বৃহস্পতিবার | নভেম্বর ১৪, ২০১৯ | ৩০ কার্তিক ১৪২৬

আন্তর্জাতিক ব্যবসা

তুরস্কের কাছে অস্ত্র রফতানি বন্ধ জার্মানি ও ফ্রান্সের

বণিক বার্তা ডেস্ক

সিরিয়ায় কুর্দি মিলিশিয়া ওয়াইপিজির বিরুদ্ধে সেনা অভিযানের পরিপ্রেক্ষিতে তুরস্কের কাছে অস্ত্র রফতানি বন্ধ করেছে জার্মানি ও ফ্রান্স। খবর সিএনবিসি।

সিরিয়া থেকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণার পর গত

বুধবার সামরিক অভিযান শুরু করে তুরস্ক। ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গিদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে গুরুত্বপূর্ণ মার্কিন মিত্র ছিল কুর্দি যোদ্ধারা।

সামরিক অভিযানের পরিপ্রেক্ষিতে তুরস্কের ওপর সম্ভাব্য নিষেধাজ্ঞার হুঁশিয়ারি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)

ইইউর দুই প্রধান শক্তি তুরস্কের বিরুদ্ধে প্রথম পদক্ষেপ গ্রহণ করে। জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাইকো ম্যাস বলেন, সিরিয়ায় সেনা অভিযানের পরিপ্রেক্ষিতে সেখানে অস্ত্র ব্যবহারের শঙ্কায় তুরস্কের কাছে অস্ত্র বিক্রি করবে না জার্মান সরকার।

শনিবার ফ্রান্সও জানায়, তুরস্কের কাছে তারা সব ধরনের অস্ত্র বিক্রি স্থগিত করছে এবং আঙ্কারাকে সতর্ক করে প্যারিস জানায়, উত্তর সিরিয়ায় সেনা অভিযান ইউরোপীয় নিরাপত্তাকে হুমকিতে ফেলেছে।

সোমবার লুক্সেমবার্গে আয়োজিত এক বৈঠকে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে যাচ্ছেন ইইউ পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা।

এদিকে তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু বলেন, এ ধরনের নিষেধাজ্ঞা বা অবরোধে তুরস্ক তার অভিযান থেকে সরে আসবে না।

জার্মান রেডিও স্টেশন ডয়েচে ভেলের কাছে কাভুসোগলু বলেন, অন্যরা যা-ই করুক না কেন, হোক সেটা অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা বা অন্য কিছু, এগুলো আমাদের শক্তিশালী করবে। যদি আমাদের মিত্রদেশগুলো সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোকে সমর্থন করে, আমরা যদি একাই দাঁড়িয়ে থাকি এবং আমাদের ওপর অবরোধ আরোপ করা হয়তারা যা-ই করুক না কেন, আমাদের লড়াই হচ্ছে সন্ত্রাসী সংগঠনের বিরুদ্ধে।

বিড আম সনতাগের মতে, ২০১৮ সালে তুরস্কের কাছে ২৪ কোটি ৩০ লাখ ইউরো (২৬ কোটি ৮০ লাখ ডলার) মূল্যের অস্ত্র বিক্রি করেছে জার্মানি, যা দেশটির মোট রফতানির এক-তৃতীয়াংশ। ২০১৯ সালের প্রথম চার মাসে জার্মানি থেকে ১৮ কোটি ৪০ লাখ ইউরোর অস্ত্র ক্রয় করেছে তুরস্ক।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন