আন্তর্জাতিক খবর

জাদু দেখাতে গিয়ে নদীতে নিখোঁজ জাদুকর

বণিক বার্তা অনলাইন | ০০:০০:০০ মিনিট, জুলাই ২০, ২০১৯

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে হাত-পা বেঁধে গঙ্গা নদীতে জাদু দেখাতে গিয়ে পানিতে নিখোঁজ হয়ে গেছেন এক জাদুকর। দীর্ঘ সময় তল্লাশির পরও তার কোনো খোঁজ না পাওয়ায় তদন্ত শুরু করেছে দেশটির পুলিশ। জাদু দেখাতে গিয়ে উধাও হওয়া এ জাদুকরের নাম চঞ্চল লাহিড়ি, যিনি ম্যানড্রেক নামেও পরিচিত। খবর বিবিসি।

খবরে বলা হয়েছে, রোববার দুপুর দেড়টায় জাদু শুরুর অনুমতি নিয়েছিলেন চঞ্চল। কিন্তু তিনি সকালেই লঞ্চে করে মাঝগঙ্গায় চলে যান। সেখানেই শুরু করেন জাদুর প্রস্তুতি। সেখানে শিকল দিয়ে তার হাত-পা বাঁধা হয়। সে অবস্থায় ক্রেনে করে তাকে মাঝগঙ্গায় ফেলা হয়। সেই মাঝগঙ্গা থেকে শিকলের বাঁধন খুলে উঠে আসার কথা ছিলো চঞ্চলের। আর সেটাই হবে জাদু!

কিন্তু অনেকক্ষণ পরও জাদুকর চঞ্চল লাহিড়ি নদী থেকে উঠে না আসায় তার সহযোগীরা স্থানীয় থানায় খবর দেন। এরপর নৌ ট্রাফিক পুলিশের জাদুকরের খোঁজে গঙ্গায় তল্লাশি শুরু করে। কিন্তু রোববার সন্ধ্যা পর্যন্ত তার কোনো হদিস মেলেনি।

খবরে বলা হয়েছে, পুলিশ জানিয়েছে, জাদুর জন্য অনুমতি ছাড়াই ক্রেন ব্যবহার করা হয়েছে। এমন ঝুঁকিপূর্ণ জাদু দেখানোর জন্য উপযুক্ত সুরক্ষার ব্যবস্থা ছিল কি না, এ নিয়ে জাদুকর চঞ্চলের সহযোগীদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। ঘটনা তদন্ত করতে হাওড়া ব্রিজের সিসিটিভি ফুটেজ দেখছে পুলিশ।

জাদুকর চঞ্চল লাহিড়ি যখন এ জাদুর প্রস্তুতি নিতে গিয়ে নিখোঁজ হন তখন এ পুরো ঘটনা প্রত্যক্ষ করেন স্থানীয় সংবাদপত্রের ফটোগ্রাফার জয়ন্ত শাহ। তিনি জাদু দেখানোর আগে চঞ্চলকে এ বিষয়ে প্রশ্নও করেছিলেন।

জয়ন্ত বলেন, আমি জাদুকর চঞ্চল লাহিড়িকে প্রশ্ন করেছিলাম, কেনো আপনি জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এ জাদু দেখান? তখন চঞ্চল মৃদু হেসে বলেছিলেন, ‘আমি যদি এটা সঠিকভাবে করতে পারি তাহলে এটা হবে ম্যাজিক, আর যদি সামান্য ভুল করে বসি তাহলে এটা হবে শোক।'

তবে এধরনের জাদু এটাই চঞ্চল প্রথম দেখাননি। তিনি এ জাদু প্রায় ২০ বছর আগে থেকে করে আসছেন এবং যথারীতি নিরাপদভাবে সবকিছু ঠিকভাবে করে আসছেন। এর আগেও চঞ্চলের এমন জাদু দেখেছেন ফটোগ্রাফার জয়ন্ত শাহ।

তিনি বলেন, আমি কিছুতেই ভাবতে পারছি না চঞ্চল এবার আর পানির মধ্য থেকে বের হয়ে আসতে পারেননি।