শনিবার | নভেম্বর ২৩, ২০১৯ | ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

টকিজ

জোলি কি জোকারকে পেছনে ফেলতে পারবেন?

ফিচার ডেস্ক

বক্স অফিসে জোকার শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী পেতে যাচ্ছে আজ। অ্যাঞ্জেলিনা জোলি অভিনীত মেলেফিসেন্ট: মিসট্রেস অব ইভল মুক্তি পাচ্ছে আজ। জোকার এরই মধ্যে মুক্তির দুটো ব্যবসাসফল সপ্তাহ পার করেছে। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ছবিটি দুনিয়াব্যাপী ৫০ কোটি মার্কিন ডলারের বেশি আয় করেছে। জোকিন ফিনিক্স ছবিতে অপরাধের ক্লাউন প্রিন্স হয়েছেন। জোকারের আকর্ষণে দর্শকরা অন্য ছবিতে মনোযোগ দেননি বললেই চলে। তাই বক্স অফিসেও জোকারের জয়জয়কার। এমনকি গত সপ্তাহে মুক্তি পাওয়া উইল স্মিথ অভিনীত জেমিনি ম্যানও জোকারের প্রতি দর্শকদের আকর্ষণ কমাতে পারেনি

কিন্তু এবার কি জোকারের অগ্রযাত্রা থামতে যাচ্ছে?

ভ্যারাইটির পর্যবেক্ষণ বলছে আজ মেলেফিসেন্ট: মিসট্রেস অব ইভল মুক্তি পাওয়ার পর ছবিটি জোকারের ঘুম হারাম করে দেবে। ২০১৪ সালের মেলেফিসেন্টের সিক্যুয়ালের সঙ্গে মুক্তি পাচ্ছে জোম্বিল্যান্ড: ডাবল ট্যাপ ও জোজো র্যাবিট। ধারণা করা হচ্ছে, মুক্তির দিন মেলেফিসেন্ট: মিসট্রেস অব ইভল সাড়ে ৪ কোটি ডলার উপার্জন করবে। যদিও এটা জোকারের আয়ের তুলনায় কম, কিন্তু ব্যবসার বিবেচনায় ভালোই বলতে হবে।

ভ্যারাইটি আরো জানিয়েছে, জোকার ঠিক যত হলে মুক্তি পেয়েছিল, মেলেফিসেন্ট: মিসট্রেস অব ইভলও প্রায় তত হলে মুক্তি পাবে। তাই আজ যে জোলির ছবিটি ভালোই ব্যবসা করবে, সেটা ধারণা করা অমূলক নয়। মিসট্রেস অব ইভল যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে ৩ হাজার ৭০০ থিয়েটারে প্রদর্শিত হবে। জোকারের ক্ষেত্রে সংখ্যাটি ছিল ৪ চার হাজার ৩৭৪টি।

 

এখন প্রশ্ন হচ্ছে, মেলেফিসেন্ট: মিসট্রেস অব ইভল কি জোকারকে হটিয়ে বক্স অফিসে শীর্ষস্থানটি নিয়ে নিতে পারবে?

জোকার যুক্তরাষ্ট্র ও আন্তর্জাতিক বাজারসবখানেই সফল। ওয়ার্নার ব্রসের জন্য জোকার সোনার ডিম পাড়া হাঁসে পরিণত হয়েছে। মিসট্রেস অব ইভলের আছে তারকাদের শক্তিঅ্যাঞ্জেলিনা জোলি, মিচেল ফাইফার ও এলি ফ্যানিং আছেন মূল চরিত্রগুলোয়, সঙ্গে থাকবে ডিজনির ম্যাজিক। পর্যবেক্ষকরা বলছেন, অনেক দিন পর হলিউড দারুণ এক বক্স অফিস লড়াই দেখতে যাচ্ছে।

 

সূত্র: কোলাইডার

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন