বৃহস্পতিবার | নভেম্বর ১৪, ২০১৯ | ৩০ কার্তিক ১৪২৬

খবর

সন্ত্রাস ও সাম্প্রদায়িকতা রুখে দেওয়ার শপথ বুয়েটে

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় চলমান আন্দোলনের শেষ দিনে ‘সব ধরনের সন্ত্রাস ও সাম্প্রদায়িক অপশক্তি রুখে দেওয়ার’ শপথ নিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

বুধবার বেলা সোয়া ১টার দিকে বুয়েট মিলনায়তনে এই শপথ অনুষ্ঠান হয়। এসময় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে শপথ বাক্য পাঠ করেন বুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক সাইফুল ইসলামসহ বিভিন্ন হলের প্রভোস্টরা। তবে দর্শক সারিতে বেশ কয়েকজন শিক্ষক উপস্থিত থাকলেও তারা শপথে অংশ নেননি।

এর আগে গতকালই বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারে ‘শপথ নেওয়ার’ মাধ্যমে মাঠ পর্যায়ের আন্দোলন স্থগিত করার ঘোষণা দেন শিক্ষার্থীরা। সে অনুযায়ী আজ বুধবার বেলা ১১টার দিকে শিক্ষার্থীরা মিলনায়তনে জড়ো হতে থাকেন। বেলা সোয়া ১টার দিকে শপথ অনুষ্ঠান হয়।

শপথ শুরুর আগে বুয়েটের নিহত শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এরপর শপথ পড়ান বুয়েটের ১৭ তম ব্যাচের ছাত্রী রাফিয়া রিজওয়ানা।


শপথবাক্যে শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘এ বিশ্বববিদ্যালয় সকল প্রকার সন্ত্রাস ও সাম্প্রদায়িক অপশক্তির উত্থানকে আমরা সম্মিলিতভাবে রুখে দেব।’ 

একই সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় আঙিনায় সব ধরনের অন্যায়, অবিচার ও বৈষম্যের বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকারও শপথ নেন বুয়েট পরিবারের সদস্যরা। শপথে তারা বলেন, ‘এই আঙ্গিনায় যেন আর কোনো নিষ্পাপ প্রাণ ঝরে না যায়, আর কোনো নিরপরাধ কেউ অত্যাচারের শিকার না হয়, তা আমরা সবাই মিলে নিশ্চিত করব। নৈতিকতার সঙ্গে অসামঞ্জস্যপূর্ণ সব ধরনের বৈষম্যমূলক অপসংস্কৃতি এবং ক্ষমতার অপব্যবহার আমরা সমূলে উৎপাটিত করব।’ 

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন