বৃহস্পতিবার | নভেম্বর ১৪, ২০১৯ | ৩০ কার্তিক ১৪২৬

খেলা

ইতিহাস গড়তে যাচ্ছেন ফ্লাপার্ট

ইউরোপিয়ান ফুটবলে পুরুষদের বড় কোনো ম্যাচ পরিচালনা করে ইতিহাস গড়তে যাচ্ছেন ফ্রান্সের নারী রেফারি স্টেফানি ফ্লাপার্ট। ১৪ আগস্ট উয়েফা সুপার কাপে লিভারপুল ও চেলসির ম্যাচ পরিচালনা করবেন তিনি।

তুরস্কের ইস্তাম্বুলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ চ্যাম্পিয়ন লিভারপুলের মুখোমুখি হবে ইউরোপা লিগ চ্যাম্পিয়ন চেলসি। টটেনহামকে হারিয়ে লিভারপুল আর আর্সেনালকে হারিয়ে চেলসি চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। এবার সুপার কাপেও অল-ইংলিশ লড়াই। রোমাঞ্চকর এ দ্বৈরথের আকর্ষণ বাড়িয়ে দেবেন ৩৫ বছর বয়সী ফ্লাপার্ট।

তবে বড় ম্যাচ পরিচালনার অভিজ্ঞতা তার এ প্রথম নয়। গত মাসে ফ্রান্সের লিওঁতে নারী বিশ্বকাপে যুক্তরাষ্ট্র-নেদারল্যান্ডস ফাইনাল পরিচালনা করেন সফলভাবে। এবার পুরুষদের বড় কোনো ম্যাচে প্রধান রেফারি হিসেবে নামছেন তিনি।

ফ্লাপার্টকে সুপার কাপ ম্যাচে রেফারি হিসেবে নিয়োগ দিতে পেরে আনন্দিত উয়েফা প্রেসিডেন্ট আলেকসান্ডার সেফেরিন। তিনি বলেন, ‘আমি বহুবার বলেছি, নারী ফুটবলের সম্ভাবনার কোনো সীমা নেই। একটি সংস্থা হিসেবে আমরা সব জায়গায় নারী ফুটবল উন্নয়নে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে থাকি। স্টেফানি তার পুরো ক্যারিয়ারে যে দক্ষতা আর নিষ্ঠা প্রদর্শন করে আজকের এ অবস্থানে পৌঁছেছে, তা ইউরোপব্যাপী লাখ লাখ কিশোরী ও নারীকে অনুপ্রাণিত করবে। তারা এই বার্তা পাবে, নিজেদের স্বপ্নপূরণের পথে কোনো কিছুই বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে না।’

উয়েফা সুপার কাপে ফ্লাপার্টের সহকারী হিসেবে থাকবেন তারই স্বদেশী ম্যানুয়েলা নিকোলোসি ও আয়ারল্যান্ডের মিচেলে ও’নিল। চতুর্থ রেফারি হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন তুরস্কের কুনেইত কাকির, যিনি ২০১৫ সালের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনাল পরিচালনা করেন।

ইতিহাস গড়েই চলেছেন ফ্লাপার্ট। ২০১৪ সালে প্রথম নারী হিসেবে লিগ টুর ম্যাচ পরিচালনা করেন। গত বছর এপ্রিলে লিগ ওয়ানেও প্রথম নারী রেফারি হিসেবে এমিয়েনস ও স্ট্রসবুর্গের ম্যাচ পরিচালনা করেন তিনি। ফ্রেঞ্চ লিগে ২০১৯-২০ মৌসুমেও রেফারিদের পুলে রয়েছে তার নাম। তবে উয়েফা সুপার কাপ ম্যাচ নিয়ে তিনি বেশ আলোচনায়।

ফ্লাপার্টকে নিয়ে উয়েফার চিফ রেফারিং অফিসার রবার্তো রোসেত্তি বলেন, ‘স্টেফানি গত কয়েক বছর ধরেই প্রমাণ করে যাচ্ছে, সে শুধু ইউরোপেই নয় বিশ্বের অন্যতম সেরা নারী রেফারি। বড় মঞ্চে ম্যাচ পরিচালনার সামর্থ্য তার রয়েছে, এ বছর নারী বিশ্বকাপ ফাইনালেই সে তা প্রমাণ করেছে।’

২০০৪ থেকে ২০০৯ সালের মধ্যে উয়েফা কাপ বাছাই পর্বে তিনটি ম্যাচ পরিচালনা করেছিলেন সুইস নারী রেফারি নিকোলো পেটিন্যাট। বিবিসি

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন