বৃহস্পতিবার | নভেম্বর ১৪, ২০১৯ | ৩০ কার্তিক ১৪২৬

খেলা

বাংলাদেশকে ভারতের বার্তা

ক্রীড়া প্রতিবেদক

আল মোয়েজ আলী, ২৩ বছর বয়সী সুদানি বংশোদ্ভূত কাতারের ফরোয়ার্ড। অনূর্ধ্ব-২০, অনূর্ধ্ব-২৩ ও জাতীয় দলের হয়ে ৬১ ম্যাচে ৩২ গোল করেছেন। এ ফরোয়ার্ডই বাংলাদেশের রক্ষণ পরিকল্পনার কেন্দ্রে থাকছেন। কাতার ম্যাচের আগে লাল-সবুজদের আক্রমণাত্মক ফুটবলের হুমকি দিয়ে রাখল ভারত।

১০ অক্টোবর বিশ্বকাপ বাছাইয়ে বাংলাদেশ খেলবে কাতারের বিপক্ষে। ১০ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানের কাছে ০-১ গোলে হারা লাল-সবুজদের এটিই হতে যাচ্ছে প্রথম হোম ম্যাচ। কাতার ম্যাচের পর ভারত যাবে বাংলাদেশ দল। ১৫ অক্টোবর কলকাতায় স্বাগতিকদের মোকাবেলা করবেন জামাল ভূঁইয়ারা। ভারত ওই ম্যাচের প্রস্তুতি শুরু করেছে গোয়াহাটিতে। প্রস্তুতি পর্বের ফাঁকে বাংলাদেশের বিপক্ষে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলার কথা জানালেন ভারতের ক্রোয়েশিয়ান কোচ ইগর স্তিমাচ।

বাংলাদেশ রক্ষণাত্মক কৌশল নিয়ে আমাদের আটকানোর চেষ্টা করবে। তাদের রক্ষণ প্রাচীর ভেঙে গোল করতে হলে আমাদের পুরো ৯০ মিনিট আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলতে হবে’—ভারতীয় গণমাধ্যমকে বলেছেন ৫২ বছর বয়সী স্তিমাচ। ফুটবলে বাংলাদেশ ও ভারত পরস্পরকে জানে। এটা সমস্যা তৈরি করতে পারে। এ বিষয় মাথায় রেখেই দলকে প্রস্তুত করছেন ইংলিশ ক্লাব ডার্বি কাউন্টি ও ওয়েস্ট হ্যামের সাবেক এ ডিফেন্ডার।

বাংলাদেশ আমাদের ফুটবল সম্পর্কে জানে। তারা আমাদের সমস্যায় ফেলতে চাইবে। এ বিষয়গুলো মাথায় রেখে আমাদের নিখুঁত হতে হবে’—জানান ভারতীয় কোচ। আক্রমণাত্মক ফুটবলের ছক আঁটলেও বাংলাদেশকে সমীহ করছেন এ কোচ, ‘বাছাই পর্বে সব দলকেই সমান গুরুত্ব দিতে হবে। আমি বাংলাদেশকে সমীহ করছি।

ওমানের বিপক্ষে দুরন্ত লড়াই করা ভারত দীর্ঘক্ষণ ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে ছিল। শেষ মুহূর্তের গোলে ১-২-এ হেরেছে ভারত। দোহায় পরের ম্যাচে স্বাগতিক কাতারকে রুখে দিয়েছে স্তিমাচ শিষ্যরা। তৃতীয় ম্যাচে এসে জয়ের বিকল্প নিয়ে ভাবছেন না এ কোচ।

দুটি কঠিন লড়াইয়ের প্রস্তুতি আগেই শুরু করেছে বাংলাদেশ। প্রস্তুতির অংশ হিসেবে ভুটানের বিপক্ষে দুটি প্রীতি ম্যাচও খেলেছে লাল-সবুজরা। প্রথম ম্যাচে ৪-১ ও পরের ম্যাচে জয় ২-০ গোলে। ফিফা র্যাংকিংয়ে কাছাকাছি অবস্থানে থাকা দলটির বিপক্ষে জোড়া জয় পেলেও বাংলাদেশের নির্ভার থাকার সুযোগ নেই। কারণ কাতার ও ভারত ম্যাচে রীতিমতো ঝড় সামলাতে হবে।

ফলাফল যা-ই হোক, দুটি ম্যাচের আগে উত্তরসূরিদের কাছ থেকে সামর্থ্যের সেরাটা চান বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি কাজী মোহাম্মদ সালাউদ্দিন। গতকাল বাফুফে ভবনসংলগ্ন কৃত্রিম টার্ফে এক অনুষ্ঠানে সাবেক এ ফুটবলার বলেছেন, ‘কাতার ও ভারত বেশ শক্তিশালী দল। হয়তো তাদের বিপক্ষে আমাদের দল খুব একটা ভালো করতে পারবে না। আমি আশা করছি, দুই ম্যাচে ছেলেরা তাদের সেরাটা দেবে।

একটা সময় প্রতিপক্ষ হিসেবে ভারত বাংলাদেশের কাছাকাছিই ছিল। কিন্তু গত কয়েক বছরের অঢেল বিনিয়োগে ফুটবলে বেশ এগিয়ে গেছে প্রতিবেশী দেশটি। সে বাস্তবতা মেনে কাজী সালাউদ্দিন বলেন, ‘পাঁচ বছর আগের ভারত আর বর্তমান ভারত কিন্তু এক নয়। দেশটি ফুটবলে মিলিয়ন মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করেছে। তারা আগের চেয়ে অনেক এগিয়ে গেছে।

কাতার ম্যাচে কার্ডজনিত কারণে ফুলব্যাক বিশ্বনাথ ঘোষকে পাচ্ছে না বাংলাদেশ। এদিকে ইনজুরি সমস্যায় আছেন দুই ডিফেন্ডার টুটুল হোসেন বাদশা ও সুশান্ত ত্রিপুরা। ইনজুরির কারণে দীর্ঘদিন ধরে দলের বাইরে ডিফেন্ডার তপু বর্মণ ও ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার আতিকুর রহমান ফাহাদ।

শক্তিশালী দলের আক্রমণ রুখে পাল্টা আক্রমণে যেতে ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডারের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। ফাহাদ না থাকায় এ জায়গায় আপাতত জেমি ডে আস্থা রাখতে পারছেন কেবল অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়ার ওপর। কাদের নিয়ে কাতার ও ভারত ম্যাচের চূড়ান্ত স্কোয়াড গড়বেন এ ইংলিশ কোচ, সেটাই এখন দেখার ব্যাপার।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন