বৃহস্পতিবার | নভেম্বর ১৪, ২০১৯ | ৩০ কার্তিক ১৪২৬

টেলিকম ও প্রযুক্তি

অনলাইনে পণ্য ক্রয়ে...

বাংলাদেশে -কমার্স জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। অসংখ্য মানুষ প্রতিদিন বিভিন্ন -কমার্স সাইট, অ্যাপস সোস্যাল মিডিয়া পেজ থেকে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কেনাকাটা করছে। ঘরে বসে পণ্য ক্রয়ের সুবিধা অসুবিধা দুটোই রয়েছে। দেশের ক্রমবর্ধমান -কমার্স খাত ঘিরে অনেক জালিয়াতির খবর পাওয়া যাচ্ছে। অনলাইনে পণ্য ক্রয়ের ক্ষেত্রে বেশকিছু বিষয়ে লক্ষ রাখা জরুরি। সচেতনতার পাশাপাশি যে বিষয়গুলো মেনে চললে অনলাইনে পণ্য ক্রয়ে জালিয়াতচক্রের হাত থেকে সুরক্ষা মিলবে, তা নিয়ে আয়োজনের আজ শেষ পর্ব

ক্যাশ অন ডেলিভারি

 

বাংলাদেশে বেশির ভাগ -কমার্স এফ-কমার্স সাইটের নিজস্ব পণ্য সরবরাহ ব্যবস্থা গড়ে ওঠেনি। কুরিয়ার সার্ভিস কিংবা তৃতীয় পক্ষের পণ্য সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বেশির ভাগ -কমার্স সাইটের পণ্য ক্রেতাদের কাছে পৌঁছে দেয়া হয়। এক্ষেত্রে পণ্য হাতে পাওয়ার পর অর্ডারকৃত পণ্যের সঙ্গে মিল আছে কিনা তা দেখে মূল্য পরিশোধ করতে হবে। পাশাপাশি কাঙ্ক্ষিত পণ্য হাতে পাওয়ার পর দেখে নিতে হবে মোড়ক আগে থেকে খোলা ছিল কিনা। ন্যূনতম জালিয়াতির চিহ্ন পাওয়া গেলে অর্ডার বাতিল করে পণ্য ফিরিয়ে দেয়া যেতে পারে।

 

কাঙ্ক্ষিত পণ্যের পাবলিক রিভিউ যাচাই

 

-কমার্স সাইট কিংবা এফ-কমার্স পেজের পণ্যে পাবলিক রিভিউ অপশন রয়েছে। যেখানে পণ্যটি কেমন তা সম্পর্কে নতুন কিংবা পুরনো ব্যবহারকারীর মন্তব্য পাওয়া যাবে। অনলাইনে পণ্য পছন্দ করার পর অবশ্যই পণ্যটি নিয়ে পাবলিক রিভিউ যাচাই করে নিন। এতে করে পণ্যটি কেমন এবং যে সাইট থেকে কিনতে যাচ্ছেন, তাদের ব্যবসায় নীতি কতটা স্বচ্ছ সে বিষয়ে ধারণা পাওয়া যাবে।

 

বিশ্বাসযোগ্য সাইট বা পেজে ক্রয়াদেশ

 

অনলাইনে পণ্য ক্রয়ের জন্য বিশ্বাসযোগ্য সাইট বা পেজ থেকে ক্রয়াদেশ দিতে হবে। সমস্যা হলো কীভাবে বুঝবেন কোন সাইট বা ফেসবুক পেজ বিশ্বাসযোগ্য আর কোনগুলো নয়। এক্ষেত্রে কোনো সাইট থেকে পণ্যের ক্রয়াদেশ দেয়ার আগে সে প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে ভালোভাবে যাচাই করে নিতে হবে। অনলাইন পণ্য বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানের ফিজিক্যাল স্টোর থাকতেই হবে এমন বাধ্যবাধকতা নেই।

 

অনলাইন ক্রয়াদেশের রসিদ সংরক্ষণ

 

অনলাইনে কোনো সাইট বা পেজ থেকে পণ্যের ক্রয়াদেশ দিলে রসিদ সংরক্ষণ করুন। আগাম মূল্য পরিশোধের বাধ্যবাধকতা থাকলে সে রসিদও সংরক্ষণে রাখুন। বাংলাদেশে -কমার্স কিংবা এফ-কমার্স এখনো প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। -কমার্স বা এফ-কমার্সের ক্রেতাদের সিংহভাগই তরুণ। ক্রেতা পর্যায়ে -কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোও খুব বেশি গ্রহণযোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি। কাজেই পণ্য বুঝে নিয়ে মূল্য পরিশোধ করা যায় এমন সাইট বা পেজ থেকে পণ্য ক্রয় করা নিরাপদ।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন