শুক্রবার | ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

আন্তর্জাতিক ব্যবসা

হংকং

মন্দার দিকে এগোলেও সমাধানের দেখা নেই

বণিক বার্তা ডেস্ক

 বৈশ্বিক আর্থিক সংকটের পর প্রথমবারের মতো মন্দার দিকে ক্রমেই এগিয়ে যাচ্ছে হংকং, কিন্তু থেকে রক্ষা পাওয়ার পথের দেখা পাওয়া যাচ্ছে না মাস চারেক ধরে সেখানে চলমান কয়েক দশকের সবচেয়ে ভয়াবহ সহিংসতার কারণে শহরটি মন্দায় পড়ার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে খবর ব্লুমবার্গ

এশিয়ার বাণিজ্যিক হাবটির সর্বত্র শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে এখানকার বিলাসবহুল হোটেল, প্রধান প্রধান শপিংমল, দোকানপাট কিংবা রেস্টুরেন্ট সবখানে বিরাজ করছে শূন্যতা বিশেষত শহরটির সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্ট, কসওয়ে বে সিম শা সুই অঞ্চলগুলোয় ব্যবসা-বাণিজ্য সকাল সকাল বন্ধ হয়ে যেতে কিংবা খুব অল্প সংখ্যক ক্রেতার আনাগোনা দেখা গেছে পর্যটক না থাকায় সবকিছু খোলা থাকলেও দোকানপাট বিমানবন্দর সুনসান হয়ে পড়েছে

এদিকে অক্টোবর থেকে ছুটির দিন বা সপ্তাহান্তে এখানকার সাবওয়ে নেটওয়ার্ক কিংবা মাস ট্রানজিট রেলওয়েগুলো (এমটিআর) দূরপাল্লার সার্ভিস সম্পূর্ণ বন্ধ রেখেছে শহরটির প্রধান নির্বাহী ক্যারি লাম চলমান বিক্ষোভ দমনে ঔপনিবেশিক যুগের জরুরি আইন প্রয়োগের উদ্যোগ নেয়ার পর সম্ভাব্য সহিংস পরিস্থিতি এড়াতে পরিবহন খাত ওই সাবধানি পদক্ষেপ নিয়েছে

অন্যদিকে দ্বিতীয় প্রান্তিকে সংকুচিত হয়ে পড়েছে শহরটির অর্থনীতি তৃতীয় প্রান্তিকেও প্রায় নিশ্চিতভাবে সংকুচিত হতে যাচ্ছে শহরটির অর্থনীতি অন্যদিকে এখন পর্যন্ত অর্থনীতিসংক্রান্ত যে পরিসংখ্যান রয়েছে তাও নেতিবাচক তবে শহরটির দুর্বল অর্থনীতি কত দীর্ঘ সময় কত ভয়াবহভাবে বিরাজ করতে পারে সেটিই মুখ্য বিবেচ্য বিষয় এশিয়ার ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের আঁতুড়ঘর হিসেবে মূল চীনের উত্থানের আগে হংকংই ছিল অঞ্চলের উৎপাদনের তীর্থভূমি প্রায় চার মাস ধরে গণবিক্ষোভ সহিংসতায় শহরটির সাবেক আস্থা বা নিরাপদ পরিবেশের সুনাম ভেঙে পড়ার সমূহ শঙ্কা তৈরি হয়েছে

তবে অস্থিরতা জারি থাকা সত্ত্বে সেখানকার সরকার সার্বিক পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে আপ্রাণ চেষ্টা করছে তবে তেমন একটা সুফল পাওয়া যাচ্ছে না প্রশাসনের পদক্ষেপ সম্পর্কে পিকটেট ওয়েলথ ম্যানেজমেন্টের জ্যেষ্ঠ অর্থনীতিবিদ ডং শেন বলেন, এখন পর্যন্ত সরকারের এমন কোনো দৃঢ় পদক্ষেপ দেখা যাচ্ছে না, যা পরিস্থিতির দ্রুত পরিবর্তন করতে পারে অন্যদিকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তিন মাসে টানা দ্বিতীয় প্রান্তিকে শহরটির অর্থনীতি সংকুচিত হতে পারে বলে পূর্বাভাস করেছেন একঝাঁক বিশেষজ্ঞ তারা বলেন, সৃষ্ট রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সরকারকে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা বা কাঠামোগত সমস্যা সমাধানের উদ্যোগ নিতে হবে

এছাড়া চলমান চীন-মার্কিন বাণিজ্যযুদ্ধের আগুন থেকে গা বাঁচিয়ে চলতে পারছে না শহরটি এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে শহরটির পর্যটন খাতের খরা এসব কিছুর কারণে ২০১৮ সালের তুলনায় চলতি বছরের পুরোটা সময় হংকংয়ের অর্থনীতি সংকুচিত হয়ে পড়ার সম্ভাবনা বেড়েছে রফতানি কমায় দ্রুতগতিতে এখানকার অর্থনীতি শ্লথ হয়ে পড়ছে অন্যদিকে বিক্ষোভের কারণে চলতি বছরের শুরু থেকে অর্থনৈতিক সুযোগ হাত ছাড়া করেছে এশিয়ার বাণিজ্যিক হাবটি

এদিকে ফেব্রুয়ারিতে পেশ করা বাজেটে শহরটির বার্ষিক প্রবৃদ্ধি আগস্ট নাগাদ - শতাংশ হতে পারে বলে পূর্বাভাস করেছিল অর্থমন্ত্রী পল শেন এরই মধ্যে তা কমিয়ে শূন্য থেকে শতাংশে নামিয়ে এনেছেন তিনি অন্যদিকে অনেক অর্থনীতিবিদ চলতি বছরে শহরটির অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি শতাংশের নিচে থাকবে বলে পূর্বাভাস করেছেন কিন্তু শহরটির অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি দশমিক শতাংশ হতে পারে বলে জানিয়েছে জেপি মরগান, যা ২০০৯ সালের পর সর্বনিম্ন

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন