বৃহস্পতিবার | নভেম্বর ২১, ২০১৯ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ফিচার

বিচিত্র স্থাপত্যশৈলীর এক গ্রন্থাগার

ফিচার ডেস্ক

টেম্পল বিশ্ববিদ্যালয়ের চার্লস গ্রন্থাগারটি আগের প্যালে গ্রন্থাগারের দ্বিগুণ, যা ১৯৬০-এর দশকে নির্মিত হয়েছিল। ফিলাডেলফিয়া বাসিন্দাদের পাশাপাশি কলেজ শিক্ষার্থীদের সুবিধার প্রসারে নির্মিত গ্রন্থাগার প্রচুরসংখ্যক বইয়ের জন্য উপযুক্ত

টেম্পল বিশ্ববিদ্যালয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গরাজ্য ফিলাডেলফিয়ায় অবস্থিত। ১৮৮৪ সালে প্রতিষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়ে বিচিত্র স্থাপত্যশৈলীর একটি গ্রন্থাগার তৈরি করা হয়েছে। খোদাইকৃত বাঁকানো কাঠ দিয়ে তৈরি গ্রন্থাগারটির প্রবেশপথ। চারতলাবিশিষ্ট এই চার্লস গ্রন্থাগারটি অবস্থিত বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রস্থলে। এটির দক্ষিণে রয়েছে বিজনেস স্কুল এবং পূর্বদিকে বিজ্ঞান প্রকৌশল ভবন। লাখ ২০ হাজার বর্গফুট আয়তকার গ্রন্থাগারের বেজমেন্টে একটি গ্র্যানাইট ভলিউম এবং উপরে একটি গ্লাস ভলিউম রয়েছে।

পশ্চিম দিকে বড় একটি উত্তর দিকে দুটিসহ তিনটি ধনুকাকৃতি নকশা ভবনটির পৃথক প্রবেশপথ চিহ্নিত করে। এর পুরোটাই কাঠ আচ্ছাদিত। ইঞ্জিনিয়ারিং ফার্ম স্ট্যানটেকের সাহায্যে গ্রন্থাগারটি সম্পন্ন করা স্নোহেট্টা সংস্থা বলছে, ভবনে ধনুকাকৃতির প্রবেশপথ এবং বিস্তৃত প্লাজা দর্শনার্থীদের স্বাগত জানাচ্ছে। গ্রন্থাগারটির অস্বাভাবিক জ্যামিতি একটি পৃথক পরিচয় প্রকাশ করে। নিচতলায় রয়েছে তিন গুণ উচ্চতার অ্যাটরিয়াম লবি এবং বাইরের সঙ্গে মিল রেখে এটিও কাঠ আচ্ছাদিত। স্লানটিং সাদা পিলারগুলো সিডার ক্লাড ছাদকে বৈচিত্র্যময় করে তোলে।

তারা বলছে, লবির গম্বুজযুক্ত অ্যাটরিয়াম ভবনের প্রতিটি কোণে দর্শন যুক্ত করেছে। এটি নোঙর হিসেবে কাজ করে এবং এখানে আগতদের গ্রন্থাগারের ক্রিয়াকলাপের কেন্দ্রে রাখে। নিচতলা থেকে খোদাইকৃত বাঁকানো কাঠের সিলিং অকুলাস নামে পরিচিত। এটি ভবনটির উপরের তলা পর্যন্ত পৌঁছেছে, যেখানে বিশালাকায় একটি জানালা দিয়ে আবৃত করা হয়েছে।

টেম্পল বিশ্ববিদ্যালয়ের চার্লস গ্রন্থাগারটি আগের প্যালে গ্রন্থাগারের দ্বিগুণ, যা ১৯৬০-এর দশকে নির্মিত হয়েছিল। ফিলাডেলফিয়া বাসিন্দাদের পাশাপাশি কলেজ শিক্ষার্থীদের সুবিধার প্রসারে নির্মিত গ্রন্থাগার প্রচুরসংখ্যক বইয়ের জন্য উপযুক্ত।


গ্রাউন্ড ফ্লোরের এক-তৃতীয়াংশের বেশি জায়গাজুড়ে বুকবোট নামে একটি স্বয়ংক্রিয় স্টোরেজ রিট্রাইভাল সিস্টেম রয়েছে। এটি উপরের দুটি তলকেও স্কেল করে। এটি কলেজ গ্রন্থাগারের জন্য ৫৭ ফুট উচ্চ স্থান করে দিয়েছে, যেখানে ১৫ লাখ বই রাখার ব্যবস্থা আছে। এটি আগে ক্যাম্পাসের বাইরে ছিল। বুকবোট বই স্টোরেজের স্থান কমিয়ে এখানে গ্রন্থাগারের সংগ্রহের স্থান, সহযোগী একাডেমিক শিক্ষা এবং পৃথক অধ্যয়নের স্থানকে বাড়াতে সক্ষম। 

গ্রন্থাগারে প্রবেশ করতেই একটি পরিষেবা ডেস্ক লবি রয়েছে। পাশেই একটি ক্যাফে, প্রদর্শনী ক্ষেত্র, ইভেন্ট স্পেস, পড়ার কক্ষ অফিস রয়েছে, যা সপ্তাহে সাতদিনই ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকে। এক পাশ দিয়ে ইস্পাতের সিঁড়ি এখান থেকে গ্রন্থাগারের বাকি তিনটি স্তরে পৌঁছেছে।

একটি কম্পিউটার ল্যাব, রাইটিং সেন্টার, টিউটর এরিয়া, নির্দেশনা কক্ষ অফিসগুলো প্রথম তলায় অবস্থিত। দ্বিতীয় তলায় টেম্পল ইউনিভার্সিটি প্রেস অফিস, টিউটরিংয়ের আরো জায়গা, স্টাফ লাউঞ্জ লরেট্টা সি ডাকওয়ার্থ স্টুডিও, অফিস পাঠকক্ষ রয়েছে। এছাড়া তলায় ইচ্ছামতো ডিজিটাল কাজ করার এবং প্রযুক্তিগত সুবিধা রয়েছে।

তৃতীয় তলার পুরোটা কাচের দেয়ালে আবৃত এবং এটি গ্রন্থাগারের প্রধান স্থান হিসেবে কাজ করে। গ্রন্থাগার ভবনটিতে ৪০টির বেশি সভাকক্ষ অধ্যয়নের স্থান রয়েছে। উপরের তলায়ও দুই লাখ বইয়ের জায়গা বিস্তৃত। সবুজ ছাদের আচ্ছাদনে চার্লস গ্রন্থাগারটি সম্পূর্ণ করা হয়েছে। ছাদের সবুজ রঙ অপ্রত্যাশিত প্রাকৃতিক অনুভূতি দেয়।

 

সূত্র: ডিজিন

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন