বৃহস্পতিবার | নভেম্বর ২১, ২০১৯ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

আন্তর্জাতিক ব্যবসা

বাজারে ২ হাজার ৮০০ কোটি ডলার নগদ প্রদান চীনের

বণিক বার্তা ডেস্ক

মিডিয়াম-টার্ম লেন্ডিং ফ্যাসিলিটি (এমএলএফ) হিসেবে অর্থবাজারে ২০ হাজার কোটি ইউয়ান বা হাজার ৮০০ কোটি ডলার ছেড়েছে দ্য পিপলস ব্যাংক অব চায়না (পিবিওসি) সুদহার স্থিতিশীল রাখতে পদক্ষেপ নিয়েছে চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংকটি। সরকারের গৃহীত পদক্ষেপে কিছুটা অবাক হয়েছেন ব্যবসায়ীরা। কারণ এর আগে বকেয়া ঋণ শোধে সাধারণত নতুন অর্থপ্রবাহ করা হতো। খবর ব্লুমবার্গ।

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে প্রলম্বিত বাণিজ্যযুদ্ধ শ্লথগতির দেশীয় অর্থনীতিতে চলতি বছর ব্যাংকটির রিজার্ভ রেশিও কমানোর পাশাপাশি করপোরেট সুদহার কমানোর মাধ্যমে মুদ্রানীতি শিথিল করতে বাধ্য হয়েছে চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক। চলতি সপ্তাহে প্রকাশিত উপাত্তে দেখা গেছে, চীনের মূল্যসংকোচন বেড়েছে এবং গত মাসে আমদানি রফতানি হ্রাস পেয়েছে।

নগদ অর্থপ্রবাহ বৃদ্ধির বিষয়ে স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ডের চায়না ম্যাক্রো স্ট্র্যাটেজি প্রধান বেকি লিয়ু বলেন, বাজার এমনটা প্রত্যাশা করেনি। অক্টোবরের মাঝামাঝিতে কর প্রদান মৌসুমে পর্যাপ্ত অর্থপ্রবাহ নিশ্চিতে তারা হয়তো আশা করেছিলেন দীর্ঘমেয়াদি অর্থপ্রবাহ করা হবে।

আগামী শুক্রবার তৃতীয় প্রান্তিকের জিডিপি উপাত্ত প্রকাশ করতে যাচ্ছে চীন। সর্বশেষ প্রান্তিকে চীনের দশমিক ১০ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জিত হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। যদি এমনটা হয়, তাহলে তা হবে ১৯৯২ সালের পর সবচেয়ে শ্লথগতির প্রবৃদ্ধি।

আগামী মাসের শুরুতে এমএলএফের ৪০ হাজার কোটি ইউয়ান যুক্ত হচ্ছে, যা সুদহার কমাতে অর্থ ব্যবস্থায় অধিক অর্থ প্রবেশে পিবিওসিকে সহায়তা করবে।

গত মাসের শেষের দিকে পরিচালিত ব্লুমবার্গের এক জরিপের ভিত্তিতে মধ্যমেয়াদি পূর্বাভাসে বলা হয়, চলতি বছরের শেষ নাগাদ সুদহার ১০ বেসিস পয়েন্ট কমিয়ে দশমিক ২০ শতাংশ নির্ধারণ করতে পারে পিবিওসি।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন