‘মিডিয়ায় নিয়মিত না থাকলে সবাই ভুলে যায়’

ফিচার প্রতিবেদক | ০০:০০:০০ মিনিট, জুলাই ২০, ২০১৯

টেলিভিশনে নিয়মিত অভিনয় নিয়ে হাজির থাকলেও গত ঈদে অভিনেত্রী শানারেই দেবী শানুকে একদমই দেখা যায়নি। কেন হুট করে অভিনয় থেকে দূরে থাকা? কৌতূহলী হয়ে এ প্রশ্নের উত্তর জানতে গতকাল যোগাযোগ করা হয় শানুর সঙ্গে। ব্যাখ্যা দিলেন কেন, কী কারণে অভিনয় থেকে আপাতত দূরে আছেন তিনি। টকিজ ও শানুর কথোপকথন তুলে ধরা হলো—

আপনার অভিনয় ব্যস্ততা কেমন যাচ্ছে?

না, এ মুহূর্তে মনে রাখার মতো তেমন কোনো কাজ করছি না। আপাতত অভিনয়ের বাইরে আছি। এমনকি গেল ঈদেও কাজ করিনি। এছাড়া আগামী কোরবানির ঈদ নিয়েও এখন পর্যন্ত কোনো শিডিউল সাজাতে পারছি না। কারণ এ ঈদে পারিবারিক অবকাশ যাপনের জন্য যুক্তরাজ্যে যাওয়ার একটা পরিকল্পনা আছে। সে কারণেও নিয়মিত কোনো কাজ হাতে নিচ্ছি না। তবে এর মধ্যে আমার মনের মতো লোভনীয় কোনো প্রস্তাব পেয়ে গেলে তাতে হয়তো যোগ দিতে পারি, তাও অবশ্য অল্প সময়ের জন্য।

ঈদের অবসরে টিভি পর্দায় কেমন চোখ রেখেছিলেন?

সত্যি বলতে কী, এবার ঈদে টিভি পর্দায় অনেকক্ষণ ধরে চোখ রাখা হয়নি। তবে বিশ্বকাপ ক্রিকেট খেলা দেখছি সময়-সুযোগ পেলে। ইউটিউবে আলোচিত নাটকগুলো দেখা হচ্ছে। এসব দেখতে গিয়ে একটা বিষয় চোখে পড়েছে, তাহলো এবারের ঈদের প্রোগ্রামগুলো নিয়ে দর্শকদের অনেকেই একটু নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন। সম্ভবত তারা হতাশ হয়েছেন।

টিভিতে চোখ রাখতে না পারার কারণ ব্যস্ততা নাকি অন্যকিছু?

এটা টিভি না দেখার অভ্যস্ততার কারণে ঘটে গেছে সম্ভবত। তাছাড়া একটু-আধটু দেখার ইচ্ছা থাকলেও আমার সন্তানের হাতে রিমোটের দখল থাকায় নিজের মনের মতো করে কিছুই দেখতে পারি না।

এ বছরের একুশে গ্রন্থমেলায় আপনার উপন্যাস প্রকাশ পেয়েছিল। আগামী বছরের জন্য প্রস্তুতি কেমন?

হ্যাঁ, এ কারণেই নিজের মতো করে লেখালেখির জন্য সময় বের করে নিচ্ছি। ‘লিপস্টিক’ নামে একটি উপন্যাস লিখছি। বেশ আগেই লেখা শুরু করেছিলাম। এখন রয়েছে শেষের পথে। উপন্যাস ছাড়াও ছোটদের নিয়ে কাজের পরিকল্পনা করছি। এদিকে এ বছর কবিতার বই বের করতে পারিনি, সে কারণে আগামীবার ইচ্ছা আছে কবিতার বই প্রকাশ করার। 

উপন্যাস লিখে তো এবার ভালোই রয়্যালটি পেয়েছেন...

না, খুব বেশি না। তবে যা-ই পাই না কেন লেখালেখি করে সম্মানী পাওয়া অন্য রকম এক অনুভূতি। লেখকের সার্থকতা হিসেবে এ বিষয়টিও হূদয়ে একটু দাগ কেটেছে। 

সম্মানী কোন খাতে খরচ করলেন?

তা কি আর এতদিন থাকে। এরই মধ্যে সব খরচ করে ফেলেছি। এর বেশির ভাগ খরচ করেছি বই কিনে।

এবারই কি প্রথমবারের মতো সম্মানী পেলেন?

না, গত বছরও পেয়েছি তাম্রলিপি প্রকাশনী থেকে। সত্যি বলতে কী প্রথমবার সম্মানী পাওয়ার অনুভূতি ছিল অন্য রকম।

বলছিলেন, অভিনয়ের চেয়ে লেখালেখিকে এ মুহূর্তে আপনি গুরুত্ব দিচ্ছেন। এর কারণ কী?

হ্যাঁ, অভিনেত্রী সত্তার চেয়ে লেখক সত্তাকে বেশি অনুভব করছি। এখন লেখালেখি উপভোগ করছি। এখন আমি আমার ভাবনা, শব্দ, বাক্য, অলংকরণের ভুবনে বসবাস করছি। এর একটা প্রধান কারণ হলো, অভিনয় করতে গিয়ে আমি খেয়াল করে দেখেছি যে, মিডিয়ায় কাজের মধ্যে নিয়মিত না থাকলে সবাই ভুলে যান। আমি মাঝে কিছুদিন বিরতিতে ছিলাম। এরপর দেশে থাকা সত্ত্বেও অনেকেই মনে করেছেন আমি বোধ হয় বিদেশ চলে গেছি। মিডিয়ায় নিজের নামকে মনে করিয়ে রাখতে প্রতিনিয়ত এর সঙ্গে লেগে থাকতে হয়, কোনো ফুরসত দিলেই হলো...। এ কারণে লেখালেখিকে বেশি শ্রেয় মনে করছি।

ফিরে আসা যাক অভিনয় প্রসঙ্গে। ‘সাত ভাই চম্পা’ মেগা সিরিয়ালের প্রথম মৌসুমে গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন। তো দ্বিতীয় মৌসুম কবে নাগাদ শুরু হবে?

সাত ভাই চম্পার দ্বিতীয় মৌসুম কবে থেকে শুরু হবে জানি না। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান, নির্মাতা কীভাবে এগোচ্ছেন, সে সম্পর্কেও আমি এখন পর্যন্ত অবগত নই।