শনিবার | নভেম্বর ২৩, ২০১৯ | ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

টেলিকম ও প্রযুক্তি

প্রত্যাশাকেও ছাড়িয়ে গেছে টিএসএমসির মুনাফা

বণিক বার্তা ডেস্ক

স্মার্টফোনের বাজারে মন্দা এবং চীন-মার্কিন বাণিজ্য বিরোধের মধ্যেও প্রত্যাশার চেয়ে বেশি মুনাফা করেছে তাইওয়ানভিত্তিক সেমিকন্ডাক্টর প্রস্তুতকারক কোম্পানি টিএসএমসি। গতকাল কোম্পানির পক্ষ থেকে জানানো হয়, চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিকের মুনাফা আগের প্রান্তিকের চেয়ে ১৩ দশমিক ৫ শতাংশ বেশি হয়েছে। ২০১৭ সালের পর এটিই কোম্পানিটির সর্বোচ্চ মুনাফা। খবর রয়টার্স।

টিএসএমসির প্রতিবেদন অনুযায়ী, বছরের শেষ নাগাদের কেনাকাটার মৌসুমের জন্য হাইএন্ড স্মার্টফোন প্রস্তুত এবং পঞ্চম প্রজন্মের মোবাইল নেটওয়ার্ক প্রযুক্তি ফাইভজি চিপের চাহিদা বেড়ে যাওয়ার কারণেই মুনাফায় এ উল্লম্ফন। মূলত এ দুটি কারণেই বিশ্বের বৃহত্তম চুক্তিভিত্তিক চিপ নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি চীন-মার্কিন বাণিজ্য বিরোধে সৃষ্ট ব্যবসায়িক অনিশ্চয়তা উতরে গেছে।

টিএসএমসির চিপের প্রধান ক্রেতার মধ্যে রয়েছে মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অ্যাপল ও কোয়ালকম, চীনা হুয়াওয়ে এবং দক্ষিণ কোরীয় স্যামসাংয়ের মতো প্রতিষ্ঠান। কোম্পানির হিসাবে জুলাই-সেপ্টেম্বর প্রান্তিকে মুনাফা হয়েছে ৩৩০ কোটি ডলার বা ১০ হাজার ১০৭ কোটি তাইওয়ানি ডলার। রেফিনিটিভের তথ্য অনুযায়ী, অন্তত ২০ জন বিশ্লেষক যেখানে কোম্পানিটির মুনাফার পূর্বাভাস দিয়েছিলেন ৯ হাজার ৬৩৩ কোটি তাইওয়ানি ডলার।

তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানির রাজস্ব এসেছে প্রত্যাশার চেয়ে ১০ দশমিক ৭ শতাংশ বেশি। টিএসএমসি তাদের রাজস্ব প্রাক্কলন করেছিল ৯১০ থেকে ৯২০ কোটি ডলার। সেখানে রাজস্ব এসেছে ৯৪০ কোটি ডলার।

বিশ্লেষকরা বলছেন, বছরের শেষ কেনাকাটার মৌসুমকে সামনে রেখে অ্যাপল, স্যামসাংসহ প্রায় সব শীর্ষ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানই নতুন স্মার্টফোন উন্মোচন করেছে, পাশাপাশি ফাইভজি ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার (এআই) মতো নতুন প্রযুক্তির চাহিদা বাড়ছে। এ পরিস্থিতিতে টিএসএমসির হাইপারফরম্যান্স চিপ যাকে বলা হচ্ছে ৭ ন্যানোমিটার চিপ, এটির চাহিদা সামনে আরো বাড়বে। ফলে কোম্পানির আয় ও মুনাফা আরো বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশের আগেই অবশ্য এ ধরনের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন স্যানফোর্ড সি বার্নস্টেইনের বিশ্লেষক মার্ক লি। তিনি বলেন, কোম্পানিটির এ শক্তিশালী অবস্থান আমাদের এ মতকেই সমর্থন দিচ্ছে, ফাইভজির কারণে টিএসএমসির উচ্চক্ষমতার চিপের চাহিদা আরো বাড়িয়ে দেবে।

এদিকে স্যামসাং ও হুয়াওয়ে এরই মধ্যে ফাইভজি স্মার্টফোনের বাজার ধরতে কঠিন প্রতিযোগিতায় অবতীর্ণ হয়েছে। বিদ্যমান ফোরজি মোবাইল ইন্টারনেটের ১০০ গুণ গতিসম্পন্ন এ প্রযুক্তি সমর্থিত স্মার্টফোন তৈরিতে অ্যাপল ও হুয়াওয়ের হাইসিলিকন চিপের চাহিদা টিএসএমসির জন্য আরো বড় সুবিধা এনে দেবে। ফলে চতুর্থ প্রান্তিকেও কোম্পানিটির মুনাফার এ গতি অব্যাহত থাকবে বলে মনে করেন মার্ক লি।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন