শনিবার | নভেম্বর ২৩, ২০১৯ | ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

শেষ পাতা

এখনই পদক্ষেপ না নিলে বুড়িগঙ্গার পরিণতি হবে কর্ণফুলীর —ভূমিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম ব্যুরো

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বলেছেন, কর্ণফুলীর বর্তমান চিত্র ভয়াবহ। এভাবে চলতে থাকলে অদূর ভবিষ্যতে নদীর অস্তিত্ব থাকবে কিনা, তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। চ্যানেল আইয়ের ২১ বছরে পদার্পণ উপলক্ষে গতকাল চট্টগ্রামে আয়োজিত গোলটেবিল আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, কর্ণফুলী এখন যে অবস্থায় আছে, তা আর ক্ষতি করতে দেয়ার সুযোগ নেই। এখন থেকে কর্ণফুলী নদী রক্ষায় পদক্ষেপ গ্রহণ না করা হলে নদী বুড়িগঙ্গার মতো হয়ে যাবে।

কর্ণফুলীকে রক্ষায় সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেন, নদী আমাদের অহংকার, আমাদের প্রাণ। সবাই মিলে কর্ণফুলীকে রক্ষা করতে হবে। নদীর দুই পাড়ের শিল্প-কারখানা সরাতে হবে। শিল্প-কারখানার বর্জ্য ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করতে হবে।

কর্ণফুলী নদীকে ঘিরে সরকারের অনেক পরিকল্পনা আছে জানিয়ে তিনি বলেন, কর্ণফুলী নদীবন্দরের ব্যবহারের বিষয় আছে। নদী রক্ষায় ড্রেজিং খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দ্রুত কাজ শেষ করতে হবে।

সময় মন্ত্রী চট্টগ্রাম বন্দরের চেয়ারম্যানের উদ্দেশে বলেন, আপনি থাকাবস্থায় একটি ম্যানুয়াল তৈরি করেন, যাতে সাসটেইনেবল হয়। দরকার হলে স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে আমাদের বসতে হবে। বালির দাম বেশি হওয়ার কারণে অনেকে নানাভাবে নদীর বালি তুলে নিচ্ছেন। কর্ণফুলী নদী রক্ষণাবেক্ষণের বিষয়ে বন্দরকে দায়িত্ব নিতে হবে।

তিনি আরো বলেন, লাইটারেজ জাহাজের যত্রতত্র পার্কিং বন্ধ করতে হবে। সাগরের সঙ্গে নদীর সংযোগ আছে। আমাদের বাণিজ্য বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে লাইটারেজ জাহাজ বাড়ছে। নিম্নচাপ সৃষ্টি হলে জাহাজ আসবে নদীতে। কিন্তু পার্কিংয়ের জন্য নদী ব্যবহার করা যাবে না। নেভিগেশনে সমস্যা হচ্ছে। বন্দর চেয়ারম্যানকে বিষয়টি দেখতে হবে। প্রয়োজনে কোস্টগার্ডের সহযোগিতা নিতে হবে।

ভূমিমন্ত্রী সময় হালদা রক্ষার বিষয়েও আলোকপাত করেন। তিনি বলেন, হালদা নদী আমাদের জন্য একটি বিস্ময়। কিন্তু কয়েক বছর ধরে নদীতে নানা সমস্যার কারণে মাছের রেণু সংগ্রহ কমে যাচ্ছে। কর্ণফুলীর সমস্যা সমাধান করা গেলে হালদার অনেক সমস্যার সমাধান হবে। সবার সঙ্গে কথা বলে ধাপে ধাপে কাজ করলে ভালো হবে। সিটি করপোরেশন কিংবা সিডিএ সবাই সরকারের টাকা খরচ করছে। সমন্বয় থাকলে শুধু কর্ণফুলী নয়, সাসটেইনেবল সিটি হিসেবে চট্টগ্রামকে গড়ে তোলা সম্ভব।

চ্যানেল আইয়ের চট্টগ্রাম বিভাগীয় প্রধান চৌধুরী ফরিদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র নাছির উদ্দিন, চট্টগ্রাম বন্দর চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল জুলফিকার আজিজ, সিডিএ চেয়ারম্যান জহিরুল আলম দোভাষ, ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক একেএম ফজলুল্লাহ, হালদা বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক . মনজুরুল কিবরীয়া, পরিবেশবিদ অধ্যাপক . ইদ্রিস আলীসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন