বৃহস্পতিবার | নভেম্বর ২১, ২০১৯ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ফিচার

আর্টিকেল ৩৭০ নিয়ে নির্মাতাদের হুড়োহুড়ি!

ফিচার ডেস্ক

ভারত শাসিত কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদা দেয়া সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলুপ্ত ঘোষণার পর থেকে চলমান এ ইস্যু তথা ভারতীয় সংবিধানের বিশেষ এ অনুচ্ছেদ নিয়ে এরই মধ্যেই চলচ্চিত্র তৈরির ঘোষণা দিয়ে ফেলেছেন অনেক নির্মাতা

আর্টিকেল ৩৭০, আর্টিকেল ৩৫এ, কাশ্মীর মে তেরঙা আসন্ন চলচ্চিত্র হিসেবে এমন অনেক নামই উঠে এসেছে নির্মাতাদের পক্ষ থেকে। বলা চলে সংবিধানের এ অনুচ্ছেদ বাতিল হওয়ার পর থেকে নির্মাতাদের মধ্যে হুড়োহুড়ি পড়ে গেছে কার আগে কে এ ইস্যু নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণের নাম ঠিক করবে, সে বিষয়ে। অন্যদিকে গেল জুনে মুক্তি মিলেছে আয়ুষ্মান খুরানা অভিনীত আর্টিকেল ফিফটিন চলচ্চিত্রটির। এ সিনেমার সফলতাও নির্মাতাদের এ ধরনের চলচ্চিত্র তৈরিতে ইন্ধন জোগাচ্ছে।

সংবাদ মাধ্যম মুম্বাই মিররের করা একটি প্রতিবেদনে এক সূত্র জানিয়েছে, কমপক্ষে ৫০টি নাম এরই মধ্যে নিবন্ধন করা হয়েছে হিন্দি ফিল্ম অ্যাসোসিয়েশনে। অনুভব সিনহা পরিচালিত আর্টিকেল ফিফটিন-এর সফলতা থেকে অনেক নির্মাতাই বেছে নিয়েছেন আর্টিকেল ৩৭০, আর্টিকেল ৩৫এ কিংবা এ ঘরানার নামগুলো। তবে অধিকাংশ নির্মাতার পছন্দের শীর্ষে রয়েছে আর্টিকেল ৩৭০ এবং আর্টিকেল ৩৫এ এই নাম দুটো। সেসঙ্গে সূত্রটি  আরো জানায়, কাশ্মীর মে তেরঙা, কাশ্মীর হামারা হ্যায়, ধারা ৩৭০ এবং ধারা ৩৫এ এই ধরনের নামগুলোও গ্রহণ করেছে অ্যাসোসিয়েশন।

এমনকি কেউ কেউ অনুচ্ছেদ ৩৭০ বিলুপ্ত হওয়ার আগে থেকেই পরিকল্পনা করে রেখেছিলেন এ বিষয়টি নিয়ে চলচ্চিত্র তৈরির। পিএম নরেন্দ্র মোদি বায়োপিক তৈরির পেছনে কাজ করা প্রযোজক আনন্দ পণ্ডিত দাবি করছেন তিনি এর মধ্যেই আর্টিকেল ৩৭০ এবং আর্টিকেল ৩৫এ নাম দুটি বুকিং দিয়ে রেখেছেন।

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন