‘অবসরের কথা চিন্তাই করি না’: উডি অ্যালেন

ফিচার ডেস্ক | ০০:০০:০০ মিনিট, জুলাই ২০, ২০১৯

সাম্প্রতিক বছরগুলোয় বিতর্ক শব্দটি চলচ্চিত্র পরিচালনা জীবনকে ওষ্ঠাগত করে তুললেও এ জগৎ থেকে বিদায় কিংবা সরে যাওয়ার বিন্দুমাত্র পরিকল্পনা নেই বলে স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিলেন বিশ্বখ্যাত নির্মাতা উডি অ্যালেন। ‘অবসরের কথা আমি চিন্তাই করি না। এটা এমন কিছুই নয়, যা আমার ক্ষেত্রে ঘটেছে।’ নিজের নতুন ছবির উন্মোচন উপলক্ষে সান সেবাস্তিয়ানে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এমন মনোভাব ব্যক্ত করেন অ্যালেন। তার নতুন এ ছবি নির্মাণ করা হয়েছে স্পেনে। ছবিটি নির্মাণে আর্থিক সহায়তা দিয়েছে স্পেনের মিডিয়া জায়ান্ট মিডিয়াপ্রো। এতে অভিনয় করেছেন ক্রিস্টোফ ওয়াল্টজ, জিনা গারশন, লুই গ্যারেল প্রমুখ। ছবির প্রকল্পটিকে এখন পর্যন্ত অফিশিয়ালি ডাকা হচ্ছে ‘উডি অ্যালেন সামার প্রজেক্ট ২০১৯’ নামে।

মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত এ সংবাদ সম্মেলনে অ্যালেন নিজের চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার নিয়ে বলেন, ‘আমার দৃষ্টিভঙ্গি, বহু বছর আগে যখন আমি শো বিজনেস শুরু করি, তখন থেকে যা-ই ঘটুক না কেন, আাামি সবসময় আমার কাজে মনোযোগ দেয়ার চেষ্টা করেছি। স্ত্রী, সন্তান, সাম্প্রতিক বিষয়, রাজনীতি ও অসুস্থতার মতো বিষয়গুলো নিয়ে আমার জীবনে যাই ঘটে না কেন তাতেও কর্ণপাত করি না। আমি আমার কাজে মনোযোগ দিই এবং সত্যি বলতে কী সপ্তাহের প্রতিটি দিন এসব কিছু আমার সময় ও প্রচেষ্টাকে শোষণ করে।’ তিনি আরো যোগ করেন, ‘সম্ভবত এমন একদিন আসবে, যেদিন সেটে চলচ্চিত্র শুটিংয়ের মাঝপথেই ছবি বানাতে বানাতে আমি মৃত্যুকে বরণ করব।’

‘আমার ছবি মানবীয় সম্পর্ককে ঘিরে, মানুষ নিয়ে। আমি তাদের আনন্দ দেয়ার, রসবোধ দেয়ার চেষ্টা করি’—নিজের ছবি নিয়ে বলেন অ্যালেন।

সম্প্রতি অ্যামাজনের সঙ্গে নতুন ছবি এ রেইনি ডে ইন নিউইয়র্ক নিয়ে উডি অ্যালেনের দ্বন্দ্ব হয়। অ্যালেন শর্ত ভঙ্গের অভিযোগ এনে ৬৮ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ চেয়ে অ্যামাজনের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নিয়েছেন। অন্যদিকে নারী নিপীড়নবিরোধী মিটু ক্যাম্পেইনের সময় অ্যালেনের বিরুদ্ধে পালিত কন্যা ডিলান ফারাওকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ ওঠে। যদিও অ্যালেন তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

অ্যালেনের আসন্ন রোমান্টিক কমেডিনির্ভর নতুন প্রকল্পের গল্প গড়ে উঠেছে আমেরিকান এক বিবাহিত দম্পতিকে (ওয়াল্টজ ও গারশন) কেন্দ্র করে। যারা সান সেবাস্তিয়ান চলচ্চিত্র উৎসবে অংশ নেন। ঘটনাক্রমে একজন ফরাসি চলচ্চিত্র নির্মাতার সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি হয় স্ত্রীর। অন্যদিকে স্বামী জড়িয়ে পড়েন স্পেনের একজন স্থানীয় নারীর সঙ্গে ভালোবাসার সম্পর্কে।

সান সেবাস্তিয়ান চলচ্চিত্র উৎসবকে ধরা হয় পৃথিবীর অন্যতম বৃহৎ আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব হিসেবে। ১৯৫২ সাল থেকে এর যাত্রা। চলতি বছর উৎসবটি তার ৬৭তম বার্ষিকী উদযাপন করছে। এ উৎসবে অ্যালেন নিয়মিত অংশ নেন। ২০০৪ সালে এ উৎসবের সর্বোচ্চ সম্মাননা ‘দ্য প্রিমিও দোনোস্তিয়া’ অ্যাওয়ার্ড লাভ করেন এ নির্মাতা। ওই বছর অ্যালেন নির্মিত ছবি মেলিন্ডা অ্যান্ড মেলিন্ডার বিশ্ব প্রিমিয়ার হয় এ উৎসবে।

উল্লেখ্য, নতুন ছবি ছাড়াও অ্যালেন প্রস্তুতি নিচ্ছেন তার নির্মিত আগের ছবি এ রেইনি ডে ইন নিউইয়র্ক নিজের উদ্যোগেই নিউইয়র্কের প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শনের। ছবিটি প্রযোজনা করেছে অ্যামাজন স্টুডিও। যদিও অ্যালেনের বিরুদ্ধে ফারাওর নিপীড়নের অভিযোগ ওঠার পর এ প্রকল্প থেকে সরে যায় অ্যামাজন। এ ছবিতে অভিনয় করেছেন এলি ফ্যানিং, সেলেনা গোমেজ, টিমোথি চালামেট ও জুড ল।

 

সূত্র: গার্ডিয়ান ও ইন্ডিওয়্যার