সোমবার | নভেম্বর ১৮, ২০১৯ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

কলমানি বাজার

ইকুইটির ৪০% পর্যন্ত ধার নিতে পারবে আর্থিক প্রতিষ্ঠান

নিজস্ব প্রতিবেদক

একসময় কলমানি বাজার থেকে নিট সম্পদের ১৫ শতাংশ পর্যন্ত ঋণ নিতে পারত দেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো। ২০১৭ সালে এটি বাড়িয়ে ইকুইটির ৩০ শতাংশ পর্যন্ত করে দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। তারল্য সংকটে থাকা আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে নীতিসহায়তা দেয়ার অংশ হিসেবে এতে আরেক দফা পরিবর্তন আনা হয়েছে। এখন থেকে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো নিজেদের ইকুইটির ৪০ শতাংশ পর্যন্ত কলমানি বাজার থেকে ধার করতে পারবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বাজার বিভাগ থেকে গতকাল এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর দৈনন্দিন ব্যয় নির্বাহে ঘাটতি থাকলে অন্য ব্যাংক থেকে ধার নিতে পারে। দেশে সাধারণত একদিনের জন্য কলমানি ধার পদ্ধতি প্রচলিত রয়েছে। যদিও দুর্দশাগ্রস্ত আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো একদিনের জন্য ধার নেয়া টাকা এক বছরেও পরিশোধ করতে পারছে না। তারল্য সংকটে থাকা আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে নীতিসহায়তা দিতেই বাংলাদেশ ব্যাংক নতুন এ প্রজ্ঞাপন জারি করেছে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো ৩১ ডিসেম্বর ভিত্তিতে হিসাব বিবরণী প্রস্তুত কবে। এর ভিত্তিতেই প্রতিষ্ঠানের ইকুইটি নির্ধারণ করবে। আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো নির্ণীত ইকুইটির সর্বোচ্চ ৪০ শতাংশ হারে কলমানি বাজার থেকে ঋণ নিতে পারবে।

এর আগে ২০১৭ সালের ২৯ জানুয়ারি কলমানি বাজার থেকে ঋণ গ্রহণের সীমা বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ওই প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, পরিশোধিত মূলধন, রিটেইনড আর্নিংস, স্ট্যাটিউটরি রিজার্ভ, জেনারেল রিজার্ভ, শেয়ার প্রিমিয়াম, অ্যাসেট রিভ্যালুয়েশন রিজার্ভ, অন্যান্য ক্যাপিটাল ও রিজার্ভকে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ইকুইটি হিসেবে গণ্য করা হয়।

এদিকে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর বাড়ি ভাড়া বৃদ্ধি ও চুক্তির ক্ষেত্রেও বেশকিছু পরিবর্তন এনেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এখন থেকে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর বাড়ি ভাড়া করার ক্ষেত্রে প্রথম চুক্তির সর্বনিম্ন মেয়াদ হবে তিন বছর। পরবর্তী সময়ে চুক্তি নবায়নের ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন দুই বছর মেয়াদ হতে হবে। চুক্তি নবায়নের সময় দুই বছরের জন্য ভাড়া বৃদ্ধির হার ১০ শতাংশ এবং তিন বছর বা তার বেশি সময়ের জন্য চুক্তির ক্ষেত্রে ১৫ শতাংশের বেশি হলে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন নিতে হবে। আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বাজার বিভাগ থেকে জারীকৃত পৃথক এক প্রজ্ঞাপনে এ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

 

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন