যক্তিগতগাছ। শাকসবজি, তরকারির গাছ। এগুলো তো সৌন্দর্যবর্ধনের গাছও না। আপনারা ভিডিওটা দেখেই বিচার করছেন। ভিডিওর আগে-পরে কিছু না জেনে আমাকে আর আমার আম্মুকে গালিগালাজ করছেন- এটা ঠিক হচ্ছে না।’

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন