বৃহস্পতিবার | নভেম্বর ১৪, ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

দেশের খবর

ধান সংরক্ষণে দুই শতাধিক সাইলো নির্মাণ করা হবে —খাদ্যমন্ত্রী   

বণিক বার্তা প্রতিনিধি কুষ্টিয়া ও ঝিনাইদহ 

খাদ্যমন্ত্রী সাধন কুমার মজুমদার বলেছেন, কৃষকদের স্বার্থ সংরক্ষণ না করলে দেশ পিছিয়ে যাবে। তাই সারা দেশে ধান সংরক্ষণের জন্য দুই শতাধিক আধুনিক সাইলো নির্মাণ করা হবে, যাতে ধান উৎপাদনের সঙ্গে সঙ্গে কৃষকরা বিক্রি করতে পারেন। গতকাল বেলা ১১টায় কুষ্টিয়া সার্কিট হাউজ হলরুমে মিল মালিকদের নিয়ে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় মন্ত্রী এ কথা বলেন।

সভায় অন্যদের মধ্যে কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মো. আসলাম হোসেন, খাদ্য কর্মকর্তা মনোয়ার হোসেন, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা, চালকল মালিক সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি আব্দুর রশিদ, কুষ্টিয়া জেলা সভাপতি ওমর ফারুক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

কুষ্টিয়াতেও সাইলো ও গুদাম নির্মাণ করা হবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, সাইলো নির্মাণ হলে দেশের চাহিদা মিটিয়ে প্রয়োজনে বাইরে চাল রফতানি করা যাবে। তবে সেজন্য উত্কৃষ্ট মানের চাল উৎপাদন করতে হবে, যাতে বাজার নষ্ট না হয়। সরকার চাল রফতানির বিষয়টি বিবেচনা করছে।

তিনি বলেন, বন্ধ মিল কোনোভাবে চাল সরবরাহের অর্ডার পাবে না। বিষয়টি কঠোরভাবে মনিটরিং করা হচ্ছে। হাসকিং মিল প্রতিযোগিতায় টিকতে পারছে না। প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে হলে মালিকদের অটো মিল স্থাপন করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, দেশে খাদ্য গুদামে জায়গা অনেক কম। তার পরও এবার প্রায় ২৮ লাখ টন ধান ও চাল কেনা হচ্ছে।

এদিন বিকালে মন্ত্রী ঝিনাইদহ সদর উপজেলা খাদ্যগুদাম পরিদর্শন করেন। এসময় খুলনা বিভাগীয় খাদ্য নিয়ন্ত্রক ড. এসএম মহসীন, ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ, পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান, জেলা চালকল মালিক সমিতির সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন উপসিস্থত ছিলেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন